মেয়ের মৃত্যুশোক সইতে না পেরে মায়ের আত্মহত্যা!


❏ শনিবার, নভেম্বর ১২, ২০২২ ঢাকা

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি : টাঙ্গাইলের মির্জাপুরেএকসঙ্গে দাহ করা হলো মা ও মেয়েকে। শুক্রবার (১১ নভেম্বর) সন্ধ্যায় উপজেলার উয়ার্শীর নগর ভাতগ্রামে তাদের দাহ করা হয়। একমাত্র মেয়ের মৃত্যুর শোক সহ্য করতে না পেরে মা বাসন্তী বণিক (৫০) হেক্সিসল পান করে আত্মহত্যা করেন বলে জানিয়েছে নিহতের পরিবার ।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্র জানায়, বাসন্তি বণিক ও প্রাণকৃষ্ণ বণিক দম্পতির একমাত্র সন্তান পূজা বণিক (১৮) কিডনি রোগে আক্রান্ত হয়ে দীর্ঘদিন ধরে ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় পূজা বণিকের মৃত্যু হয়। শুক্রবার ভোরে একমাত্র সন্তানের মরদেহ বাড়িতে এসে পৌঁছালে বাসন্তি বণিক হতবিহবল হয়ে পড়েন। মেয়ের মৃত্যু সহ্য করতে না পেরে সকলের অজান্তে বাথরুমে ঢুকে হেক্সিসল পান করেন। কিছুক্ষণ পর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে কুমুদিনী হাসপাতলে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মির্জাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ আবু সালেহ মাসুদ করিম বলেন, ‘ঘটনাটি অত্যন্ত হৃদয় বিদায়ক। পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ‘