• আজ রবিবার, ১২ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ ৷ ২৭ নভেম্বর, ২০২২ ৷

সৈয়দপুরে বাড়ি-দোকান দখলে নিয়ে বৃদ্ধ মাকে বের করে দিলেন সন্তানরা

Nilpamari news
❏ সোমবার, নভেম্বর ১৪, ২০২২ রংপুর

মো. ফরহাদ হোসাইন, নীলফামারী প্রতিনিধি: নীলফামারী জেলার সৈয়দপুরে বাড়ি ও বাজারের দুইটি দোকান দখলে নিয়ে বৃদ্ধ মাকে বের করে দিয়েছেন সন্তানরা। উপজেলার পুরাতন বাবুপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর বৃদ্ধ মা মোছা: জোবাইদা খাতুন (৭০) দীর্ঘদিন ধরে মেয়েদের বাড়িতে অবস্থান করছেন।

জোবাইদা খাতুন ওই এলাকার মৃত আব্দুল হালিমের স্ত্রী। এ ঘটনায় তিনি স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও এলাকার মান্যগণ্য ব্যক্তিবর্গের কাছে সহযোগিতা চাইলেও কেউ এগিয়ে আসেনি। ফলে নিরুপায় হয়ে গত রোববার বিকেলে মেয়েদের নিয়ে একটি ছেলের দখলে নেওয়া দোকানে তালা লাগিয়ে দেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, “জোবাইদা বেগমের স্বামী প্রায় ছয় বছর আগে মারা যান। তার পাঁচ মেয়ে ও তিন সন্তান। স্বামীর রেখে যাওয়া পুরাতন বাবুপাড়া ও ইসলামবাগ ফিদালী মিলনায়তন এলাকার দুইটি বাড়ি ও শহরের শেরে বাংলা সড়কের দুইটি দোকান রয়েছে। ছেলে সন্তান ও স্বামীর রেখে যাওয়া এ সামান্য সম্পত্তি আগলে রেখে বাকি দিনটুকু বাচাঁর স্বপ্ন দেখছিলেন তিনি। কিন্তু সম্প্রতি তার তিন ছেলে জাবেদ, মুরাদ ও লিটন বাড়িসহ দোকান জোর করে দখল করে নিয়েছেন।”

জানতে চাইলে জোবাইদা খাতুন কাঁদতে কাঁদতে বলেন, “স্বামীর কষ্টে উপার্জিত বাড়ি ও দোকান ছিল। কদিন আগে ছেলেরা দখল করে নিয়েছে। এছাড়া আমাকে এক কাপড়ে বাড়ি থেকে বের করে দেয়। কয়েকদিন আমি এ বাড়ি ও বাড়ি ছিলাম। পরে খবর পেয়ে মেয়ে এসে তার বাড়িতে নিয়ে গেছে।”

তিনি বলেন, এতো কষ্ট করে সন্তানদের বড় করলেও তারা আমাকে কোনোদিনও ভরণপোষণের খরচ দেয় নাই। আমি আমার ছেলেদের বিচার চাই আমার স্বামীর বাড়ি ও দোকান ফিরে পেতে চাই। আমি বাকিটা জীবন স্বামীর দেওয়া ঘরে কাটাব।

এ ব্যাপারে ওই বৃদ্ধার মেঝো ছেলে মো. মুরাদ বলেন, “ছোট একটি দোকান ভাগে পেয়েছি আমি। আর পাশের দোকান আমার দুই ভাই ভাগ করে নিয়েছে। তারা ভাড়াটিয়া রেখেছে আর আমি নিজে করি। এ ছাড়া রেলের দোকানে মা-বা বোনের ভাগ কিসের।”