মাকে গলা টিপে হত্যার বর্ণনা দিলো ৪ বছরের মেয়ে


❏ বুধবার, সেপ্টেম্বর ৭, ২০২২ দেশের খবর, রাজশাহী

রাজশাহী : রাজশাহীর পবায় যৌতুকের জন্য সন্তানের সামনেই সোনিয়া (২২) নামের এক গৃহবধূকে নির্যাতন ও গলা টিপে হত্যা করেছে স্বামী।

উপজেলার রামচন্দ্রপুর ভবানীপুর পূর্বপাড়া এলাকায় বুধবার (৭ সেক্টম্বর) সকাল ৯ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ওই গৃহবধূ পবা উপজেলার কইরা গ্রামের হানিফের মেয়ে।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে নিহত গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য রামেক হাসপাতালের মর্গে পাঠান।

স্থানীয়রা জানান , দীর্ঘদিন যাবত যৌতুকের জন্য গৃহবধূ মোসা: সোনিয় (২২) কে নির্যাতন করতেন তার স্বামী ভবানীপুর পূর্বপাড়া এলাকার মোঃ নাসির।

বৃহস্পতিবার সকালে ৯ টার দিকে মোসা: নাজমিন নামে ৪ বছরের এক মেয়ে সন্তানের সামনে গৃহবধূ সোনিয়া ও নাসিরের ঝগড়া শুরু হয় যৌতুকের টাকা দাবি করা কে কেন্দ্র করে। এক পর্যায় স্বামী নাসির গৃহবধূ সোনিয়াকে ব্যবপক মারপিট করে ও গলা চেপে শ্বাস রোধ করে হত্যা করে। পরে বাড়ি থেকে নাসিরসহ সবাই পালিয়ে যায়।

ঘটনা স্থলে পুলিশ উপস্থিত হলে ওই দম্পতির ৪ বছরের এক মাত্র মেয়ে মোসা: নাজমিন পুলিশ কে ঘটনার বিস্তারিত জানান।

নিহত গৃহবধূর মেয়ে নাজমিন জানায়, আমার সামনে আব্বু আম্মুকে গলা টিপে মেরেছে। পরে আম্মুকে গলায় ওরনা পেচে ঘরের ফেনে ঝুলানোর চেস্টা করে যখন পারেনি তখন ফেলে পারিয়েছে আব্বু।

এ বিষয় পবা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: ফরিদ হোসেন জানান, নিহত গৃহবধুর পিতার দাবি তার মেয়ে কে গলা টিপে হত্যা করার পরে তাকে ফেনের সাথে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য রামেক হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। মামলা হলে দ্রæত আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান ওসি।