• আজ বুধবার, ২২ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ ৷ ৭ ডিসেম্বর, ২০২২ ৷

জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত আসন চান তৃতীয় লিঙ্গের নাগরিকরা


❏ রবিবার, নভেম্বর ১৩, ২০২২ প্রধান খবর

রাজু আহমেদ, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, সময়ের কণ্ঠস্বর: নারী-পুরুষের সাথে সাথে দেশের বিভিন্ন খাতে উন্নয়নমূলক নানা ইতিবাচক ভূমিকা পালন করছেন তৃতীয় লিঙ্গের নাগরিকরা।

গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ঝিনাইদহের একটি ইউনিয়ন পরিষদে বিপুল পরিমাণ ভোটে নজরুল ইসলাম নামে তৃতীয় লিঙ্গের এক ব্যাক্তি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে স্থাপন করেছেন বিশেষ দৃষ্টান্ত। এবার জাতীয় সংসদেও নারী পুরুষদের পাশাপাশি তৃতীয় লিঙ্গের নাগরিকদের জন্যে সংরক্ষিত আসনের দাবি জানিয়েছেন তারা।

রোববার (১৩ নভেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের মাওলানা মোহাম্মদ আকরাম খাঁ হলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানায় ‘সুস্থ জীবন’ নামে একটি সংগঠন।

‘বাংলাদেশে বর্তমানে তৃতীয় লিঙ্গের সদস্যদের নানা ফলপ্রসূ ভূমিকা পালনের ফলস্বরূপ ইতিবাচক গ্রহনযোগ্যতা পেলেও তা কাঙ্ক্ষিত পর্যায়ে পৌছায়নি’ দাবি করে সংগঠনটির চেয়ারপারসন পার্বতী আহমেদ বলেন, ২০১৩ সালে তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠীকে নিয়ে একটি গ্যাজেট প্রকাশ করা হয়। এরপর আজ পর্যন্ত তেমন বড় কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ বা উন্নয়ন এ জনগোষ্ঠী ভোগ করছে না। কাজ শুধু কাগজে কলমে হচ্ছে, কিন্তু বাস্তবে তেমন কিছুই নেই। সমাজকল্যাণ একটা ট্রেনিং দিয়ে ১০ হাজার টাকা ধরিয়ে দেয়। এই সময়ে তৃতীয় লিঙ্গের একজন সদস্য ১০ হাজার টাকা দিয়ে কীভাবে নতুন কিছু শুরু করতে পারে? ৫০ বছরের বেশি বয়সী একজন সদস্যকে ৩০০-৪০০ টাকা দিচ্ছে, এটা দিয়ে তার কী হবে। এ কথাগুলো কেউ নীতিনির্ধারণী পর্যায়ে বলছে না। কারণ সেখানে আমাদের কোনো প্রতিনিধি নেই। এজন্যই সংসদে সংরক্ষিত আসনের দাবি জানিয়েছেন তৃতীয় লিঙ্গের সদস্যরা।

তৃতীয় লিঙ্গের সদস্যদের সংগঠন সম্পর্কের নয়া সেতুর সভাপতি জয়া শিকদার বলেন, জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত আসন থাকলে আমরা আমাদের অধিকারের কথাগুলো বলতে পারব। তখন রাষ্ট্র আমাদের সেই সমস্যার সমাধান করে দিতে পারবে। আমাদের অধিকারের বাস্তবায়নের জন্য কোনো আইন প্রণয়নের দরকার থাকলে সেটা নিয়েও আমরা কথা বলতে পারব।

অন্যান্য বক্তারা বলেন, নীতিনির্ধারণ পর্যায়ে নারী পুরুষের পাশাপাশি তৃতীয় লিঙ্গের সদস্যদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা না গেলে জাতীয় উন্নয়ন ব্যাহত হবে। সমাজের সকলের উন্নয়ন নিশ্চিত করার মাধ্যমেই সমাজের উন্নয়ন ত্বরান্বিত করা সম্ভব। সকলের সম্মিলিত অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার লক্ষে জাতীয় সংসদে তৃতীয় লিঙ্গের সদস্যদের জন্য সংরক্ষিত আসন দেওয়ার জন্য জোর দাবি জানাচ্ছি।