• আজ বুধবার, ১৩ আশ্বিন, ১৪২৯ ৷ ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ৷

সালথার নিখোঁজ সেই ইজিবাইক চালক উদ্ধার

Faridpur news
❏ মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২২ ঢাকা

হারুন-অর-রশীদ, ফরিদপুর প্রতিনিধি: ফরিদপুরের সালথা উপজেলায় ব্যাটারিচালিত ইজিবাইকসহ ফরহাদ মাতুব্বর (৩০) নামে এক ইজিবাইক চালক নিখোঁজের দুইদিন পর অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করা গেলেও ভ্যানটি আর পাওয়া যায়নি।

মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নিখোঁজ হওয়া ইজিবাইক চালকের মামাতো ভাই মো. সায়েম ইজিবাইক চালক ফরহাদকে উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে ইজিবাইক নিয়ে বাড়ি থেকে বের হলে শনিবার (১০ সেপ্টেম্বর) রাত থেকে তার ব্যবহৃত মুঠোফোন বন্ধসহ সে নিখোঁজ ছিল বলে তার পরিবার জানায়। পরে নিখোঁজের দুইদিন পর মাদারীপুরের শিবচর এলাকার একটি মসজিদের পাশে অচেতন অবস্থায় তাকে পাওয়া যায়। তবে, ফরহাদের ইজিবাইকের সন্ধান আর মেলেনি। ফরহাদ ফরিদপুরের সালথা উপজেলার নিধিপট্টি গ্রামের খলিল মাতুব্বরের পুত্র।

ইজিবাইক চালক ফরহাদের পরিবারের দাবী, তার (ফরহাদ) মুখের কাছে একটি রুমাল ধরলে সে অজ্ঞান হয়ে যায়। পরে তাকে একটি মসজিদের কাছের একটি রাস্তার পাশে রেখে ইজিবাইক নিয়ে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। পরে নিখোঁজের দু’দিন পর সেখানকার মসজিদের মুসল্লীরা উদ্ধার করে ফাহাদকে তাদের কাছে ফেরত দেন।

মনির মাতুব্বর নামে তার ছোট ভাই বলেন, দিনভর কৃষিকাজ শেষে গত শনিবার (১০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৭টায় ইজিবাইক নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয় ফরহাদ। এরপর রাত ৯ টায় তার স্ত্রী আসমা বেগমকে ব্যবহৃত মুঠোফোন থেকে ফোন দিয়ে বলে- “আমি টিপ নিয়ে ফরিদপুরে যাচ্ছি, আসতে রাত হবে”। এরপর রাত আনুমানিক ১১ টার দিকে ফরিদপুর থেকে তার স্ত্রীর মোবাইল নাম্বারে ফ্লেক্সিলোড করে দেয়। এরপর আর রাতে বাড়িতে ফিরে আসেনি। মোবাইল নাম্বারও বন্ধ পাওয়া যায়। এর দুইদিন পর মাদারীপুরের শিবচর এলাকায় একটি সড়কের পাশে থেকে অজ্ঞান অবস্থায় তাকে উদ্ধার করা হয়। পরে হাসপাতালে চিকিৎসা দিলে আপাতত সে কিছুটা সুস্থ আছেন।

সালথা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শেখ সাদিক বলেন, নিখোঁজের ঘটনায় সালথা থানায় একটি জিডি (সাধারণ ডায়েরি) করতে আসে নিখোঁজের পরিবার। জিডি লেখার সময়ই নিখোঁজ ইজিবাইক চালক ফরহাদকে খুঁজে পাওয়া যায়। তবে, ফরহাদকে উদ্ধারের পর তাদের পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ আর থানায় যোগাযোগ করেনি।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন