🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ মঙ্গলবার, ১২ আশ্বিন, ১৪২৯ ৷ ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ৷

শহীদ বুদ্ধিজীবি কবরস্থান এলাকায় পুলিশের অভিযান, আটক ২৯


❏ রবিবার, সেপ্টেম্বর ১১, ২০২২ ঢাকা

রাজু আহমেদ, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট: দেশের জনপ্রিয় নিউজ পোর্টাল সময়ের কণ্ঠস্বরে সংবাদ প্রকাশের পর রাজধানীর মিরপুরের শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থান ও স্মৃতিসৌধ এলাকায় বিশেষ অভিযান চালিয়ে ২৯ জনকে আটক করেছে ডিএমপির মিরপুর বিভাগের দারুসসালাম থানা পুলিশ।

শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মরণে নির্মিত রাজধানীর মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থান ও স্মৃতিসৌধ এলাকা বর্তমানে একশ্রেণির মাদকসেবী, ছিনতাইকারী, ভবঘুরে ও কিশোর অপরাধীদের অবাধ বিচরণ ক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। প্রশাসনের সঠিক নজরদারির অভাবেই বহুল তাৎপর্যপূর্ণ ও পবিত্র এই স্থানটিতে অপরাধীরা অবাধে চলাচল করছে বলে অভিযোগ রয়েছে স্থানীয়দের।

এ-বিষয়ক বস্তুনিষ্ঠ তথ্য উপাত্ত তুলে ধরে সম্প্রতি সময়ের কণ্ঠস্বরে একটি অনুসন্ধানী সংবাদ প্রকাশের পর বিষয়টিকে অত্যন্ত গুরুত্ব সহকারে আমলে নিয়ে শহীদ বুদ্ধিজীবি কবরস্থান ও স্মৃতিসৌধ এলাকার পবিত্রতা রক্ষা, স্থানীয় বাসিন্দা ও দর্শনার্থীদের মাঝে সচেতনতা তৈরী, এলাকাটিকে কেন্দ্র করে সংঘটিত অপরাধ দমন এবং অপরাধীদের আনাগোনা বন্ধে বিশেষ নজরদারিসহ নিয়মিত অভিযান পরিচালনার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে ডিএমপির মিরপুর বিভাগের দারুসসালাম থানা পুলিশ।

এ বিষয়ে দারুসসালাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তোফায়েল আহমেদ সময়ের কণ্ঠস্বরকে বলেন, বেশকিছু অভিযোগের ভিত্তিতে গত শনিবার সন্ধ্যা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত এলাকাটিতে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে আড্ডারত, কবরস্থান ও স্মৃতিসৌধ এলাকায় প্রকাশ্যে ধুমপান ও অযাচিত সন্দেহজনক চলাচলকারী ২৯ জনকে আটক করা হয়েছে।

তবে আটককৃতদের বেশিরভাগই বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী। ফলে বিষয়টি বিশেষভাবে বিবেচনায় এনে আটককৃত সকল শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদেরকে থানায় ডেকে সকলের উপস্থিতিতে দীর্ঘসময় ধরে সচেতনতামূলক আলোচনা শেষে ভবিষ্যতে এই এলাকায় অযাচিত ও অহেতুক চলাচল না করার শর্তে মুচলেকা নিয়ে তাদেরকে অভিভাবকদের নিকট বুঝিয়ে দেয়া হয়।

আটককৃত মধ্যে অন্যান্যরা কবরস্থান এলাকায় অহেতুক আড্ডা দেবার কারণ হিসেবে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের বিপরীতে গ্রহণযোগ্য কোনো সদুত্তর না দিতে পারা এবং তাদের অভিভাবকদেরকে উপস্থিত করতে না পারায় রবিবার সকালে আটজনকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

কবরস্থান ও স্মৃতিসৌধ এলাকার পবিত্রতা রক্ষায় নিয়মিত এ অভিযান অব্যাহত থাকবে উল্লেখ করে ওসি তোফায়েল আহমেদ আরো বলেন, এটি সাধারণ কোনো স্মৃতিসৌধ নয়; বরং এদেশের ইতিহাসের স্বাক্ষী। যা দেখে আমাদের আগামী প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধ-বাংলাদেশ ও বাংলাদেশের সঠিক ইতিহাস সম্পর্কে জানতে পারবে। স্বাধীন দেশের সচেতন নাগরিক হিসেবে আমাদের যার যার স্থান থেকেই এর পবিত্রতা, ভাবগাম্ভীর্য ও ঐতিহ্য রক্ষায় এগিয়ে আসা উচিত। এই স্মৃতিসৌধের পবিত্রতা রক্ষা ও স্মৃতিসৌধ কেন্দ্রীক আইনশৃঙ্খলা রক্ষা এবং সকলের মাঝে এ বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে নিয়মিত কাজ করবে আমার পুলিশ। পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট সকল দপ্তরকে শহীদ বুদ্ধিজীবি কবরস্থান ও স্মৃতিসৌধের পবিত্রতা রক্ষায় প্রয়োজনীয় যাবতীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন