মহাসড়কের ওপর গাড়ি রেখে দুর্ভোগ সৃষ্টি: প্রতিবাদ করে বিপাকে শিল্প উদ্যোক্তা!

Gazipur news
❏ শুক্রবার, অক্টোবর ২৮, ২০২২ ঢাকা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, সময়ের কণ্ঠস্বর: মহাসড়কের ওপর গাড়ি দাঁড় করিয়ে দিব্যি বসে আছে ড্রাইভার। পিছুনে একের পর এক যানবাহন আটকে সৃষ্টি হয়েছে যানজট। আটকে থাকা মোটরসাইকেল আরোহী এক শিল্প উদ্যোক্তা প্রতিবাদ করায় তার সঙ্গে প্রথমে তর্ক-বিতর্ক,পরে গাড়ি চাপা দিয়ে হত্যা চেষ্টা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

এই ঘটনায় স্থানীয় পরিবহন ব্যবসায়ীরাও তাৎক্ষণিক চটেছেন মো.সোহেল রানা নামে ওই ভুক্তভোগীর উপর। বুধবার(২৬ অক্টোবর) সকালে গাজীপুরের মৌচাক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে থানায় করা সাধারণ ডাইরি থেকে জানা গেছে। ভুক্তভোগী সোহেল রানা সাদমা গ্রুপ লিমিটেড এর পরিচালক ও মৌচাক ইউনিয়ন পরিষদের প্রয়াত চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমানের ছেলে।

জিডি সূত্রে(কালিয়াকৈর থানা) জানা যায়,রাজধানীর উত্তরা থেকে গাজীপুরের কর্মস্থলে যাওয়ার পথে সাদমা গ্রুপের পরিচালক সোহেল রানার পিছু নেয় একটি প্রাইভেটকার।

মৌচাক বাস স্ট্যান্ড পার হওয়ার সময় পিছন দিক থেকে ভুক্তভোগী সোহেল রানার মোটরবাইক লক্ষ করে ধাক্কা দিলে দূরে ছিটকে পড়েন তিনি। বহনকারী মোটরসাইকেলটি ছিটকে গিয়ে একটি গাড়িতে লাগে। এতে ওই গাড়িটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। পরে দৌড়ে গিয়ে পরিবহন ব্যবসায়ী মাসুদ পারভেজের উপস্থিতিতে ভুক্তভোগীর উপর হামলা চালানো হয়। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় হাতে আঘাতপ্রাপ্ত সোহেল রানা ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।

এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক দোকানী বলেছেন,মৌচাক এলাকায় পরিবহনে দীর্ঘদিন ধরে চাঁদাবাজি করে আসছে একটি চক্র। আর এই কারণে অনেক সময় রাস্তার ওপর গাড়ি থামিয়ে চাঁদা আদায়সহ যাত্রী উঠা-নামানো করা হয়।

সালনা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আতিকুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি মীমাংসার দায়িত্ব নিয়েছেন স্থানীয় চেয়ারম্যান। মহাসড়কের উপর যত্রতত্র পার্কিং, রাস্তার ওপর দাঁড়িয়ে থাকা গাড়ির বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মৌচাকে প্রতিদিনই রাস্তার ওপর দাঁড়িয়ে থাকা গাড়ি রেকার করা হচ্ছে। নজরদারি আরো বাড়ানো হবে।