• আজ রবিবার, ১৭ আশ্বিন, ১৪২৯ ৷ ২ অক্টোবর, ২০২২ ৷

জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করে নির্মাণকাজ করলেই ব্যবস্থা: মেয়র আতিক


❏ শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২২ জাতীয়

রাজু আহমেদ, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট: সিটি কর্পোরেশন এলাকায় কেউ নির্মাণ কাজ করতে গিয়ে সড়ক দখল করে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করলে সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষ সেটি চোখ বুজে বসে বসে দেখবে না। রাস্তায় নির্মাণ সামগ্রী ফেলে রেখে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করলে কোনো প্রতিষ্ঠানকেই ছাড় দেয়া হবেনা। তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শনিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) সকালে রাজধানীর মিরপুরে ডেঙ্গু বিরোধী সচেতনতামূলক প্রচার অভিযান শেষে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন ঢাকা উত্তর সিটির মেয়র আতিকুল ইসলাম।

এসময় মিরপুরের টোলারবাগের ২ নম্বর গেট সংলগ্ন মূল সড়ক দখল করে নির্মাণ সামগ্রী ফেলে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করার অভিযোগে অভিযান পরিচালনা করে ১৮ লক্ষ ৪৫ হাজার টাকার নির্মাণ সামগ্রী নিলামে বিক্রি করে দেন মেয়র।

অভিযান পরিচালনাকালে উপস্থিত সকল জনসাধারণের উদ্দেশ্যে তিনি আরো বলেন, আমরা যদি এই শহর তথা এ দেশকে ভালোবাসতাম- তাহলে নগরীর ব্যস্ততম মূল সড়কের অর্ধেকেরও বেশি দখল করে এভাবে ইট, বালু, সিমেন্ট, রডসহ এসকল নির্মাণ সামগ্রী রেখে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করতে পারতাম না। আমি রডগুলো দেখেছি। সেগুলো এতটাই ভারী; ফলে রাস্তার বিভিন্ন অংশ ভেঙ্গে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

এসকল সমস্যা নিরসনে সংশ্লিষ্ট সকল সরকারি দপ্তরগুলোকে বিশেষ নজরদারির আহ্বানও জানান মেয়র।

চলমান অভিযানে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের আওতাধীন কোন অফিস-আদালত কিংবা বাসা-বাড়িতে ডেঙ্গুর লার্ভা পাওয়া গেলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

এসময় উপস্থিত স্থানীয়দের উদ্দেশ্যে মেয়র আরো বলেন, কোনো অফিস আদালত কিংবা বাসাবাড়িতে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া গেলে সর্বোচ্চ দুই লক্ষ টাকা জরিমানার বিধান রয়েছে। অথচ একটু সচেতন হলে ২ লক্ষ টাকা জরিমানা না দিয়ে মাত্র ২০ টাকার কেরোসিন ছিটিয়েই এডিস মশার লার্ভা নিধন করা সম্ভব। আশা রাখছি আপনারাই সিদ্ধান্ত নিবেন, দুই লক্ষ টাকা জরিমানা দিবেন নাকি নিজ নিজ দায়িত্বে যার যার অফিস-আদালত, বাসাবাড়ির আঙ্গিনা পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রেখে ডেঙ্গুর বিস্তার রোধে আমাদেরকে সহযোগিতা করবেন।