• আজ রবিবার, ১৯ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ ৷ ৪ ডিসেম্বর, ২০২২ ৷

রামুতে দুই ভাইকে অ্যাসিড নিক্ষেপ, পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা


❏ সোমবার, অক্টোবর ৩১, ২০২২ চট্টগ্রাম

কক্সবাজার: কক্সবাজারের রামুতে দুই ভাইকে অ্যাসিড নিক্ষেপের ঘটনার পাঁচদিন পর পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগে (সিআইডি) কর্মরত কনস্টেবল নিখিল বড়ুয়াকে অভিযুক্ত করে থানায় মামলা হয়েছে।

অ্যাসিড সন্ত্রাসের শিকার টিপু বড়ুয়ার মা প্রকৃতা বড়ুয়া বাদী হয়ে অ্যাসিড অপরাধ দমন আইনে রামু থানায় শুক্রবার (২৮ অক্টোবর) মামলাটি করেন।

মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে রামু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ আনোয়ারুল হোসাইন জানান, ২০০২ সালের অ্যাসিড অপরাধ দমন আইনের ৫ (খ)/৭ ধারায় শুক্রবার রাতেই মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। এ মামলায় কনস্টেবল নিখিল বড়ুয়াকে এজাহারভুক্ত এবং অজ্ঞাত আরও ৩/৪ জনকে আসামি করা হয়েছে।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে,গত মঙ্গলবার (২৫ অক্টোবর) রাত ১০ টার দিকে টিপু বড়ুয়া তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে চাচাতো ভাই দিপক বড়ুয়াকে নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। পথে চৌমুহনী ভিক্টর প্লাজার বিপরীতে জাহেদ হোসেন মার্কেটের সামনে নিখিল বড়ুয়া ও অজ্ঞাত আরও ৩-৪ জন লোক তাদের লক্ষ্য করে অ্যাসিড নিক্ষেপ করে দ্রুত পালিয়ে যান। এতে ভুক্তভোগী দুজনের শরীরের বিভিন্ন অংশ ঝলসে যায়।

একইভাবে গত ১৭ সেপ্টেম্বর রাতে বাড়ি ফেরার পথে পুলিশ সদস্য নিখিল বড়ুয়া তার ভাড়াটিয়া অজ্ঞাত লোকজন দিয়ে ভুক্তভোগীদের ওপর হামলা চালান। এতে তারা মারাত্মকভাবে আহত হন। এ হামলার পর ভুক্তভোগীরা মারা না যাওয়ায় পরে তাদের লক্ষ্য করে এসিড নিক্ষেপ করা হয়।

ভুক্তভোগী টিপু বড়ুয়া রামুর ফতেখাঁরকুল ইউনিয়নের দ্বীপ শ্রীকুল গ্রামের নিরধন বড়ুয়ার ছেলে ও দীপক বড়ুয়া একই গ্রামের সুবধন বড়ুয়ার ছেলে। আর অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য নিখিল বড়ুয়া অ্যাসিড হামলার শিকার টিপু বড়ুয়ার ভগ্নিপতি। তিনি রামু উপজেলার ফতেখাঁরকুল ইউনিয়নের ২নম্বর ওয়ার্ডের হাজারীকুল গ্রামের মৃত সীতানাত বড়ুয়ার ছেলে। সিআইডি সদস্য নিখিল বড়ুয়াকে সম্প্রতি কুমিল্লায় বদলি করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

এদিকে অ্যাসিড নিক্ষেপের ঘটনায় ভুক্তভোগীদের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার হলে এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয় এবং চারদিকে নিন্দার ঝড় ওঠে।

এছাড়াও গত শনিবার (২৯ অক্টোবর) বিকেলে রামু চৌমুহনী স্টেশনে এ ঘটনার প্রতিবাদে এবং ঘটনার সঙ্গে জড়িত পুলিশ সদস্য নিখিল বড়ুয়াসহ জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে এসএসসি ২০০৫ ব্যাচের শিক্ষার্থীরা। এ প্রতিবাদে সংহতি প্রকাশ প্রকাশ করে রামু প্রেসক্লাব, রামু উপজেলা ছাত্রলীগ, রামু চৌমুহনী বণিক সমিতিসহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন।