বিক্ষুব্ধ ছাত্রলীগের পদবঞ্চিতরা, বগুড়া জেলা আ. লীগ কার্যালয়ে তালা


❏ মঙ্গলবার, নভেম্বর ৮, ২০২২ রাজশাহী

বগুড়া প্রতি‌নি‌ধি: বগুড়া জেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণার পর থেকেই বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে সংগঠনের নেতাকর্মীরা। বিক্ষুব্ধরা বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়েছে। এসময় দলীয় কার্যালয়ের সামনে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করার পর শহরে বিক্ষোভ মিছিলও করেছে। সোমবার (৭ নভেম্বর) রাত ৯টার পর থেকেই দলীয় কার্যালয়ের সামনে সমবেত হয়ে ছাত্রলীগের পদবঞ্চিত, বর্তমান ও সাবেক নেতারা বিক্ষোভ শুরু করে।

দলীয় সূত্র জানায়, চলতি বছরের ২২ জানুয়ারি বগুড়া জেলা ছাত্রলীগের মেয়াদ উত্তীর্ণ কমিটি বিলুপ্ত করা হয়। এরপর গত ৭ ফেব্রুয়ারি ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ বগুড়ায় আসেন। তারা নতুন কমিটিতে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হতে আগ্রহী ৫৬ জনের জীবন বৃত্তান্ত জমা নেন। এরপর দীর্ঘদিনেও ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা করা হচ্ছিল না।

শেষে সোমবার রাত পৌনে ৯টার দিকে কমিটির ঘোষণা দেওয়া হয়। সেখানে সজীব সাহাকে সভাপতি ও আল মাহিদুল ইসলাম জয়কে সাধারণ সম্পাদক করা হয়। পদপ্রত্যাশীদের মধ্যে সহ-সভাপতি পদে ১৭ জন, যুগ্ম সম্পাদক পদে ৫ জন ও সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ৬ জনের নাম ঘোষণা করা হয়।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এই কমিটির তালিকা প্রকাশের পর থেকেই ক্ষোভ প্রকাশ শুরু করেন পদপ্রত্যাশী নেতারা।

পদবঞ্চিতদের অভিযোগ যাদের বগুড়ার কেউ চেনে না তাদেরকেই কমিটিতে গুরুত্বপূর্ণ স্থান দেওয়া হয়েছে। তারা এই কমিটিকে অবৈধ ঘোষণা করে বাতিলের দাবিতে দলীয় কার্যালয়ে এসে তালা ঝুলিয়ে দেন। এরপর বিক্ষোভ মিছিল এবং দলীয় কার্যালয়ের সামনে টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন তারা।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ঘোষিত কমিটির সহসভাপতি সিদ্ধার্থ কুমার দাস, মুকুল ইসলাম, গাবতলী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল গফুর বিপ্লব, শাজাহানপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রাকিবুল ইসলাম রঞ্জু, সরকারি শাহ সুলতান কলেজ কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাব্বী স্বাধীন, শহর ছাত্রলীগের সভাপতি ওবায়দুল্লাহ সরকার স্বাধীনসহ অসংখ্য নেতাকর্মী।

দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশে তারা বলেন, নতুন কমিটিতে পরিক্ষিত ও ত্যাগী নেতাদের মূল্যায়ন করা হয়নি। সাধারণ সম্পাদক আল মাহিদুল ইসলাম জয় কোনোদিনও জেলার রাজনীতিতে সক্রিয় ছিল না। এছাড়া এমন একজনকে সভাপতি করা হয়েছে যিনি ওই পদের যোগ্য না। তারা অবিলম্বে এই কমিটি বাতিলের দাবি করেন।

আগের সংবাদ – 

বগুড়া জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সজীব, সম্পাদক জয়