• আজ সোমবার, ২০ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ ৷ ৫ ডিসেম্বর, ২০২২ ৷

জজ মিয়া নাটকের সাথে তুলনা করে নুসরাত হত্যাকান্ডের পুন:তদন্ত দাবী

Feni news
❏ রবিবার, অক্টোবর ২, ২০২২ চট্টগ্রাম

আবদুল্যাহ রিয়েল, ফেনী প্রতিনিধি: ফেনীর সোনাগাজীতে নুসরাত জাহান রাফি অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যুর ঘটনাকে জজ মিয়া নাটকের সাথে তুলনা করে মামলাটি পুন:তদন্তের দাবী জানিয়েছেন দন্ডিতদের স্বজনরা।

শনিবার বিকালে পৌর শহরের একটি রেষ্টুরেন্টে মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্তদের পরিবার সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। এসময় সাংবাদিকদের সামনে লিখিত বক্তব্য তুলে ধরেন মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আবসার উদ্দিনের স্ত্রী সুরাইয়া হোসেন।

তিনি বলেন, নুসরাতের দুর্ঘটনাজনিত মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্বার্থান্বেষি মহলের প্রচোরনায় আমাদের স্বজনদের মিড়িয়া ট্রায়াল ও প্রকৃত সত্য ইচ্ছেকৃত গোপন করে ফাঁসানো হয়েছে। ফাঁসানোর জন্য সিসিটিভি ফুটেজ ও এসএমএস গায়েব করা হয়েছে। রিমান্ডে অমানবিক শারীরিক নির্যাতন করে তাদের শিখানো মতো জবানবন্দি আদায়েরর পর জজ মিয়া নাটকের অবতারনা করে আমাদের নির্দোষ নিরাপরাধ স্বজনদের ফাঁসির দন্ডে দন্ডিত করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, নুসরাত অগ্নিদগ্ধ হওয়ার পর থেকে আমাদের কাছে দেশ ও বিদেশ থেকে বহু সাংবাদিকসহ প্রশাসনের লোক পরিচয় দিয়ে মোবাইলে এবং সরাসরি ঘটনার বিষয়ে জানতে চেয়েছে। আমরা প্রকৃত সব সত্য তাদের অবহিত করেছি। কিন্তু কেউ আমাদের বক্তব্য প্রচার না করে একতরফা সংবাদ পরিবেশন করে। এ সংবাদ সম্মেলনের মধ্য দিয়ে আমরা আপনাদের জানাতে চাই আমাদের হারানোর আর কিছু নেই। আমাদের প্রিয়জনেরা অন্ধকার সেলে ফাঁসির প্রহর গুনছে। দেওয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে তাই সত্য বলা ছাড়া কোন উপায় নেই। স্বজনদের মিথ্যা ফাঁসির দন্ড থেকে রক্ষা করতে আমরা নিজেরাই চেষ্টা করছি। কেউ আমাদের ইন্ধন দিচ্ছে এ ধরনের কথাবার্তা যারা বলছে তারা সত্যকে ভয় পাচ্ছে। কারণ সত্য কখনো গোপন থাকেনা মহান সৃষ্টিকর্তা যেকোন উপায়ে সেটা প্রকাশ করাবে। আমরা আমাদের স্বজনদের মিথ্যার বেড়াজাল থেকে বাঁচানোর চেষ্টা করছি তখনি নাটকবাজরা আমাদের হুমকি ধামকি দিয়ে কন্ঠরোধের চেষ্টা করছে। ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত স্বজনদের মতো আমাদেরকে মামলায় ফাঁসানোর চেষ্টা করছে।

আমরা আবারও বলছি আমাদের স্বজনরা সম্পুন্ন নির্দোষ।তাদের নির্যাতন করে স্বীকারোক্তি আদায়ের পর তড়িগড়ি বিচার প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ফাসির দন্ড প্রদান করা হয়েছে।আমরা চাই ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত হোক।

এসময় তারা বিচার বিভাগীয় তদন্তের মাধ্যমে ঘটনার প্রকৃত সত্য উদঘাটনের ব্যবস্থা করার জন্য প্রধানমন্ত্রী ও প্রধান বিচারপতির নিকট আকুল আবেদন জানিয়ে বলেন ,তদন্ত সংস্থা পিবিআই প্রকৃত সত্য আড়াল করে মিথ্যা নাটক তৈরী করেছে। ভিকটিম পরিবার মানুষের আবেগের অপব্যবহার করে কোটিপতি হয়েছে। তারা ঘটনার প্রকৃত বিচার চাইনি, তারা চেয়েছে নিজেদের আখের গোচাতে। তাদের হুমকি ধামকিতে আমরা মোটেই ভীত না। মাননীয় প্রধানমমন্ত্রী পিবিআই নিজেদের জাহির করার জন্য জজ মিয়া নাটকের মতো একটি কল্পিত নাটক তৈরীর পর মিডিয়া ট্রায়াল করে আমাদের স্বজনদের ফাঁসিয়েছে। পিবিআই আমাদের স্বজনদের জান ও আমাদের সামান্য সস্পদ কেড়ে নিয়েছে। আপনি আপনার স্বজনদের হারিয়েছেন তাই স্বজন হারানোর ব্যাথা আপনি বুঝবেন। আপনার কাছে করুন মিনতি করছি নুসরাতের দুর্ঘটনাজনিত মৃত্যুর ঘটনাটি পুনরায় তদন্তের ব্যবস্থা করুন।

সংবাদ সম্মেলনে মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত ১৬ আসামীর মধ্যে ১৪ জনের পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত থেকে সুরাইয়া হোসেনের বক্তব্যের সাথে একমত পোষন করে বলেন, আমরা আমাদের স্বজনদের মিথ্যা মামলা থেকে মুক্তির জন্য নিয়মতান্ত্রিক ও আইনি প্রতিবাদ অব্যহত রাখবো। পুন:তদন্তের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও প্রধান বিচারপতি বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করবো। আপনারা সাংবাদিকরা আমাদের বক্তব্যগুলো কলমের মাধ্যমে জাতীর কাছে তুলে ধরবেন। আপনারাই পারেন প্রকৃত সত্য উদঘাাটন করতে।