🕓 সংবাদ শিরোনাম

মধুর সঙ্গে বিষ মিশিয়ে দুই সন্তানকে খাওয়ানোর পর আত্মহত্যার চেষ্টা মায়ের * অবৈধ কার্যকলাপের অভিযোগে গুলশানের স্পা সেন্টার থেকে ৯ জনকে গ্রেপ্তার * রোববার পর্যন্ত ইরানে হিজাববিরোধী বিক্ষোভে নিহতের সংখ্যা ৯২ * নিজের মেয়েকে হত্যা করে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে যেভাবে নাটক সাজায় বাবা! * কান্নাকাটি করায় বিরক্ত হয়ে ৩৫ দিনের শিশু কন্যাকে পুকুরে ফেলে দেন মা ! * তৃতীয়বারের মতো প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন, দুজনকেই শ্রীঘরে নিলো পুলিশ * বন্দরে মিশুক চালক কায়েস’র লাশ উদ্ধারের ১২ ঘন্টার মধ্যে গ্রেপ্তার ৩ * মঙ্গলবার দেশে ফিরবেন প্রধানমন্ত্রী * ইবির পরিবহন নিয়ে যত অভিযোগ * ফরিদপুরে আলোচিত দুই হাজার কোটি টাকা পাচার মামলায় ছাত্রলীগ নেতা কারাগারে *

  • আজ সোমবার, ১৮ আশ্বিন, ১৪২৯ ৷ ৩ অক্টোবর, ২০২২ ৷

শরীয়তপু‌রে স্টান্ড রিলিজ শিক্ষা অফিসার ৭ দিন পরেও স্বপদে!

Shariayatpur news
❏ মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২২ ঢাকা

শরীয়তপুর প্রতিনিধি: শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোছাঃ সুলতানা রাজিয়াকে স্টান্ড রিলিজ করার ৭ দিন পেরিয়ে গেলেও তিনি স্বপদে বহাল রয়েছেন। অবমুক্ত হওয়ার তারিখের পরে পেরিয়ে গেছে ৭ দিন। য‌দিও রহস্যজনক কারণে এ বিষয়ে কোন ব্যবস্থা নেয়নি জেলার কর্মকর্তারা। ত‌বে একজন সরকারী কর্মকর্তার এমন আচরণে শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও আইনের প্রতি শ্রদ্ধা নিয়ে নানা প্রশ্ন তুলছে স্থানীয়রা। এতে ভোগান্তি আরও বাড়‌বে ম‌নে কর‌ছেন সেবা প্রত্যাশীরা।

ভেদরগঞ্জ উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্র জানায়, গত ২৯ আগষ্ট ২০২২ তারিখে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক (প্রশাসন-১) মো. আব্দুল আলীম স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে ভেদরগঞ্জ উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোছাঃ সুলতানা রাজিয়াকে ফেনী জেলার ফুলগাজী উপজেলা শিক্ষা অফিসার হিসেবে বদলী করা হয়।

জনস্বার্থে জারি করা এ আদেশে ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ তারিখের মধ্যে দায়িত্ব হস্তান্তরের জন্য বলা হয় তাকে। ৬ সেপ্টেম্বর তারিখ থেকে তাৎক্ষনিক অবমুক্ত বলে গন্য হবে মর্মেও উল্লেখ করা হয় ওই আদেশে। কিন্তু মোছাঃ সুলতানা রাজিয়া সরকারী আদেশকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে আজ (১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২) পর্যন্ত দায়িত্ব হস্তান্তর করেননি। অন‌্যদি‌কে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন এর সভাপতিত্বে গত ৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ তারিখে কয়েকটি পরিত্যাক্ত প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবনের নিলাম প্রক্রিয়া সম্পান্ন করা হয়েছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন প্রধান শিক্ষক জানান, অসৎ উদ্দেশ্য হাসিলের জন্যই ওই লিনামে অংশ নিতে তিনি দায়িত্ব হস্তান্তর করেননি। কিভাবে তাৎক্ষনিক অবমুক্ত থাকা অবস্থায় তিনি নিলাম কার্যক্রমে অংশ নিয়েছেন তা নিয়ে নানা প্রশ্ন তুলছে সাধারণ মানুষ।

ভেদরগঞ্জ উপজেলা প্রাথমিক সহকারী শিক্ষা অফিসার জাকির হোসেন বলেন, নিলামে আমি স্বাক্ষর করিনি। মোছাঃ সুলতানা রাজিয়া স্যার আর আমি দু’ জনেই উপস্থিত ছিলাম। শুনেছি আমাদের স্যারের বদলী হয়েছে কিন্তু এর বেশি কিছু বলতে পারবো না। স্যার মৌখিক ভাবে কাউকে দায়িত্ব দিয়েছে কিনা তাও আমি জানিনা।

উপজেলা প্রাথমিক সহকারী শিক্ষা অফিসার এসএম মশিউল আজম হিরক বলেন, স্যারের বদলী হয়েছে শুনেছি। সিনিয়র এটিইও ’র কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর করেছে কিনা আমার জনা নাই।

অ‌ভি‌যোগ ওঠা ওই উপজেলা শিক্ষা অফিসার সুলতানা রাজিয়া বলেন, আমি দায়িত্ব দিয়ে দেব। নতুন আরেকটি আদেশ করানোর জন্য তদবির করছি। এ নিয়ে লেখা-লেখি হলে ক্ষতি হবে। বিষয়টি এরিয়ে গেলে খুশি হবো।

স্থানীয় বি‌ভিন্ন স্কুল শিক্ষক‌দের সা‌থে কথা ব‌লে জানা গে‌ছে, মোছাঃ সুলতানা রাজিয়া দা‌য়ি‌ত্বে থাকা অবস্থায় তার বিরুদ্ধে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২০/২২জন প্রধান শিক্ষক প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরসহ সরকা‌রের বিভিন্ন দপ্তরে স্লীপ ও ক্ষুদ্র মেরামতের বরাদ্ধ থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা উত্তোলন করে আত্মসাতের অভিযোগ দাখিল করেন।

সেই অ‌ভি‌যো‌গের ভি‌ত্তি‌তে কয়েক মাস আগে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের একজন কর্মকর্তা এইঘটনার তদন্ত করেছেন। বিভিন্ন মিডিয়ায় এনিয়ে সংবাদও প্রচার হয়েছে। এরপর থেকেই ভেদরগঞ্জ উপজেলায় প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে নানা টানা পোড়েন চলছিল। তার বদলীর সংবাদে স্বস্থি ফি‌রে‌ছে উপ‌জেলাধীন কর্মরত স্কুল শিক্ষকদের। কিন্তু কোন অশুভ শক্তির ইশারায় তিনি প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের বদলীর আদেশ প্রতিপালন থেকে বিরত রয়েছে- তা নিয়ে বিভিন্ন মহলে জল্পনা কল্পনা শুরু হয়েছে।

শরীয়তপুর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো: এরশাদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, আমি গতকাল যোগদান করেছি। এ বিষয়ে আমি কিছুই জানিনা। আপনাদের কাছ থেকে শুনলাম। আমার আগে ভারপ্রাপ্ত হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছে অতিরিক্ত জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মাহবুব হোসেন।

অতিরিক্ত জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মাহবুব হোসেন বলেন, তাৎক্ষণিক অবমুক্তির পরে আর দায়িত্বে থাকার সুযোগ নেই। কিভাবে সে দায়িত্বে আছে আমি বলতে পারবো না।