🕓 সংবাদ শিরোনাম

চলতি সপ্তাহেই বাড়ছে বিদ্যুতের দাম * রবির ১৪ জনকে আসামি করে অভিনেত্রী সোহানা সাবার মামলা * ❏ অ্যাম্বুল্যান্সে উঠিয়ে নিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে আটক চালক * ইন্দোনেশিয়ায় ফুটবল মাঠে সংঘর্ষ, নিহত বেড়ে ১৭৫ * অনলাইনের আওতায় আসছে সরকারি টিএ-ডিএ বিল * টোল প্লাজায় থানার ওসি ও গাড়িচালকে কুপিয়ে মোবাইল-টাকা ছিনতাই ! * প্রবাসী ছদ্মবেশে যেভাবে বিমানবন্দরে প্রবাসীদের সর্বস্ব লুটে নিতেন অজ্ঞান পার্টি * সবজির হাটে নিয়ন্ত্রণ হারানো ট্রাক, নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৫ * রাতভর ফ্ল্যাটে আটকে কিশোরী ও শিশুকে দলবদ্ধ ধর্ষণ, আটক ৫ অভিযুক্ত * কুবিতে ছাত্রলীগের দু-পক্ষের প্রকাশ্যে অস্ত্রের মহড়া, হল বন্ধের ঘোষণা *

  • আজ রবিবার, ১৭ আশ্বিন, ১৪২৯ ৷ ২ অক্টোবর, ২০২২ ৷

নিরাপদ ক্যাম্পাসের দাবিতে ইবি উপাচার্য ও ছাত্রলীগের বৈঠক

University news
❏ বুধবার, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২২ শিক্ষাঙ্গন

ইবি প্রতিনিধি: ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার দাবিতে দফায় দফায় বিক্ষোভ ও উপাচার্য কার্যালয় ঘেরাও করে শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মী ও সাধারণ শিক্ষার্থীরা। একপর্যায়ে পরিস্থিতি বিবেচনায় উপাচার্যের সাথে বৈঠকে বসে শাখা ছাত্রলীগের শীর্ষস্থানীয় নেতারা।

বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) মধ্যরাতে আকস্মিক ভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আবাসিক হলে ককটেল বিস্ফরণের ঘটনা ঘটে। এসময় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল এবং লালন শাহ হলে ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের কক্ষ লক্ষ্য করে ১০-১২ টি ককটেল বিস্ফোরণ করা হয়। এই ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পরে হল দুটিতে থাকা শিক্ষার্থীদের মাঝে। পরে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনরের সাথে দফায় দফায় যোগাযোগ করেও তাদের সাড়া না পেয়ে বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠে শিক্ষার্থীরা। এমনকি সকাল পর্যন্ত প্রশাসনের কেউই অবস্থা পর্যবেক্ষণেও যায়নি অভিযোগ করেন অনেক শিক্ষার্থী।

এরই প্রতিবাদে বেলা ১২ টা থেকে বৃষ্টি উপেক্ষা করে শাখা ছাত্রলীগের বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। এসময় উপস্থিত ছিল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাত ও সাধারণ সম্পাদক নাসিম আহমেদ জয়ের নেতৃত্বে উপস্থিত ছিলেন সহ-সভাপতি আল মামুম, বনি আমিন, মুন্সী কামরুল হাসান অনিক, সুজন কুমার দে, রকিবুল ইসলাম সাংগঠনিক সম্পাদক সোহাগ শেখ সহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা।

মিছিল শেষে বিক্ষোভকারীরা উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আব্দুস সালামের সাথে নিরাপত্তা চেয়ে দেখা করতে গেলে উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আব্দুস সালাম বলেন, আমরা ইনডিভাইজুয়ালি নিরাপত্তা দিতে পারবোনা। কারণ আমাদের ও তো জীবনের মূল্য আছে। আমরা তো ঘটনাস্থলে প্রশাসনের সাহায্য ছাড়া যেতে পারিনা। আর্মি, পুলিশের সাহায্য ছাড়া আমরা কিভাবে নিরাপত্তা দেবো। বৃষ্টি আর গভীর রাতের ঘটনা হওয়ায় আমরা কেউ ঘটনা স্থলে যেতে পারিনি।

এসময় উপাচার্যের এসব কথা শুনে প্রশাসনের নিরাপত্তা প্রদানের ব্যাপারে বাকবিতণ্ডা হলে ভিসি অফিস ঘেরাও করে পুনরায় বিক্ষোভ মিছিল করে তারা। বিক্ষোভে শিবির নির্মূলসহ শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা ও প্রক্টরিয়াল বডিকে ক্যাম্পাস কোয়ার্টারে থাকার ব্যাপারে নিশ্চয়তা দিতে বলেন শিক্ষার্থীরা।

পরে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের মুখে উপাচার্য ছাত্রলীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকের সাথে ব্যক্তিগত ভাবে মিটিং করে ভিসি অফিস ত্যাগ করেন।

এ বিষয়ে প্রক্টর অধ্যাপক ড. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, সকালেই পুলিশ প্রশাসনকে জানানো হয়েছে। রেজিস্ট্রার মহোদয় লিখিত অভিযোগ জানিয়েছে। পুলিশ এখনো তাদের ইনভেস্টিগেশন করছে আমি জানি। তারা এবং আমাদের আইসিটি সেল একত্র হয়ে কাজ করেছে ঘটনা তদন্তে।

তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে যাওয়ার ব্যাপারে তিনি বলেন শিক্ষার্থীরা যেটা বলেছে সেটাও ঠিক আমাদের লোকরা যা বলেছে সেটাও ঠিক। দিনে হলে হয়তো সাথেসাথেই যাওয়া যেত। কিন্তু রাত তিনটায় তো কাউকে ফোন দিয়ে সাথে সাথে নাও পাওয়া যেতে পারে। শিক্ষার্থীদের আবেগের জায়গা একদম ঠিক। তারা আমাদের তাৎক্ষণিক ভাবে চাবেই। এতো রাতে হওয়ায় কেউই জেগে ছিলোনা।

ইবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জায়েদ বলেন, আমরা ঘটনাটি তদন্ত করছি এখনো। আশা করছি তদন্ত শেষ হলেই আমরা কারা ঘটনাটি ঘটিয়েছে তা জানতে পারব।

ঢাবি ছাত্রদলের ওপর হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ

❏ মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২২