🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ বুধবার, ১৩ আশ্বিন, ১৪২৯ ৷ ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ৷

আশ্রয়নের ঘরে চাঁদাবাজি, এবার ভাইস চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা

Faridpur news
❏ বুধবার, আগস্ট ২৪, ২০২২ ঢাকা

হারুন-অর-রশীদ,ফরিদপুর প্রতিনিধি: প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে টাকা নেওয়ার অভিযোগে এবার ফরিদপুরের সালথা উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রূপা বেগমের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন এক ভুক্তভোগী।

বুধবার (২৪ আগস্ট) সন্ধ্যায় মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ফরিদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুমন রঞ্জন সরকার।

পুলিশের এ কর্মকর্তা বলেন, মিরাজ হোসেন নামের এক ভুক্তভোগী মঙ্গলবার (২৩ আগস্ট) সালথা থানায় মামলাটি দায়ের করেন। এ মামলায় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রুপা বেগম ছাড়াও তার স্বামী হায়দার মোল্যা (৫৫) ও তার ভাই মোকাদ্দেস মিয়াকেও (২৮) আসামী করা হয়।

এরআগে প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পাইয়ে দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে আব্দুর রহমান নামের এক ভিক্ষুকের কাছ থেকে ২৫ হাজার টাকা নেওয়ার অভিযোগে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রূপা বেগমের স্বামী মো. হায়দার মোল্যার বিরুদ্ধে মামলা হয়। ওই মামলায় ১৫ আগস্ট রাতে তাকে গ্রেপ্তার করে ১৬ আগস্ট আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। তিনি ওই মামলায় এখনও কারাগারে রয়েছেন। এরইমধ্যে আবার তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে একই অভিযোগে মামলা হলো।

সালথা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শেখ সাদিক বলেন, প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে ২০ হাজার টাকা চাঁদা নেওয়ার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেছেন মিরাজ নামের এক ভুক্তভোগী।

তবে ঘরের জন্য চাঁদা নেওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন সালথা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রূপা বেগম। তিনি এটাকে ষড়যন্ত্র দাবী করেন।

এদিকে, গত বছর ৫ এপ্রিলের সালথায় তান্ডবের মামলায় বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন সালথা উপজেলার পরিষদের চেয়ারম্যান মো. ওয়াদুদ মাতুব্বর ও পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন