• আজ বৃহস্পতিবার, ১৬ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ ৷ ১ ডিসেম্বর, ২০২২ ৷

বিশ্বকাপ উন্মাদনায় মেতেছে ইবি


❏ সোমবার, নভেম্বর ২১, ২০২২ শিক্ষাঙ্গন

যায়িদ বিন ফিরোজ, ইবি প্রতিনিধি: ফুটবল বিশ্বকাপ উপলক্ষে প্রিয়দলের পতাকা-জার্সি পরিধান কিংবা প্রিয় খেলোয়াড় ঘিরে নানা তর্ক-বিতর্কে সরগরম ফুটবল অনুরাগীরা। গোটা বিশ্বের মত এই উত্তাপের আঁচ লেগেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ১৭৫ একরে।

বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীরা প্রতিনিয়ত চায়ের কাপে ঝড় তুলছে প্রিয় টিমকে কীভাবে কথার লড়াইয়ের মাধ্যমে এগিয়ে রাখা যায় সেলক্ষ্যে। প্রতিটি শিক্ষার্থী বুঁদ হয়ে আছে ফুটবলের অনিন্দ্য শৈল্পিক ও খেলোয়াড়দের পেশাদারিত্ব মনোভাব উপভোগের অপেক্ষায়। হল থেকে ক্লাস রুম সর্বত্রই স্থান পেয়েছে পছন্দের দল-পতাকা-জার্সি ঘিরে উন্মাদনা।

এবারের বিশ্বকাপ ফুটবলের আমেজকে আরো বৃদ্ধি করতে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ক্রিকেট মাঠে ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের সৌজন্যে বসানো হয়েছে স্টার টেকনো ভিশনের ১০x১৬ ফিটের জায়ান্ট এলইডি স্ক্রীন। যা শিক্ষার্থীদের মাঝে বিশ্বকাপের উন্মাদনাকে বাড়িয়ে দিয়েছে আরো কয়েকগুণ।

এদিকে গতকাল (২০ নভেম্বর) ইবির ক্রিকেট মাঠ প্রাঙ্গণে জায়ান্ট স্ক্রীণে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচ উপভোগ করেন প্রায় অর্ধসহস্র শিক্ষার্থী। তবে ক্যাম্পাসে জায়ান্ট স্ক্রীণ বসানোর পেছনে বিশ্ববিদ্যালয়ের জীববিজ্ঞান অনুষদের বর্তমান ডীন ও বায়োটেকনোলজি এবং জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. রেজওয়ানুল ইসলাম প্রত্যক্ষভাবে অবদান ও সর্বাত্মক চেষ্টা করেছেন বলে জানা যায়। তারই ফলশ্রুতিতে ইবির শিক্ষার্থীরা সবাই একসাথে বিশ্বকাপ ফুটবলের সবগুলো খেলা উপভোগ করতে পারবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন অধ্যয়ন বিভাগের ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী সামি আল সাদ আওন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে বড় স্ক্রীণে সবার সাথে খেলা দেখতে পেরে খুবই ভাল লাগছে। ক্যাম্পাসের প্রায় সকল শিক্ষার্থী মিলে খেলা দেখার মজাটাই অন্যরকম। এতো সুন্দর আয়োজনের জন্য আয়োজকদের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

এদিকে জায়ান্ট স্ক্রীণে খেলা দেখা উচ্ছ্বসিত বায়োটেকনোলজি বিভাগের শিক্ষার্থী কামরুল বলেন, আমরা সত্যিই অনেক গর্বিত। কারণ আমাদের বিভাগ থেকে এই জায়ান্ট স্ক্রীণের সকল দায়িত্ব পালন করা হচ্ছে। আমাদের ডীন স্যারের তত্ত্বাবধানে বিভাগের সকল ভাইয়েরাই এই দায়িত্বে রয়েছে।

এ বিষয়ে অধ্যাপক ড. রেজওয়ানুল ইসলাম সময়ের কন্ঠস্বরকে বলেন, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের সৌজন্যে স্টার টেকনো ভিশন সারাদেশে ৪০ জায়গায় এমন এলইডি স্ক্রীণ বসিয়েছে। কুষ্টিয়ায় স্ক্রীণ বসানোর ব্যাপারে আমার তাদের সাথে কথা হয়। প্রথমে তারা জেলা শহরে বসানোর কথা ভাবলেও আমি তাদেরকে আমার ক্যাম্পাসে স্ক্রীণটি বসাতে বলি। এরপর তারা এ ব্যাপারে আমার মাধ্যমে উপাচার্য স্যারের সাথে কথা বলে এবং স্যার তাদেরকে অনুমতি প্রদান করেন। শুধু তাই নয় ক্যাম্পাস থেকে কোনো ফান্ডিংও করবে না প্রশাসন সব খরচ বহন করবে স্পনসররাই।

এর আগে গতকাল ২০ নভেম্বর বায়োটেকনোলজি বিভাগের শিক্ষার্থী সাব্বির আহমেদের সঞ্চালনায় জায়ান্ট স্ক্রীণটিতে কাতার বিশ্বকাপ ২০২২ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও খেলাটি সরাসরি ক্রিকেট মাঠে বসে উপভোগ করে ইবির শিক্ষার্থীরা।