• আজ বুধবার, ২২ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ ৷ ৭ ডিসেম্বর, ২০২২ ৷

রুদ্ধশ্বাস জয়ে সেমির আশা বাঁচিয়ে রাখল টাইগাররা


❏ রবিবার, অক্টোবর ৩০, ২০২২ প্রধান খবর

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সুপার টুয়েলভের ম্যাচে জিম্বাবুয়ের মুখোমুখি বাংলাদেশ। নানা নাটকীয়তার পর বাংলাদেশের জয়ের দেখা মিললো। ৩ রানের ব্যবধানে জিতেছে টাইগাররা।

একসময় মনে হয়েছিল, জয় সময়ের অপেক্ষা মাত্র। ৩৫ রানেই যে ৪ উইকেট হারিয়ে বসে জিম্বাবুয়ে। কিন্তু মাঝের সময়ে শন উইলিয়ামসের দৃঢ়তায় বাড়তে থাকে আফ্রিকার দেশটির আশা। শেষে মঞ্চায়িত হয় রোমাঞ্চকর সব মুহূর্ত। উত্তেজনায় ঢেউ তোলা ব্রিসবেনের সেই শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে শেষ পর্যন্ত জয়ের হাসি বাংলাদেশের।

বাংলাদেশের ১৫০ রান তাড়া করে জিম্বাবুয়ে আটকে যায় ১৪৭ রান। এ রান সংগ্রহে ৮ উইকেট হারিয়ে খরচ করে পুরো ২০ ওভার।

এদিন বাংলাদেশের দেয়া ১৫১ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের প্রথম ওভারেই ধাক্কা খায় জিম্বাবুয়ে। ওভারের তৃতীয় বলেই তাসকিন আহমেদ তুলে নেন ওয়েসলি মাধেভেরের উইকেট।

ইনিংসের তৃতীয় ওভারে ফের আঘাত হানেন তাসকিন। এবার তার শিকার বনে ৭ বলে ৮ রান করে মাঠ ছাড়তে হয় অধিনায়ক ক্রেইগ এরভিনকে।

ষষ্ঠ ওভারে ব্যাক টু ব্যাক আঘাত হানেন মুস্তাফিজুর রহমান। বিপজ্জনক হয়ে ওঠার আগেই ফিজের শিকার বনে মাঠ ছাড়তে হয় মিল্টন শুম্বা ও সিকান্দার রাজাকে।

সাকিবের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে মাঠ ছাড়ার আগে শুম্বা করেন ৮ রান। আর আফিফের হাতে ধরা দিয়ে রাজা মাঠ ছাড়েন রানের খাতা খোলার আগেই। আর তাতেই ৩৫ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বসে রোডেশীয়রা।

পরে দলকে এগিয়ে নেয়ার গুরুভার কাঁধে তুলে নেন শন উইলিয়ামস ও রেগিস চাকাভা। এই দুই দায়িত্বশীল ব্যাটার শক্ত হাতে টেনে ধরেন উইকেট পতনের লাগাম। সেই সুবাদে ১০ ওভারে আর কোনো উইকেট না হারিয়ে স্কোরবোর্ডে ৬৫ রান তোলে জিম্বাবুয়ে।

থিতু হয়ে বসা এ জুটি দ্বাদশ ওভারেই ভাঙেন তাসকিন। চাকাভাকে ফিরিয়ে আনেন ব্রেক থ্রু। উইকেটের পেছনে ধরা দিয়ে মাঠ ছাড়ার আগে রোডেশীয় এ ব্যাটারের ব্যাট থেকে আসে ১৫ রান।

তাসকিন ৪ ওভারে ১ মেডেনে ১৯ রান দিয়ে ৩ উইকেট নিয়ে হয়েছেন ম্যাচসেরা। দুটি করে পান মোস্তাফিজ ও মোসাদ্দেক।

এই জয়ে তিন ম্যাচ শেষে সুপার টুয়েলভের গ্রুপ-২ এ দ্বিতীয় স্থানে উঠে গেছে বাংলাদেশ। ভারতের চেয়ে এক ম্যাচ বেশি খেলে সমান ৪ পয়েন্ট তাদের।