ফরিদপুরে সাজেদাপুত্রের বিরুদ্ধে করা মামলা তুলে নিলেন মেয়র


❏ বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ৩, ২০২২ ঢাকা

হারুন-অর-রশীদ, ফরিদপুর প্রতিনিধি: ফরিদপুর-২ আসনের সদ্য প্রয়াত সংসদ সদস্য সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর কনিষ্ঠ পুত্র ও একই আসনে উপ-নির্বাচনে আ’লীগের মনোনীত প্রার্থী শাহাদাব আকবর চৌধুরী লাবুর বিরুদ্ধে করা হত্যা চেষ্টা মামলা তুলে নিলেন নগরকান্দা পৌর মেয়র নিমাই চন্দ্র সরকার।

বৃহস্পতিবার (০৩ নভেম্বর) সন্ধ্যায় মেয়রের ভাই লিটন চন্দ্র সরকার মামলা প্রত্যাহারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, মঙ্গলবার (০১ নভেম্বর) মামলাটি ফরিদপুরের আদালত তুলে নেওয়া হয়েছে।

এব্যাপারে মন্তব্য জানতে মেয়র নিমাই চন্দ্র সরকারের মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

তবে এব্যাপারে নিমাই চন্দ্র সরকারের ছেলে সৌরভ সরকার বলেন, বাবা (নিমাই চন্দ্র সরকার) গত মঙ্গলবার সকাল ১১ টার দিকে ফরিদপুরের আদালত থেকে দায়েরকৃত মামলাটি প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। এর বেশি কিছু বলতে পারেননি তিনি।

এব্যাপারে ফরিদপুর কোর্ট পরিদর্শক আবুল খায়ের বলেন, মঙ্গলবার (০১) নভেম্বর মেয়র নিমাই চন্দ্র সরকার মামলাটি প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। তবে, আগামী ০৯ নভেম্বর এ সংক্রান্ত আদেশ দিবেন আদালত।

উল্লেখ্য, হত্যার ষড়যন্ত্রের অভিযোগ এনে গত মাসের ২৬ অক্টোবর ফরিদপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট-৪ নং আমলি আদালতে ফরিদপুর-২ আসনের উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের এমপি প্রার্থী শাহদাব আকবর চৌধুরী লাবুর নামে একটি মামলা করেন নগরকান্দা পৌরসভার মেয়র নিমাই চন্দ্র সরকার। শাহদাব আকবর চৌধুরী লাবু একই আসনের সাবেক এমপি এবং জাতীয় সংসদের উপনেতা প্রয়াত সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর ছোট ছেলে।

এ মামলায় মোহাম্মদ লিয়াকত মিয়া, মোহাম্মদ নাসির মাহমুদ ও মো. শহিদুল ফকিরকেও আসামী করা হয়। তাদের সবার বাড়ি নগরকান্দা ও সালথা উপজেলায়। পরবর্তী গত মঙ্গলবার (০১ নভেম্বর) ফরিদপুরের আদালত থেকে মেয়র নিমাই চন্দ্র সরকার নিজেই মামলাটি প্রত্যাহার করে নিলেন।

গত মাসের ২৬ অক্টোবর একাধিক পত্রিকায় সংবাদটি প্রকাশিত হয়।