• আজ শনিবার, ১৮ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ ৷ ৩ ডিসেম্বর, ২০২২ ৷

ঢাকায় বিএনপির সমাবেশে জনদুর্ভোগ হলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ব্যবস্থা নেবে


❏ মঙ্গলবার, নভেম্বর ৮, ২০২২ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল জানিয়েছেন, ঢাকায় আগামী ডিসেম্বরে সমাবেশে বিএনপি লাখ লাখ লোক জড়ো করার যে ঘোষণা দিয়েছে তাতে জনদুর্ভোগ হলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ব্যবস্থা নেবে।

মঙ্গলবার (৮ নভেম্বর) দুপুরে কাকরাইলের ইনিস্টিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স, বাংলাদেশ (আইডিইবি) এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এমন হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

বিএনপি তাদের কর্মসূচির অংশ হিসেবে প্রতিটি বিভাগে সমাবেশ করছে। তারই ধারাবাহিকতায় আগামী ডিসেম্বর মাসে ঢাকায় সমাবেশ করার কথা রয়েছে দলটির।

এ প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তারা তো একটা ঘোষণা দিয়েছেন তখন কী হয় আমি জানি না। তারা নাকি লাখ লাখ লোক ঢাকা আনবেন আগামী ১০ তারিখে। আমাদের ঢাকা থেকে বের করে দেবেন। তারা নাকি নতুন কিছু চিন্তা করছেন। তাদের অনেক রণকৌশল থাকতে পারে। এগুলো তারা করবেন।

তিনি বলেন, কিন্তু আমাদের বক্তব্য স্পষ্ট। কোনো ধরনের জনদুর্ভোগ, কোনো ধরনের জানমালের ক্ষয়ক্ষতি হয়, যদি কোনো ধরনের ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়ায় নিরাপত্তা বাহিনী তাদের কাজটি করবে।

আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, বিএনপি বিভিন্ন জায়গায় সভা, মিছিল, বিক্ষোভ করছে। আমরা বলেছি আমাদের কোনো আপত্তি নেই। শৃঙ্খলা মেইনটেন করে তারা যদি সবকিছু পরিচালনা করতে পারেন, তাহলে আমাদের কিছু করার নেই। কিন্তু জনগণের যদি দুর্ভোগ সৃষ্টি করেন কিংবা চলাচলে বিঘ্ন ঘটে কিংবা জানমালের হানি করে, তাহলে আমাদের নিরাপত্তা বাহিনী তাদের কাজটি তারা করবেন।

পুলিশের কয়েকজনের বাধ্যতামূলক অবসরের বিষয় প্রশ্ন করা হলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমাদের পুলিশ ফোর্স একটা ডিসিপ্লিন ফোর্স। শান্তিশৃঙ্খলা রক্ষার জন্যই ফোর্স। সাধারণ মানুষের সেবার জন্যই ফোর্স। যারা দেশের কথা চিন্তা করে না, দেশপ্রেম যাদের হৃদয়ে নেই, যারা কাজকর্মে অনীহা প্রদর্শন করছে কিংবা তাদের যে দায়িত্ব সে কাজটি করছেন না, এই সমস্ত অফিসারদের যাদের ২৫ বছর উত্তীর্ণ হয়ে গেছে; তাদের কর্ম ক্ষেত্রে যারা চরম অবহেলা করে চলছেন, তাদের চিহ্নিত করা হচ্ছে।

কতজনকে চিহ্নিত করা হয়েছে জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, এটা একটা চলমান প্রক্রিয়া। আজকে হয়েছে এমন কোনো কথা নেই কিন্তু। আপনি যদি আরও পেছনে তাকান প্রতিবছর প্রতিমাসে এরকম দুই একজন অবসরে যাচ্ছে। এটা কোনো উল্লেখযোগ্য ঘটনার মধ্যে আসে না।