• আজ বৃহস্পতিবার, ১৬ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ ৷ ১ ডিসেম্বর, ২০২২ ৷

বিতর্কের মুখে আগের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসলো টুইটার


❏ শনিবার, নভেম্বর ১২, ২০২২ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক: ভুয়া অ্যাকাউন্টের ছড়াছড়ির কারণে মাসিক আট মার্কিন ডলারের বিনিময়ে ব্লু টিক সাবস্ক্রিপশন সেবা স্থগিত করেছে টুইটার। অর্থাৎ, অর্থের বিনিময়ে যে কাউকে ব্লু টিক দেয়ার ব্যবস্থাটি আপাতত বন্ধই করে দিয়েছে টুইটার। খবর, ওয়াশিংটন পোস্ট’র।

জনপ্রিয় প্ল্যাটফর্মটিতে এর আগে ব্লু টিক কেবল রাজনীতিদ, বিখ্যাত ব্যক্তি, সাংবাদিকসহ অন্যান্য পাবলিক ফিগারদের ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্টের জন্যই সীমাবদ্ধ ছিল। ফলে এই চিহ্নটি হয়ে উঠেছিল বিশ্বাসযোগ্যতার একটি প্রতীক।

কিন্তু ইলন মাস্ক টুইটার কিনে নেয়ার পর অর্থ আয়ে বিজ্ঞাপননির্ভরতা কমিয়ে বিকল্প ব্যবস্থা চালুর উদ্যোগ নেন। সেই ধারাবাহিকতায় সবার জন্য মাসিক আট ডলারে বিনিময়ে ব্লু টিক সাবস্ক্রিপশন সেবা চালু করেছিলেন তিনি। কিন্তু তাতে হিতে বিপরীত হয়েছে টুইটারের জন্য।

মাস্কের এই সিদ্ধান্তে ভুয়া অ্যাকাউন্টেও ব্লু টিক যোগ হওয়ার জোয়ার সৃষ্টি হয়।

রবলক্স, নেসলে, ফার্মাসিউটিক্যাল জায়ান্ট এলি লিলি, লকহিড মার্টিনের মতো খ্যাতনামা প্রতিষ্ঠানগুলোর নামে ব্লু টিক-যুক্ত ভুয়া অ্যাকাউন্ট ছড়িয়ে পড়ে। বাদ পড়েনি মাস্কের নিজের মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান টেসলা এবং স্পেসএক্সও।

ফলে বিতর্কের মুখে শেষপর্যন্ত অর্থের বিনিময়ে ব্লু টিক সেবা স্থগিত করেন মাস্ক। শুক্রবার (১১ নভেম্বর) অনেক ব্যবহারকারী জানিয়েছেন, তাদের অ্যাকাউন্ট থেকে ব্লু টিক ভেরিফিকেশন চেক অপশন গায়েব হয়ে গেছে।

উল্লেখ্য, ইলন মাস্ক ৪ হাজার ৪০০ কোটি ডলারে টুইটার কেনার চুক্তি সম্পন্ন করার পর গত দু’সপ্তাহ ধরেই চরম বিশৃঙ্খলা চলছে প্রতিষ্ঠানটিতে। তিনি এরই মধ্যে টুইটারের প্রায় অর্ধেক কর্মীকে চাকরিচ্যুত করেছেন, জ্যেষ্ঠ নির্বাহী ও পরিচালনা পর্ষদকে সরিয়ে দিয়েছেন। এমনকি টুইটার দেউলিয়া হয়ে যেতে পারে বলেও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বিশ্বের শীর্ষধনী।