শিক্ষার্থীদের আত্মহত্যা রোধে ২ লাখ শিক্ষককে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে: শিক্ষামন্ত্রী


❏ রবিবার, সেপ্টেম্বর ১১, ২০২২ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, চাঁদপুর: শিক্ষার্থীদের আত্মহত্যার প্রবণতা রোধে প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অন্তত দুই জন কাউন্সিলিংয়ের শিক্ষক রাখা হবে। সেজন্য সারা দেশে ২ লাখ শিক্ষককে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

রোববার (১১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে চাঁদপুরের হাইমচরে নদীভাঙনে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর পুনর্বাসন সহায়তার চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, বয়সন্ধিকালে শিক্ষার্থীরা শারীরিক ও মানসিক বিভিন্ন ধরনের পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে যায়। সব সময় তারা সঠিক তথ্য পায় না। তাদেরকে বাবা-মায়েরা বুঝায় না, স্কুলেও পাঠ্যবইয়ে যা আছে তা ঠিক মত জানানো হয় না। করোনার দুই বছর শিক্ষার্থীরা নানা ট্রমার মধ্য দিয়ে গেছে। ইন্টারনেটেও কিছু গেম আছে। সবকিছু মিলিয়ে শুধু বাংলাদেশেই নয়, সারা বিশ্বেরই কম বয়সীদের মাঝে আত্মহত্যার প্রবণতা বাড়ছে।

তিনি বলেন, হেল্প লাইনের পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের আত্মহত্যা প্রবণতারোধে প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অন্তত ২ জন কাউন্সিলিংয়ের শিক্ষক রাখা হবে। সেজন্য সারা দেশে ২ লাখ শিক্ষককে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। আমরা আশাকরি কাউন্সিলিংয়ের মাধ্যমে আমরা শিক্ষার্থীদের সমস্যাগুলো দূর করতে পারবো।

অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, বাবা-মায়েদেরকে বলবো, এই বয়সী ছেলে-মেয়েরা অনেক সংবেদনশীল। তাই সংবেদনশীল মন নিয়েই তাদের সমস্যাগুলো দেখতে হবে। তাছাড়া মেয়েরা অনেক সময় ইভটিজিংয়ের শিকার হয়। সেই সমস্যার কথা যদি পরিবারের কাছে বলতে না পারে, তার শিক্ষকদের কাছে বলতে না পারে। তখনই কিন্তু তার যে চাপা আবেগ থাকে তার বহিঃপ্রকাশ ঘটে আত্মহননের মধ্য দিয়ে।