🕓 সংবাদ শিরোনাম

রোববার পর্যন্ত ইরানে হিজাববিরোধী বিক্ষোভে নিহতের সংখ্যা ৯২ * নিজের মেয়েকে হত্যা করে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে যেভাবে নাটক সাজায় বাবা! * কান্নাকাটি করায় বিরক্ত হয়ে ৩৫ দিনের শিশু কন্যাকে পুকুরে ফেলে দেন মা ! * তৃতীয়বারের মতো প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন, দুজনকেই শ্রীঘরে নিলো পুলিশ * বন্দরে মিশুক চালক কায়েস’র লাশ উদ্ধারের ১২ ঘন্টার মধ্যে গ্রেপ্তার ৩ * মঙ্গলবার দেশে ফিরবেন প্রধানমন্ত্রী * ইবির পরিবহন নিয়ে যত অভিযোগ * ফরিদপুরে আলোচিত দুই হাজার কোটি টাকা পাচার মামলায় ছাত্রলীগ নেতা কারাগারে * এবার রাজশাহীতে চলন্ত বাসে ঢুকে গেলো বৈদ্যুতিক খুটি * চলতি সপ্তাহেই বাড়ছে বিদ্যুতের দাম *

  • আজ সোমবার, ১৮ আশ্বিন, ১৪২৯ ৷ ৩ অক্টোবর, ২০২২ ৷

পঞ্চগড়ে নার্স ও চিকিৎসকের অবহেলায় রোগী মৃত্যুর অভিযোগ

Panchagar news
❏ শুক্রবার, আগস্ট ১৯, ২০২২ রংপুর

নাজমুস সাকিব মুন, পঞ্চগড় প্রতিনিধি: পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় দায়িত্বে থাকা নার্স ও চিকিৎসকের অবহেলার অভিযোগ তুলেছেন মৃত রোগীর স্বজনরা।

বৃহস্পতিবার (১৮ আগস্ট) বিকালে বোদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্রেক্সে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা বরাবর অভিযোগ দিয়েছেন পরিবারটি।

হাসপাতাল সূত্রমতে, মৃত শ্রী টনো কিশোর (৪৮) বোদা উপজেলার মন্নাপাড়া গ্রামের বাসিন্দা।

অভিযোগ উঠেছে, বৃহস্পতিবার দুপুরের শরীরের খিচুনি উঠলে হাসপাতালে নেয়া হয় টনো কিশোরকে। এসময় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দায়িত্বরত চিকিৎসক রোগীর চিকিৎসা দিতে বিলম্ব করেন। ডাক্তারের দেওয়া পরামর্শে রোগীকে ঔষধ সেবনের পরে রোগীর শারীরিক অবস্থা আরও খারাপ হলে অভিভাবকেরা ডিউটি রুমে দায়িত্বে থাকা নার্স ও ডাক্তারকে অবহিত করেন। কিন্তু একাধিকবার নার্সকে বলার পরেও নার্স দিপ্তি রানী, সুমি, রোজিনা, লাইলি ও শাকিলা বিষয়টি গুরুত্ব না দিয়ে বিরক্তি প্রকাশ করেন। এসময় রোগীর অভিভাবকদের সাথে খারাপ আচরণ করা হয় বলে অভিযোগ উঠেছে। এক পর্যায়ে কোন সেবা না পেয়ে রোগী শ্রী টনো কিশোরের বিকেলে মৃত্যু হয়।

মৃতের ভাইপো সুবল রায় সাংবাদিকদের জানান, রোগীর খারাপ অবস্থা দেখে বারবার আমি চিকিৎসক ও নার্সদের বিষয়টি জানাই এবং তাদের ডাকি। কিন্তু তারা কোন গুরুত্ব দেয় নি। রুমেই বসে ছিলেন তারা। তাদের অবহেলায় আমার কাকার মৃত্যু হয়েছে। আমরা এ ঘটনার বিচার চাই।

ডিউটিতে থাকা অভিযুক্ত নার্স সুমি, রোজিনা, লাইলি ও শাকিলা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ঐ রোগীর দেখাশুনার দ্বায়িত্ব ছিল দিপ্তি রানী। সে রোগীটিকে পর্যবেক্ষন করছিলেন। আমরা মৃত রোগীর সর্ম্পকে কিছুই জানিনা। আমরা কারও সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ করিনি।

এ বিষয়ে জানতে দিপ্তি রানীর খোঁজ করলেও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তাকে পাওয়া যায় নি। পরে একাধিকবার তার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলেও তা বন্ধ পাওয়া যায়।

বোদা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক মোমেনা খাতুন বলেন, রোগীকে দেখার পরে যথাযথ চিকিৎসাপত্র দেওয়া হয়। অবস্থা খারাপের কথাটি আমি আগেই তাদের জানিয়েছি। আর নার্সের সাথে কি হয়েছে সেটা আমি জানিনা। এ ক্ষেত্রে আমার কোন অবহেলা ছিল না। আমরা সব সময় রোগীকে সঠিক সেবা দেয়ার চেষ্টা করি।

বোদা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা এস আই এম রাজিউর করিম জানান, বিষয়টি আমাকে কেউ জানায় নি। আমি খোঁজ নিয়ে দেখছি। তবে রোগীর মৃত্যুর জন্য কোন ডাক্তার বা নার্সের অবহেলা থাকলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। আমরা এ বিষয়ে তৎপর রয়েছি।

এদিকে পঞ্চগড় সিভিল সার্জন ডাক্তার রফিকুল হাসান বলেন, আমার কাছে এ ধরণের কোন অভিযোগ আসেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।