• আজ সোমবার, ১৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ ৷ ২৮ নভেম্বর, ২০২২ ৷

২০২২ সালে আমানত ও ঋণে ব্র্যাক ব্যাংকের উল্লেখযোগ্য প্রবৃদ্ধি অর্জন

Dhaka news
❏ শনিবার, নভেম্বর ১৯, ২০২২ ঢাকা

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক: ব্যবসায়িক প্রতিকূলতা সত্ত্বেও ব্র্যাক ব্যাংক ২০২২ সালে ব্যালেন্স শিটে উল্লেখযোগ্য প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে। ২০২২ সালের প্রথম নয় মাসে সামষ্টিকভাবে (Consolidated) অর্থাৎ সহযোগী প্রতিষ্ঠানসহ ৩৮০ কোটি টাকা কর-পরবর্তী মুনাফা অর্জন করেছে, যা ২০২১ সালের চেয়ে ১২% বেশি। এককভাবে (Standalone) কর-পরবর্তী মুনাফা হয়েছে ৩৯২ কোটি টাকা। ১৬ নভেম্বর ২০২২ ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে ২০২২ সালের তৃতীয় প্রান্তিকের আার্থিক ফলাফল ঘোষণা করে ব্র্যাক ব্যাংক।

স্থানীয় ও বিদেশী বিনিয়োগ বিশ্লেষক, পোর্টফোলিও ম্যানেজার ও পূজিঁবাজার বিশেষজ্ঞদের অংশগ্রহণে আয়োজিত অনুষ্ঠানটি ব্যাংকের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও সরাসরি সম্প্রচার করা হয়।

অনুষ্ঠানে ব্র্যাক ব্যাংক এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যান্ড সিইও সেলিম রেজা ফরহাদ হোসেন, ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর (ডিএমডি) অ্যান্ড সিএফও এম. মাসুদ রানা এফসিএ, ডিএমডি অ্যান্ড সিওও মো. সাব্বির হোসেন, ডিএমডি অ্যান্ড হেড অব কর্পোরেট ব্যাংকিং তারেক রেফাত উল্লাহ খান, ডিএমডি অ্যান্ড হেড অব এসএমই ব্যাংকিং সৈয়দ আব্দুল মোমেন, ডিএমডি অ্যান্ড হেড অব ট্রেজারি অ্যান্ড এফআই মো. শাহীন ইকবাল সিএফএ, হেড অব অলটারনেট ব্যাংকিং চ্যানেলস নাজমুর রহিম, হেড অব ব্রাঞ্চেস শেখ মোহাম্মদ আশফাক, হেড অব ক্রেডিট রিস্ক ম্যানেজমেন্ট আহমেদ রশীদ জয় এবং রিটেইল ব্যাংকিংয়ের হেড অব ডিপোজিটস অ্যান্ড এনএফবি সারাহ আনাম ব্যাংকের আর্থিক ফলাফল, অর্জন, অগ্রগামী অবস্থান ও ভবিষ্যতের ব্যবসায়িক কৌশল তুলে ধরেন এবং বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন।

তৃতীয় প্রান্তিকে ব্যাংকের আর্থিক ফলাফল সম্পর্কে মন্তব্য করে ব্র্যাক ব্যাংক-এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যান্ড সিইও সেলিম রেজা ফরহাদ হোসেন বলেন, “অন্যান্য অনেক উন্নয়নশীল দেশের সাথে বাংলাদেশের অর্থনীতিও গত নয় মাস ধরে বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক চ্যালেঞ্জের কারণে ব্যাপকভাবে প্রভাবিত হয়েছে। এই কঠিন সময়েও, আমরা আমাদের ব্যবসায়িক মডেলের দৃঢ়তা যাচাই করতে পেরে আনন্দিত। আমাদের বিস্তৃত ডিস্ট্রিবিউশন নেটওয়ার্ক, গ্রাহক কেন্দ্রিক ডিজিটাল সেবা ও উদ্ভাবনী প্রোডাক্ট লক্ষ্যণীয় প্রবৃদ্ধি অর্জনে সাহায্য করেছে।”

তিনি আরও বলেন, “এই কঠিন সময়ে ব্যাংকের প্রতিভাবান সহকর্মীদের তাদের দৃঢ় প্রতিশ্রুতি প্রদর্শন, পরিচালনা পর্ষদকে তাদের দিকনির্দেশনা প্রদান এবং বাংলাদেশ ব্যাংককে স্বপ্রণোদিত নীতিগত সহায়তা প্রদানের জন্য আমি আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।”