• আজ বুধবার, ২২ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ ৷ ৭ ডিসেম্বর, ২০২২ ৷

তত্ত্বাবধায়ক সরকার বাংলাদেশের মাটিতে আসবে না: কামরুল ইসলাম

Keranigonj news
❏ রবিবার, নভেম্বর ৬, ২০২২ ঢাকা

মাসুম পারভেজ, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট: আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেছেন, নির্বাচনকে সামনে রেখে একটি দল সরকারের বিরুদ্ধে উস্কানি দিচ্ছে। নির্বাচন হবে নির্বাচন কমিশনের অধীনে। নির্বাচন ছাড়া অন্য কোনো পথে ক্ষমতা হস্তান্তর সম্ভব না। তত্ত্বাবধায়ক সরকার কোনো অবস্থাতেই বাংলাদেশের মাটিতে আসবে না।

শনিবার (৫ নভেম্বর) সকালে রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরের বিভিন্ন-শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সরকারের পক্ষ থেকে নগদ অর্থ প্রদান অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেন, আন্দোলনের নামে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করছে বিএনপি। শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে সরকার বাধা দেবে না। তবে কেউ অরাজকতা করলে তা মেনে নেয়া হবে না। যারা সন্ত্রাস করে তাদের কোনো অবস্থাতেই বাংলাদেশের মাটিতে প্রতিষ্ঠিত হতে দেয়া হবে না। দেশের বর্তমান সংকট নিয়ে রাজনীতি করছে একটি শ্রেণি। অসাধু ব্যবসায়ীদের বিষয়ে সচেতন থাকতে হবে। মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে ব্যবসা করছে একটি গোষ্ঠী। তারা বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। তিনি বলেন, সবক্ষেত্রে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল। সরকার কোভিড মোকাবিলায় সক্ষম হয়েছে। বর্তমান পরিস্থিতিতে মানুষ কষ্ট আছে বিশ্ব সংকটের কারণে। দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির কারণে সংকটে পড়েছে দেশ।

ইসলামের জন্য বর্তমান সরকার যত কাজ করেছে অতীতের কোনো সরকার এটা করেনি। মসজিদভিত্তিক মক্তব চালু করেছে সরকার। সন্তানদের প্রাথমিক ধর্মীয় শিক্ষার ওপর জোর দিতে অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

কামরুল ইসলাম বলেন, বর্তমান সরকারের নেতৃত্বে বছরের প্রথম দিন স্কুলে শিক্ষার্থীরা নতুন বই বিনামূল্যে পায়। শিক্ষার্থীরা যাতে বিপথগামী না হয় সেজন্য ভাতা চালু আছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে ভবিষ্যতেও অনুদান কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে।

এর আগে কামরাঙ্গীরচরের সাতটি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চারটি এমপিওভুক্ত উচ্চ বিদ্যালয়, একটি কলেজ ও ১৬টি মাদ্রাসায় প্রায় ৬০ লাখ টাকা দেয়া হয়। এ সময়ে কামরাঙ্গীরচর থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আবুল হোসেন সরদারের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন সাবেক সাধারন সম্পাদক সোলায়মান মাদবর, জামিয়া নূরিয়া মাদ্রাসার মোহাতামিম মাওলানা মো. ক্বারী আতাউল্লাহ হাফেজ্জী, ওয়ার্ড কাউন্সিলর নূরে-আলম চৌধুরী, মোহাম্মদ হোসেন, সাইদুল ইসলাম মাদবর সহ স্থানীয় নেতৃত্ববৃন্দ ও শিক্ষক প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।