মরুর বুকে আজ শুরু ফুটবল মহোৎসব, যা থাকছে জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে


❏ রবিবার, নভেম্বর ২০, ২০২২ খেলা, প্রধান খবর

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক: আজ মরুর বুকে পর্দা উঠছে কাতার বিশ্বকাপের। নিয়মতান্ত্রিক চার বছরের ব্যবধানে আবারো শুরু হতে যাচ্ছে বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর ফিফা বিশ্বকাপ।

আজ রোববার (২০ নভেম্বর) পর্দা উঠবে এই‘দ্যা গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ‘-এর। ১৯৩০ সালে শুরু হওয়া ফিফা বিশ্বকাপের ২২তম আসরের আয়োজক দেশ কাতার। কাতারের আয়োজক হওয়া নিয়ে যেমন আছে আলোচনা, তেমনি আছে সমালোচনাও। তবে সব কিছু ছাপিয়ে আজ মাঠে গড়াচ্ছে বিশ্ব ফুটবলের এই মহারণ।

আয়োজক দেশ হওয়ায় এবারের বিশ্বকাপে সরাসরি খেলতে পারছে কাতার। মধ্যপ্রাচ্যের এ দেশটি এবারই প্রথম বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ। এর আগে কখনো ফুটবল বিশ্বকাপ না খেলেই হোস্ট করা সর্বশেষ দেশ ছিল ইতালি, সেটাও আবার ১৯৩৪ বিশ্বকাপে। যা ফুটবল ইতিহাসের দ্বিতীয় বিশ্বকাপ।

একমাত্র প্রথম ফিফা বিশ্বকাপ অর্থাৎ ১৯৩০ সালের বিশ্বকাপেই এক শহরেই বিশ্বকাপের সব ম্যাচ হয়েছিল। ৯২ বছর পর এসে আবারো তেমনটি হতে যাচ্ছে। কাতারের দোহা শহরেই হবে বিশ্বকাপের সবগুলো ম্যাচ। দোহা শহরের একমাত্র খলিফা ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামকেই সংস্কার করে নতুন রুপ দেয়া হয়েছে। বাকি ৭টি স্টেডিয়াম বিশ্বকাপের জন্যই নতুন করে তৈরি করা হয়েছে।

তাই এই বিশ্বকাপকে রাঙিয়ে রাখতে জমকালো এক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানেরই পরিকল্পনা আয়োজকদের। বাংলাদেশ সময় রাত আটটায় পর্দা উঠবে বিশ্বকাপের। গাজী টিভি, টি স্পোর্টস ও টফি লাইভ অ্যাপে সরাসরি সম্প্রচার করা হবে এই অনুষ্ঠান।

উদ্বোধনী ম্যাচেই মুখোমুখি হবে স্বাগতিক কাতার এবং ইকুয়েডর। তার আগে হবে জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য টেলিগ্রাফ জানিয়েছে, বলিউড তারকা নোরা ফাতেহি, আমেরিকান ব্যান্ড ‘ব্ল্যাক আইড পিস’, রবি উইলিয়ামসদের এই মঞ্চে পারফর্ম করার কথা রয়েছে।

তবে সবার চোখ থাকবে দক্ষিণ কোরিয়ান জনপ্রিয় ব্যান্ড ‘বিটিএস’-এর গায়ক জং কুকের দিকে। বিশ্বজুড়েই তার অগণিত ভক্ত রয়েছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জং কুককে দেখার জন্য তাই মুখিয়ে রয়েছেন সবাই।

৬০ হাজার দর্শক ধারণ সক্ষম আল বাইত স্টেডিয়ামে হবে এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। কাতারের রাজধানী দোহা থেকে ৪০ কিলোমিটার উত্তরে অবস্থিত স্টেডিয়ামটি।

এই অনুষ্ঠানে পারফর্ম করবেন ব্রিটিশ সঙ্গীতশিল্পী দুয়া লিপা, এমন খবরও প্রকাশ হয়েছিল বিভিন্ন গণমাধ্যমে। তবে ২৭ বছর বয়সী গায়িকা সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, কাতার মানবাধিকার রক্ষায় দেওয়া তাদের সব অঙ্গীকার পূরণ করলেই কেবল সেখানে যাবেন তিনি।