• আজ রবিবার, ১৭ আশ্বিন, ১৪২৯ ৷ ২ অক্টোবর, ২০২২ ৷

প্রেমিকের বিয়ের খবরে গলায় ওড়না দিয়ে বেরোবি শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা


❏ রবিবার, সেপ্টেম্বর ৪, ২০২২ দেশের খবর, রংপুর

রংপুর প্রতিনিধি: রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগের এক শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার রংপুর নগরীর কামারের মোড় এলাকায় আজিজুল হক ছাত্রীনিবাসে এ ঘটনা ঘটে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ওই শিক্ষার্থীর নাম শাহনাজ আক্তার (মুন্নি)। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের দশম ব্যাচের শিক্ষার্থী। তাঁর বাড়ি গাইবান্ধার সদর উপজেলার দক্ষিণ ঘাগোয়ায়।

পুলিশের প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, প্রেমিকের বিয়ে করার খবর পেয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে পারেন মুন্নি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, শনিবার বেলা ৩টা থেকে শাহনাজের রুমের জানালা-দরজা বন্ধ ছিল। বিকেল পেরিয়ে রাত হলেও শাহনাজ দরজা না খোলায় রাত সাড়ে ৮টা থেকে বান্ধবীরা দরজায় নক করেন। কিন্তু কোনো সাড়া না পেয়ে পেছনের জানালা দিয়ে দেখতে পান শাহনাজ ওড়না পেঁচিয়ে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলছেন। তাঁদের ধারণা, বেলা ৩টা থেকে বিকেল ৫টার মধ্যে তিনি আত্মহত্যা করেছেন।

এদিকে ময়নাতদন্ত ছাড়াই রাত ২টা ৩০ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডি তাঁর পরিবারের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করে। বিষয়টি জানাজানি হলে শিক্ষার্থীদের মধ্যে কৌতূহল জাগে, কেন তদন্ত করা হলো না?

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর গোলাম রব্বানী বলেন, শিক্ষার্থীর পরিবার তদন্ত চায়নি, তারা মেয়ের মরদেহ চেয়েছে। পরে পুলিশ প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনা করে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (এসআই) ইজার আলি বলেন, ‘শনিবার রাত ১১টার দিকে খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে যাই। একটি কক্ষে ফ্যানের সঙ্গে ওড়না দিয়ে প্যাঁচানো অবস্থায় মেয়েটির ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পাই। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডি, মেস মালিক সমিতির সভাপতির উপস্থিতিতে দরজা ভেঙে শাহনাজের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়।’

বিশ্ববিদ্যালয় পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (এসআই) ইজার আলী আরও বলেন, আলামত হিসেবে এখন পর্যন্ত কোনো সুইসাইড নোট তাঁরা ওই ঘরে পাননি। তবে বান্ধবী, পরিবার এবং মেসের অন্যান্য শিক্ষার্থীর সঙ্গে কথা বলে প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, শাহনাজের গ্রামের বাড়ির দিকে একজনের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। প্রেমিকের বিয়ে করার খবর পেয়ে তিনি আত্মহত্যার পথ বেছে নেন। এ ঘটনায় আরও তদন্ত করা হচ্ছে। পুরো বিষয়টি তখন জানা যাবে।