🕓 সংবাদ শিরোনাম

ইডেন ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলা গ্রহণ করে তদন্তের নির্দেশ * ধর্ষণের ঘটনা আড়াল করতে কিশোরী হত্যা, এলাকাজুড়ে উত্তেজনা, আটক ২ * রাজধানীসহ ১০ বিভাগীয় শহরে গণসমাবেশ কর্মসূচির তারিখ ঘোষণা বিএনপির * একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধী খলিল সাভার থেকে গ্রেপ্তার * কন্যা দিবসে এক ঘণ্টার ব্যবধানে তিন সন্তানের জন্ম ,নাম পদ্মা-মেঘনা-যমুনা * পরকীয়া সন্দেহে স্ত্রীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা , পলাতক স্বামী * দালালদের নিয়ন্ত্রণে পাসপোর্ট অফিস, ‘বিশেষ সংকেত’ নিয়ে ভুক্তভোগীদের ক্ষোভ * মাঝপথে তরুণীকে বাইক থেকে নামিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে চালক আটক * কিশোর গ্যাংয়ের হামলায় মুমূর্ষু অবস্থায় হাসপাতালে এসএসসি পরীক্ষার্থী * প্রধানমন্ত্রী শুধু দেশের দূরদর্শী নেতা নন, সারা বিশ্বেও নন্দিত নেতা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী *

  • আজ বৃহস্পতিবার, ১৪ আশ্বিন, ১৪২৯ ৷ ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ৷

যেসব সেবা মিলবে দেশের প্রথম সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালে

বিএসএমএমইউ
❏ বুধবার, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২২ আপনার স্বাস্থ্য

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ বহুল প্রতীক্ষিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল উদ্বোধন করেছেন। কম খরচে বিশেষায়িত চিকিৎসা প্রদানের লক্ষে দেশে এই ধরনের হাসপাতাল এটাই প্রথম।

প্রধানমন্ত্রী তাঁর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি বিএসএমএমইউ’তে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

একনজরে বিএসএমএমইউ

স্পেশালাইজড হাসপাতালে যেসব সুব্যবস্থা থাকবে: স্পেশালাইজড হাসপাতালে যেসব সুব্যবস্থা থাকবে নিম্নে একনজরে তুলে ধরা হ’ল।
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালে ৯টি ফ্লোর ও ৩টি বেজন্ট থাকবে। যেখানে থাকছে IT Based Multi-disciplinary and Speciali“ed Healthcare Services। এই হাসপাতালটি সুসজ্জিত হবে প্রায় ৭৫০ বেড দিয়ে, যার মধ্যে থাকবে ১০০টি আইসিইউ বেড, ১০০টি ইমার্জেন্সি বেড এবং থাকবে সুবিশাল পার্কিং সুবিধা (প্রায় ২৫০টি)।

অত্যাধুনিক চিকিৎসা সেবা প্রদানের জন্য এ হাসপাতালকে প্রধানত ৫টি স্পেশালাইজড সেন্টারে ভাগ করা হয়েছে। যেখানে থাকবে Emergency Medical Center, Cardio and Cerebro-Vascular Center, Hepatobiliary and Liver Transplant Center, Kidney Diseases Center, Maternal and Child healthcare Center।

হাসপাতালটিতে রয়েছে ১১টি মড্যুলার অপারেশন থিয়েটার যেখানে উন্নত মানের সার্জারিসহ শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ প্রতিস্থাপন করা হবে।

এই সুপার-স্পেশালাইজড হাসপাতালে থাকবে ৬টি ভিভিআইপি/ ভিআইপি কেবিনসহ অন্যান্য আইসোলেটেড কেবিন, ওয়ার্ড, SICU, NICU, PICU, CCU Ges MICU। উন্নত এসব সেন্টার এবং ইউনিটে কাজের জন্য ব্যবহৃত হবে সব এডভ্যান্সড যন্ত্র ও অপারেটিং থিয়েটার টুলস যার গুণগত ব্যবহার নিশ্চিত হবে উন্নত প্রশিক্ষণের মাধ্যমে।
এই স্পেশালাইজড হাসপাতালটি পরিচালনার জন্য চিকিৎসকসহ প্রায় মোট ৬১০ (ছয়শত দশ) জন স্বাস্থ্য কর্মীকে উন্নত প্রশিক্ষণে প্রশিক্ষিত করে তোলা হবে। যা জাতির জন্য দক্ষ জনশক্তি হিসাবে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে।

হাসপাতালের প্রশিক্ষণ বিষয়টিকে দুইভাগে ভাগ করা হয়েছে। (১) ফরেইন ট্রেইনিং ইন কোরিয়া-১৪০ জন (চিকিৎসক ৮০ জন, নার্স ৩০, মেডিকেল টেকনিশিয়ান-১০ এবং প্রশাসন-২০ জন, (২) লোকাল ট্রেইনিং ইন বাংলাদেশ – ৪৮০ জন। হাসপাতালের সার্ভিস চালু হওয়ার পর স্থানীয় ৪৮০ জনকে বাংলাদেশে ইন-হাউজ ট্রেইনিং দেওয়ার জন্য দক্ষিণ কোরিয়া হতে মোট প্রায় ৫৬ জন (চিকিৎসক ১৮ জন, নার্স ১৮ জন, মেডিকেল টেকনিশিয়ান ৮ জন ও ম্যানেজার ১২ জন) কোরিয়ান বিশেষজ্ঞ বাংলাদেশে আসবেন এবং ট্রেইনিং সার্ভিস সরবরাহ করবেন।

