🕓 সংবাদ শিরোনাম

নীলফামারীতে ধর্ষণ মামলায় প্রধান শিক্ষক জেল হাজতে * দরিদ্র মানুষ না খেয়ে মরবে না: পরিকল্পনা মন্ত্রী * চট্টগ্রামে প্রধানমন্ত্রীর উপহার, ২৯ প্রকল্প ও ৪ ভিত্তিপ্রস্তর * মিরাজের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশের অবিশ্বাস্য জয় * ফুলবাড়ীতে গাঁজাসহ এক নারী গ্রেফতার * সৌদিতে পাচারকালে ২৪ লাখ ইয়াবা আটক * ভালুকা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হিসেবে আলোচনার শীর্ষে জামাল * দুই বছর আগে হস্তান্তর হওয়া মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতিস্তম্ভ অযত্নে অবহেলায় পরিত্যক্ত প্রায় * ফরিদপুর মেডিকেল হাসপাতালে বাড়ছে চুরি-ছিনতাই, নিরব হাসপাতাল প্রশাসন * নীলফামারীতে ট্রাকের ধাক্কায় ও ট্রেনে কাটা পড়ে শিক্ষার্থীসহ নিহত ২ *

  • আজ রবিবার, ১৯ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ ৷ ৪ ডিসেম্বর, ২০২২ ৷

ইবির জীববিজ্ঞান অনুষদ পেল নতুন ডিন

University news
❏ সোমবার, নভেম্বর ১৪, ২০২২ শিক্ষাঙ্গন

যায়িদ বিন ফিরোজ, ইবি প্রতিনিধি : ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) জীববিজ্ঞান অনুষদের নতুন ডিন হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন বায়োটেকনোলজি এন্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহা. রেজওয়ানুল ইসলাম। তিনি আগামী দুই বছরের জন্য এই দায়িত্ব পালন করবেন।

সোমবার (১৪ নভেম্বর) জীববিজ্ঞান অনুষদের সম্মেলন কক্ষে এই দায়িত্বগ্রহণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। জীববিজ্ঞান অনুষদের ডিন ফলিত পুষ্টি ও খাদ্য প্রযুক্তি বিভাগের অধ্যাপক ড. মো: আব্দুস সামাদের মেয়াদ পূর্ণ হওয়ায় তদস্থলে বায়োটেকনোলজি এন্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহা. রেজওয়ানুল ইসলাম কে স্থলাভিষিক্ত করা হয়।

দায়িত্বগ্রহণ অনুষ্ঠানে নবনিযুক্ত ডিনকে ফুল দিয়ে বরণ করা হয় এবং সদ্য বিদায়ী ডিনকে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মাহবুবুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. আলমগীর হোসেন ভুইঁয়া, আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. সেলিম তোহা, ইংরেজি বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. মোহা: মেহের আলী, বঙ্গবন্ধু পরিষদ শিক্ষক ইউনিটের সভাপতি অধ্যাপক ড. কাজী আখতার হোসেন প্রমুখ।

বিদায়ী ডিন অধ্যাপক ড. মো. আব্দুস সামাদ বলেন, আমার সময়কালে যদি কোন কাজ অসম্পূর্ণ থেকে যায় তাহলে আমি আশাবাদ ব্যক্ত করি যে আমার পরবর্তী যে ডিন আসবে তিনি আমার এই অসম্পূর্ণ কাজগুলো দায়িত্ব নিয়ে করবে। আপনারা যদি মনে করেন আমি সফল তাহলে আমার এই সফলতার দাবিদার আপনারও।

নবনিযুক্ত ডিন অধ্যাপক ড. মোহা. রেজওয়ানুল ইসলাম বলেন, আমার মিশন হবে ছাত্র-ছাত্রীদের জ্ঞান আহরণের জন্য গবেষণার মান বাড়ানো। কারণ গবেষণা ছাড়া জ্ঞান আহরণ করা যাবে নাহ। আর সেজন্য নিয়মিত কনফারেন্স, সেমিনার এবং সিম্পোজিয়াম করা এবং সেগুলো স্টোরেজ করে রাখা। পরবর্তী শিক্ষার্থীরা আসলে যেনো গবেষণা গুলো দেখতে পারে সেজন্য জার্নালে প্রকাশ করে রাখা। এই কাজগুলো যতটুকু সম্ভব আমি সম্পন্ন করার চেষ্টা করবো।