🕓 সংবাদ শিরোনাম

নীলফামারীতে ধর্ষণ মামলায় প্রধান শিক্ষক জেল হাজতে * দরিদ্র মানুষ না খেয়ে মরবে না: পরিকল্পনা মন্ত্রী * চট্টগ্রামে প্রধানমন্ত্রীর উপহার, ২৯ প্রকল্প ও ৪ ভিত্তিপ্রস্তর * মিরাজের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশের অবিশ্বাস্য জয় * ফুলবাড়ীতে গাঁজাসহ এক নারী গ্রেফতার * সৌদিতে পাচারকালে ২৪ লাখ ইয়াবা আটক * ভালুকা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হিসেবে আলোচনার শীর্ষে জামাল * দুই বছর আগে হস্তান্তর হওয়া মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতিস্তম্ভ অযত্নে অবহেলায় পরিত্যক্ত প্রায় * ফরিদপুর মেডিকেল হাসপাতালে বাড়ছে চুরি-ছিনতাই, নিরব হাসপাতাল প্রশাসন * নীলফামারীতে ট্রাকের ধাক্কায় ও ট্রেনে কাটা পড়ে শিক্ষার্থীসহ নিহত ২ *

  • আজ রবিবার, ১৯ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ ৷ ৪ ডিসেম্বর, ২০২২ ৷

সাফজয়ীদের ৫ লাখ করে টাকা দিলেন প্রধানমন্ত্রী


❏ বুধবার, নভেম্বর ৯, ২০২২ প্রধান খবর

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা: সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জয়ে বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলকে সংবর্ধনা ও আর্থিক সম্মাননা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ঢাকার তেজগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের শাপলা হলে বুধবার সকালে এ সংবর্ধনা দেয়া হয়।

উনিশ বছর পর মেয়েদের হাত ধরে ফুটবলে দক্ষিণ এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্ব আসে বাংলাদেশে। ছাদখোলা বাসে বর্ণাঢ্য সংবর্ধনা দেয় দেশের সাধারণ মানুষ, যা দেশের ক্রীড়াঙ্গনের ইতিহাসে ছিল অনন্য নজির। রাষ্ট্রীয় কাজে তখন দেশের বাইরে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাই মেয়েদের সংবর্ধনা দিতে পারেননি।

তবে দেশে ফিরেই ঘোষণা আসে সংবর্ধনার। সে হিসেবে সাফজয়ীদের আর্থিক সম্মাননা ও সংবর্ধনা দেয়া হলো প্রধানমন্ত্রীর নিজ কার্যালয়ে

এদিন সাফজয়ী দলের ২৩ খেলোয়াড়ের প্রত্যেককে দেয়া হয় ৫ লাখ টাকা করে আর্থিক সম্মাননা। সবার হাতে সম্মাননা চেক তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

খেলোয়াড়দের মধ্যে সবার আগে সরকারপ্রধানের হাত থেকে এই সম্মাননা বুঝে নেন দলনায়ক সাবিনা খাতুন। তারপর একে একে এগিয়ে আসেন দলের অন্য ২২ সদস্য।

এ ছাড়াও দলের প্রধান প্রশিক্ষক গোলাম রাব্বানী ছোটনসহ প্রশিক্ষক ও কর্মকর্তাদের ১১ জনের প্রত্যেককে দেয়া হয় ২ লাখ টাকা করে আর্থিক সম্মাননা। তাদের হাতেও সম্মাননা চেক তুলে দেন সরকারপ্রধান।

সম্মাননা গ্রহণ শেষে প্রত্যেক খেলোয়াড়, প্রশিক্ষক ও কর্মকর্তারা দাঁড়িয়ে প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান।

জবাবে খেলোয়াড়দের ধন্যবাদ জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘সবাইকে আমার আন্তরিক ধন্যবাদ, শুভেচ্ছা এবং সবার সফলতা কামনা। আরও আরও নতুন সফলতা আসুক, সেটাই চাই।’

এরপর নারী ফুটবল দলের দলনেতা সাবিনা খাতুন ও প্রধান প্রশিক্ষক গোলাম রাব্বানী ছোটন সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ ট্রফি প্রধানমন্ত্রীর হাতে তুলে দিতে গেলে সব খেলোয়াড়কে ডেকে নেন বঙ্গবন্ধুকন্যা।

পরে মূল মঞ্চে সবাইকে নিয়ে দাঁড়িয়ে সাবিনা খাতুনের হাত থেকে সাফ ট্রফি গ্রহণ করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি কথা বলেন নারী ফুটবল দলের কয়েকজন সদস্যের সঙ্গে।

এর আগে নারী ফুটবলারদের মধ্যে যাদের ঘর প্রয়োজন, তাদের জন্য ঘর নির্মাণের ব্যবস্থা করতে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। চ্যাম্পিয়ন দলের অন্য ফুটবলারদের ঘরবাড়ির কী অবস্থা, সে বিষয়েও তিনি সংশ্লিষ্টদের খবর নেয়ার নির্দেশ দেন তিনি।

সেপ্টেম্বরে নেপালের কাঠমান্ডুতে অনুষ্ঠিত সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশ জাতীয় নারী ফুটবল দল চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে। আসরে বাংলাদেশের মেয়েরা ছিল অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন। ফাইনালে স্বাগতিক নেপালকে ৩-১ গোলে হারিয়ে প্রথমবারের মতো দক্ষিণ এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করে সাবিনা-কৃষ্ণারা।

আসরের সবগুলো ম্যাচ জিতে অসাধারণ কৃতিত্ব দেখায় বাংলাদেশের মেয়েরা। গ্রুপ পর্বে বাংলাদেশ ৩-০ গোলে মালদ্বীপকে, ৬-০ গোলে পাকিস্তানকে এবং ৩-০ গোলে ভারতকে হারায়। এরপর ভুটানকে ৮-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে সেমিফাইনালের টিকিট পেয়েছিল গোলাম রাব্বানী ছোটনের শিষ্যরা।