এই স্পেশালাইজড হাসপাতালে সেবা নিতে এসে গ্রাহককে অন্য কোন জায়গায় যেতে হবে না। কারণ হাসপাতালের ভিতরেই থাকবে একটি কনভেনিয়েন্স শপ, ব্যাংকিং সুবিধা, ফার্মেসি, ৩৫০ সিট বিশিষ্ট উন্নত কিচেন যার আওতায় ৩টি ক্যাফেটেরিয়া থাকবে, ৯০ সিট বিশিষ্ট ডক্টরস ক্যাফেটেরিয়া, উন্নত লন্ড্রী হাউসসহ কার পার্কিংয়ের বিশাল সুবিধা। এখানে ১টি ভিভিআইপি এলিভেটর সহ ১৬টি এলিভেটর ও ১টি এসক্যালেটর, অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থাপনা, হিটিং, ভেনটিলেশন ও এয়ার কন্ডিশনিং সিস্টেম সিসিটিভি ক্যামেরার মাধ্যমে কেন্দ্রীয় কন্ট্রোল রুম থেকে ডিজিটাল পদ্ধতিতে নিয়ন্ত্রণ করা হবে।

ভিসি অধ্যাপক ডা. মো শারফুদ্দিন আহমেদ জানিয়েছেন, সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল চালু হওয়ার মাধ্যমে বাংলাদেশের স্বাস্থ্যসেবায় একটি নতুন যুগের সূচনা হবে।

তিনি জানান, রোগীরা দেশেই বিশ্বমানের চিকিৎসেবা পাবেন। চিকিৎসার প্রয়োজনে রোগীদের দেশের বাইরে যাওয়ার প্রয়োজন হবে না। দেশে চিকিৎসকদের জন্য অত্যাধুনিক পোস্ট গ্রাজুয়েট ট্রেনিংয়ের ব্যবস্থা, বায়োমেডিক্যাল রিসার্চ, জিন থেরাপি, রোবটিক সার্জারি এবং জনগণের জন্য উচ্চমানসম্পন্ন স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল নির্মাণ করা হয়েছে। সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালে হৃদরোগ, কিডনি, লিভার, গল ব্লাডার ও প্যানক্রিয়েটিক, অরগান ট্রান্সপ্লান্ট, নিউরোসার্জারিসহ বিভিন্ন জটিল রোগের বিশেষায়িত চিকিৎসার ব্যবস্থা বাংলাদেশে চিকিৎসাক্ষেত্রে একটি নতুন মাইলফলক হিসেবে চিহ্নিত হয়ে থাকবে।

জনগণের উন্নত চিকিৎসা সেবা নিশ্চিতকল্পে ২০১৬ সালের ২রা ফেব্রুয়ারি দেশের প্রথম সেন্টার ভিত্তিক সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল প্রকল্পটি জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটিতে (একনেক) অনুমোদিত হয় । ২০১৮ সালের ১৩ই সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন।

এ প্রকল্পের মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ১৫৬১১৮ দশমিক ২৩ লাখ টাকা। তার মধ্যে প্রকল্প সাহায্য ১০৪৭৩৩ দশমিক ৮৪ লাখ টাকা/১৩০,৯১৭,০০০ মার্কিন ডলার, বাংলাদেশ সরকারের অর্থায়ন ৩৩৮৮১ দশমিক ৩৫ লাখ টাকা এবং বিএসএমএমইউ’র নিজস্ব অর্থায়নে ১৭৫০৩ দশমিক শূন্য ৪ লাখ টাকা।

বাংলাদেশ সরকার ও কোরিয়া এক্সিম ব্যাংক (ইডিসিএফ, ইকোনোমিক ডেভেলপমেন্ট কো-অপারেশন ফান্ড) এর মধ্যে ২০১৫ সালের ১৯ই নভেম্বর প্রকল্পের ঋণচুক্তি সম্পাদিত হয়।

ঋণচুক্তির আওতায় সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে অনধিক ১৩০,৯১৭,০০০ ইউএস ডলার এর সমপরিমাণ অর্থ ০.০১% সরল-সুদে ঋণ সাহায্য বরাদ্দ হয়েছে যার গ্রেস পিরিয়ড ১৫ বছর এবং ঋণ পরিশোধের সময়কাল ৪০ (চল্লিশ) বছর। পরবর্তীতে পরামর্শক সেবা (Detailed Design & Medical Plan, Selection & Inspection of Medical Equipment, Construction Supervision, Education & Training)প্রদানের জন্য কোরিয়ান প্রতিষ্ঠান Eulji University and Eulji University Hospital ConsortiumI প্রকল্পের নির্মাণ কার্য (Construction of Works) এরজন্য Hyundai Development Compaû (HDC)এবং প্রকল্পের মেডিকেল ইকুইপমেন্ট ও হসপিটাল ইনফরমেশন সিস্টেম (HIS & Medical Equipment) সরবরাহকারী (পণ্য ক্রয়কারী) প্রতিষ্ঠান হিসেবে Samsung-Hyundai Consortium-কে হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন