🕓 সংবাদ শিরোনাম

নীলফামারীতে ধর্ষণ মামলায় প্রধান শিক্ষক জেল হাজতে * দরিদ্র মানুষ না খেয়ে মরবে না: পরিকল্পনা মন্ত্রী * চট্টগ্রামে প্রধানমন্ত্রীর উপহার, ২৯ প্রকল্প ও ৪ ভিত্তিপ্রস্তর * মিরাজের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশের অবিশ্বাস্য জয় * ফুলবাড়ীতে গাঁজাসহ এক নারী গ্রেফতার * সৌদিতে পাচারকালে ২৪ লাখ ইয়াবা আটক * ভালুকা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হিসেবে আলোচনার শীর্ষে জামাল * দুই বছর আগে হস্তান্তর হওয়া মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতিস্তম্ভ অযত্নে অবহেলায় পরিত্যক্ত প্রায় * ফরিদপুর মেডিকেল হাসপাতালে বাড়ছে চুরি-ছিনতাই, নিরব হাসপাতাল প্রশাসন * নীলফামারীতে ট্রাকের ধাক্কায় ও ট্রেনে কাটা পড়ে শিক্ষার্থীসহ নিহত ২ *

  • আজ রবিবার, ১৯ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ ৷ ৪ ডিসেম্বর, ২০২২ ৷

কক্সবাজারে মাদক মামলায় রোহিঙ্গাসহ ৪ জনের মৃত্যুদন্ড


❏ বুধবার, নভেম্বর ১৬, ২০২২ চট্টগ্রাম, দেশের খবর

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, কক্সবাজার: কক্সবাজারে ১৩ লাখ ইয়াবা পাচারের দায়ে এক রোহিঙ্গাসহ ৪ জন আসামিকে মৃত্যুদন্ডাদেশ দেওয়া হয়েছে। একইসাথে প্রত্যেককে ৫০ হাজার করে অর্থদন্ড প্রদান করা হয়েছে।

বুধবার (১৬ নভেম্বর) কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ ইসমাইল এ রায় ঘোষণা করেন। এ সময় দন্ডিতরা সবাই আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন।

মামলায় মৃত্যুদন্ডে দন্ডিতরা হলো, কক্সবাজারের উখিয়ার বালুখালী রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্প-১৩ এর ব্লক-এইস-১৬ এর মোঃ বশির আহমদ ও আয়েশা খাতুনের পুত্র মোঃ আয়াজ (৩৪), কক্সবাজার সদর ঝিলংজা ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের পাওয়ার হাউজ দক্ষিণ হাজীপাড়ার মৃত আবদুল মজিদ ও মোছা: মোস্তফা খাতুনের পুত্র আবুল কালাম (৩৭), খাগড়াছড়ি জেলার মানিকছড়ির পঞ্চরাম পাড়ার মকবুল আহমদ ও সোনা মেহেরের পুত্র আজিমুল্লাহ (৪৩) এবং একই এলাকার ফয়জুল হক ও ছেহেরা খাতুনের পুত্র আবুল কালাম (৩৭)।

রাষ্ট্র পক্ষের আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট ফরিদুল আলম এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা গেছে, ২০২০ সালের ২৩ আগস্ট রাত ৭ টা ৫ মিনিটের দিকে র‍্যাব-১৫ এর একটি টিম এক অভিযান চালিয়ে কক্সবাজার শহরের মাঝির ঘাটে খুরুস্কুল ব্রীজের উত্তর পাশে, রাস্তার পশ্চিম পাশে একটি ফিশিং বোট আটক করে। একইসাথে ফিশিং বোটে থাকা মোঃ আয়াজ ও মোঃ বিল্লালকে গ্রেফতার করে। তখন র‍্যাব সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে আরো ৪/৫ জন লোক দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরে ফিশিং বোট তল্লাশি করে ১৩ লক্ষ ইয়াবা টেবলেট, ১০ হাজার হাজার নগদ টাকা উদ্ধার এবং ফিশিং বোটটি জব্দ করা হয়।

এ ঘটনায় র‍্যাব-১৫ এর নায়েব সুবেদার মোঃ হারুনর রশীদ বাদী হয়ে উল্লেখিত ২ জন সহ অজ্ঞাত আরো ৪/৫ জনকে আসামী করে ২০১৮ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ৩৬(১) সারণির ১০(গ)/৩৮/৪১ ধারায় কক্সবাজার সদর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলার ঘটনাস্থল থেকে আটক আসামী মোঃ আয়াজ ও মোঃ বিল্লাল তাদের দোষ স্বীকার করে ফৌজদারী কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় আদালতে জবানবন্দী প্রদান করে। তারা জবানবন্দিতে পলাতক আসামী আজিমুল্লাহ ও আবুল কালাম এর নাম ঠিকানা প্রকাশ করে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও র‍্যাব-১৫ এর এসআই মোহাম্মদ সোহেল সিকদার ২০২১ সালের ১০ জুন আদালতে মামলাটির চার্জশীট প্রদান করেন।

রাষ্ট্র পক্ষের আইজীবি পিপি অ্যাডভোকেট ফরিদুল আলম বলেন, সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে মামলার চার আসামীর সবার বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে। তাই আদালত সর্বোচ্চ শাস্তি দিয়েছেন। এই রায়ের মাধ্যমে মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে কঠোর বার্তা দেয়া হয়েছে।