🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ বুধবার, ১৩ আশ্বিন, ১৪২৯ ৷ ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ৷

ফরিদপুরে অবিভাবকদের পাহারায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যেতে হয় ছাত্রীদের!

Faridpur news
❏ বুধবার, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২২ ঢাকা

হারুন-অর-রশীদ, ফরিদপুর প্রতিনিধি: ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলায় তীব্র আকার ধারণ করেছে বখাটেদের উৎপাত। মাঝে মাঝেই স্কুল-কলেজগামী ছাত্রীদের নানাভাবে উত্ত্যক্তসহ শারীরিকভাবে নির্যাতনের ঘটনা ঘটছে। এমনই একটি ঘটনায় মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও থানার অফিসার ইনচার্জ বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছে ভুক্তভোগি দুই শিক্ষার্থীর বাবা। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে দোষীদের শাস্তির দাবি জানিয়েছেন উপজেলার তেলজুড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির কয়েকজন অভিভাবক সদস্য। এদিকে, বখাটেদের উৎপাত বেড়ে যাওয়ায় অবিভাবকদের পাহারায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যেতে হচ্ছে ছাত্রীদের।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বোয়ালমারী উপজেলার শেখর ইউনিয়নের দূর্গাপুর গ্রামের মো. সাহেব আলী মৃধার দুই মেয়ে তেলজুড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম ও দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী। সোমবার (১২ সেপ্টেম্বর) স্কুল ছুটি শেষে বাড়ি ফিরছিলেন দুইবোন। এসময় একই ইউনিয়নের পূর্ব দূর্গাপুর গ্রামের আব্দুল মান্নান মোল্যার বখাটে ছেলে আল আমিন মোল্যা ও একই গ্রামের আব্দুল আলিমের ছেলে মো. আলাউদ্দিনসহ আরো কয়েকজন বখাটে ওই শিক্ষার্থীদের পথিমধ্যে গতিরোধ করে নানাভাবে উত্ত্যক্তসহ যৌন হয়রানির চেষ্টা চালায়। শিক্ষার্থী সম্পা খানম (১৩) উত্ত্যেক্তের প্রতিবাদ করলে বখাটেরা তাকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করে। ঘটনার সময় সম্পার বোন শিমলা খানম (১৭) এগিয়ে এলে তার উপরও হামলা চালায় বখাটেরা।

পরে ওই দুই শিক্ষার্থীর ডাক-চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে বখাটেরা সম্পা ও শিমলাকে ঘটনাটি কাউকে না বলার জন্য প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে পালিয়ে যায়।

তেলজুড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রী শিমলা খানম জানান, ইতোপূর্বে বখাটে আল-আমিন ও আলাউদ্দিন স্কুলগামী কয়েকজন ছাত্রীদের কুপ্রস্তাব দেওয়াসহ নানাভাবে উত্ত্যাক্ত করে আসছিল। তাদের অত্যাচারে অনেকেই অভিভাবক ছাড়া স্কুলে আসতে ভয়ে আসতে পারে না। তারা এখন নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে বলে দুই শিক্ষার্থী জানিয়েছেন।

এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও দোষীদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন তেলজুড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য মো. মোস্তফা, ইলিয়াস মোল্যা, জাহিদ খন্দকার, আজিজুল সরদার।

ছাত্রীদের উত্ত্যেক্তের লিখিত অভিযোগ পাওয়া বিষয়টি নিশ্চিত করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মোশারফ হোসাইন বলেন, অভিযোগ পেয়ে বিষয়টি নিয়ে পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে। এছাড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানের বিষয়টি নিয়ে কথা হয়েছে। স্কুল-কলেজে এ ধরণের ঘটনা ভবিষ্যতে যাতে না ঘটে সেজন্য সংর্শ্লিষ্ট এলাকায় নজরদারি বাড়ানো হয়েছে।

এব্যাপারে বোয়ালমারী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবু তাহের জানান, ভুক্তভোগীর বাবা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ জমা দিয়েছেন। বিষয়টি নিয়ে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন