ইস্তাম্বুলের সড়কে বিস্ফোরণে নিহত ৬, আহত ৫৩


❏ রবিবার, নভেম্বর ১৩, ২০২২ আন্তর্জাতিক, প্রধান খবর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- তুরস্কের ইস্তাম্বুলের ইস্তিকলাল অ্যাভিনিউতে ভয়াবহ বিস্ফোরণে নিহত বেড়ে ছয়জনে দাঁড়িয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত ৫৩ জন।

রোববার স্থানীয় সময় বিকাল ৪টা ২০ মিনিটে ইস্তিকলাল স্ট্রিটে এ বিস্ফোরণ ঘটে বলে ইস্তাম্বুলের গভর্নর আলি ইয়ারলিকায়া নিশ্চিত করেছেন। খবর বিবিসি ও আল জাজিরার।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবিতে দেখা যাচ্ছে বিখ্যাত ইস্তিকলাল স্ট্রিটে, যেখান থেকে এই বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে, সেখানে রাস্তায় নিথর দেহ পড়ে আছে।

ঘটনাস্থলে এখন প্রচুর পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। অ্যাম্বুলেন্সে করে আহত লোকদের সরিয়ে নেয়া হচ্ছে।

ঠিক কী কারণে এই বিস্ফোরণ ঘটল কিংবা এটি কোনো বোমা হামলা কি না— এসব প্রশ্নের উত্তর এখনও মেলেনি নিরাপত্তা বাহিনীর কাছ থেকে।

ইস্তাম্বুল থেকে আল জাজিরার সিনেম কোসেওগ্লু জানান, এটি একটি আত্মঘাতী বোমা ছিল বলে জোরালো সন্দেহ রয়েছে। তবে এ বিষয়ে আমাদের কাছে এখনো কোনো আনুষ্ঠানিক বক্তব্য নেই।

অনলাইনে পোস্ট করা একটি ভিডিওতে ঘটনাস্থল থেকে আগুনের লেলিহান শিখা দেখা গেছে। এতে বিকট বিস্ফোরণের পর ঘটনাস্থল থেকে পথচারীদের পালিয়ে যেতে দেখা গেছে।

অন্যান্য ফুটেজে অ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার ট্রাক এবং পুলিশের উপস্থিতি দেখা গেছে। সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীরা বলছেন- ওই এলাকার দোকানপাট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

আল জাজিরার কোসেওগ্লু বলেন, বিস্ফোরণটি ছিল একটি ধাক্কার মতো। কেননা শহরে হামলার বিষয়ে সাম্প্রতিক কোন সতর্কবার্তা ছিল না।

ইস্তিকলাল অ্যাভিনিউ মূলত পথচারীদের চলাচলের সড়ক। প্রতিদিন প্রচুর মানুষ এই সড়ক দিয়ে চলাচল করেন। এই সড়কটি পর্যটকদের কাছেও বেশ জনপ্রিয়। সড়কের দুই ধারে সারি সারি রেস্তোরাঁ ও দোকানপাট রয়েছে।

এর আগে ২০১৫ ও ২০১৭ সালে তুরস্কে ভয়াবহ বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছিল। ২০১৫ সালের বিস্ফোরণের জন্য দায়ী ছিল আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসীগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) এবং ২০১৭ সালের বিস্ফোরণ ঘটিয়েছিল তুরস্কের নিষিদ্ধঘোষিত রাজনৈতিক দল কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টি (পিকেকে)।