• আজ বুধবার, ২২ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ ৷ ৭ ডিসেম্বর, ২০২২ ৷

সাতক্ষীরার কালিগঞ্জে কাঁদাযুক্ত বালি দিয়ে রাস্তা ভরাট করছেন এক ঠিকাদার!

Shatkhira news
❏ মঙ্গলবার, নভেম্বর ১, ২০২২ খুলনা

জাহিদ হোসাইন, সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: অবৈধ ড্রেজার মেশিন দিয়ে পুকুর থেকে কাঁদামাটি যুক্ত বালি তুলে রাস্তা ভরাটের কাজে ব্যবহার করছেন ঠিকাদার। কালিগঞ্জে উপজেলার দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়নের খেজুরতলা মাছের সেটের সামনে থেকে ঘোজাডাঙ্গা প্রাইমারি স্কুল পর্যন্ত ১ কিলো ৮০০ মিটার রাস্তার কাজের ভরাট কাজ বর্তমানে চলমান রয়েছে। অধিক লাভের আশায় প্রভাব খাটিয়ে পুকুর থেকে ড্রেজার মেশিন দিয়ে মাটিযুক্ত বালি তুলে রাস্তা কাজে ব্যবহার করছেন ঠিকাদার আনু মাস্টার।

সরেজমিনে গেলে স্থানীয়রা জানান, ঠিকাদার আনু মাস্টার বালি তোলার জন্য প্রধান হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছেন দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আফছার উদ্দিনের আপন ভাগ্নেকে। মামার প্রভাব খাটিয়ে টাকার বিনিময়ে অবৈধভাবে বালি উত্তোলনের কাজে ঠিকাদারকে সহযোগিতা করছেন আনিছুর রহমান ময়না। তবে ১ কিলো ৮০০ মিটার রাস্তার কাজে দীর্ঘ দিন ধরে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালি উত্তোলন করলেও প্রশাসনের ভূমিকা নীরব বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি জানান, মামার নাম ভাঙিয়ে এলাকায় শত শত অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছেন ময়না। তার আত্মীয়রা বিভিন্ন দপ্তরে চাকুরি করেন এমন প্রভাব খাটিয়ে ড্রেজার মেশিন দিয়ে অবৈধভাবে বালি তুলছেন। তাকে কিছু করার মতো ক্ষমতা কারো নেই বলে এলাকায় আস্ফালনও করছেন তিনি।

স্থানীয় কয়েকজন জানান, কাঁদামাটি যুক্ত বালি দিয়ে ময়না রাস্তা ভরাট করছেন। বিষয়টি একাধিকবার উপজেলা ইঞ্জিনিয়ারকে জানালেও কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি। মোটা অংকের টাকা হয়তো উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার ও সহকারী ইঞ্জিনিয়ার পেয়েছেন তা নাহলে তারা ব্যবস্থা গ্রহণ করতেন।

এবিষয়ে ময়নার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ঠিকাদারের কাছে সে ১০ টাকা ফুটে বালি বিক্রি করছেন। পুকুর থেকে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালি তোলার বিষয়ে বলেন, কিছু দিন আগে একটি ঘের থেকে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালি উটিয়ে পুকুর ভরাট করে রেখেছেন। ওই বালি এখন ড্রেজার মেশিন দিয়ে রাস্তা ভরাটের কাজের জন্য ঠিকাদারের কাছে বিক্রি করছেন। সংশ্লিষ্ট রাস্তার ঠিকাদার আনু মাস্টারের মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

এ বিষয়ে কালিগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলী জাকির হোসেন বলেন, ওই রাস্তার দায়িত্বে আছেন সহকারী প্রকৌশলী মাছুদ রানা। তিনি বিস্তারিত জানাতে পারবেন।

বিষয়টি সম্পর্কে উপজেলা এলজিইডি অফিসের সহকারী প্রকৌশলী মাছুদ রানা বলেন, খেজুরতলা সেট থেকে ঘোজাডাঙ্গা প্রাইমারি স্কুল পর্যন্ত ১ কিলো ৮০০ মিটার রাস্তার কাজ হচ্ছে। তবে রাস্তায় কাঁদা যুক্ত বালি ও ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালি উত্তোলনের বিষয়টি আমার জানা নেই।

কালিগঞ্জ উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা রহিমা পারভীন বুশরার মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল দিলেও তিনি রিসিভ না করায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।