🕓 সংবাদ শিরোনাম

নীলফামারীতে ধর্ষণ মামলায় প্রধান শিক্ষক জেল হাজতে * দরিদ্র মানুষ না খেয়ে মরবে না: পরিকল্পনা মন্ত্রী * চট্টগ্রামে প্রধানমন্ত্রীর উপহার, ২৯ প্রকল্প ও ৪ ভিত্তিপ্রস্তর * মিরাজের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশের অবিশ্বাস্য জয় * ফুলবাড়ীতে গাঁজাসহ এক নারী গ্রেফতার * সৌদিতে পাচারকালে ২৪ লাখ ইয়াবা আটক * ভালুকা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হিসেবে আলোচনার শীর্ষে জামাল * দুই বছর আগে হস্তান্তর হওয়া মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতিস্তম্ভ অযত্নে অবহেলায় পরিত্যক্ত প্রায় * ফরিদপুর মেডিকেল হাসপাতালে বাড়ছে চুরি-ছিনতাই, নিরব হাসপাতাল প্রশাসন * নীলফামারীতে ট্রাকের ধাক্কায় ও ট্রেনে কাটা পড়ে শিক্ষার্থীসহ নিহত ২ *

  • আজ রবিবার, ১৯ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ ৷ ৪ ডিসেম্বর, ২০২২ ৷

কখন নামতে হবে, নির্দেশের অপেক্ষায় আছি: শামীম ওসমান


❏ রবিবার, অক্টোবর ২৩, ২০২২ ঢাকা, দেশের খবর

সুমন আল হাসান, নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি: আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতা, নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য এ কে এম শামীম ওসমান বলেছেন, কখন নামতে হবে আমাদের নির্দেশ দেবেন। নারায়ণগঞ্জবাসী আপনাদের নির্দেশের অপেক্ষায় আছে।

তিনি বলেন, আকাশে শকুন উড়ছে, মানচিত্রে থাবা দেবে। আমরা প্রমাণ করতে চাই নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগের ঘাঁটি ছিল, আছে এবং থাকবে।

রোববার (২৩ অক্টোবর) বিকেলে নারায়ণগঞ্জের ওসমানী স্টেডিয়ামে জেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

শামীম ওসমান বলেন, কেন্দ্রীয় নেতাদের একটা কথা বলতে চাই—আমার চাওয়া পাওয়ার কিছু নেই। আমি নারায়ণগঞ্জের সাধারণ মানুষ হিসেবে বলতে চাই—জাতির পিতার কন্যা শেখ হাসিনা ও ওবায়দুল কাদের ভাই, নারায়ণগঞ্জের যত উন্নয়ন তার বেশির ভাগেরই দাবিদার তারা। শেখ হাসিনা বলেছেন, বায়তুল আমান ছিল আওয়ামী লীগের ঘাঁটি।

আমার বাবা ও ভাইয়ের অবদানের কথাও তিনি বলেছেন। আমার আর চাওয়া-পাওয়ার কিছু নেই। একটা জিনিস খারাপ লেগেছে। তিনি বলেছেন, নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগের ঘাঁটি ছিল।

মানুষ তৃণমূলের নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন চায়। চন্দন শীল চেয়ারম্যান হওয়ায় সকলে খুশি হয়েছেন। কারণ তিনি তৃণমূলের কর্মী। গত কমিটিতে এমন লোকও ছিল যাদের আমি নিজেও চিনি না। শকুনরা মানচিত্রে থাবা দেবে। তাই শেখ হাসিনাকে শক্তিশালী করতে তৃণমূলের ত্যাগী নেতাদের দিয়ে কমিটি গঠন করতে হবে, বলেন শামীম ওসমান।

সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত আছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত আছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কামরুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট কাজী নজিবুল্লাহ হিরু, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মেহের আফরোজ চুমকি, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, কার্যকরী পরিষদের সদস্য অ্যাডভোকেট রিয়াজুল কবির কাওছার, আনোয়ার হোসেন, সাহাবউদ্দিন ফরাজী, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এ কে এম শামীম ওসমান, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী, ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু।

সম্মেলনের উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক। সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাই ও সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত শহিদ বাদল।