• আজ রবিবার, ১৯ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ ৷ ৪ ডিসেম্বর, ২০২২ ৷

রূপগঞ্জে শিক্ষকের মারধরে ৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

Narayangonj
❏ মঙ্গলবার, নভেম্বর ২২, ২০২২ ঢাকা

সুমন আল হাসান, নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে প্রধান শিক্ষকের বেত্রাঘাত ও টিসি দিয়ে স্কুল থেকে বের করে দেওয়ার অপমান সহ্য করতে না পেরে হানিফ মিয়া (১৫) নামে এক স্কুল শিক্ষার্থীর কিটনাশক পানে আত্মহত্যা করার ঘটনা ঘঠেছে। গত রোববার দিবাগত রাতে ওই শিক্ষার্থী মারা যায়।

আত্মহত্যাকারী হানিফ উপজেলার কাঞ্চন পৌরসভার ত্রিশকাহনীয়া এলাকার আজাহার মিয়ার ছেলে। সে স্থানীয় সাত্তার জুট মিলস মডেল হাইস্কুলের ৯ম শ্রেণীর ছাত্র ছিল।

নিহত হানিফের মা নাজমিন বেগম জানান, রোববার সকালে তার ছেলে হানিফ স্কুলে যায়। সেখানে একই স্কুলের ৭ম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর সঙ্গে বারান্দায় দাঁড়িয়ে কথা বলতে দেখে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবুল কালাম আজাদ বেধড়ক পিটিয়ে জখম করে এবং টিসি দিয়ে বিদ্যালয় থেকে বের করে দেয়। সেই অপমান সহ্য করতে না পেরে রাগে অভিমানে বাড়ি ফিরে এসে বিষপান করে আত্মহত্যা করে। আমি আমার ছেলে ফেরত চাই! আবুল কালাম আজাদ মাস্টারের বিচার চাই।

তিনি বলেন, আমার ছেলে যদি কোনো অন্যায় করে থাকে তাহলে স্কুলে অভিভাবকদের ডাকতে পারতেন তিনি। কিন্তু তা না করে পশুর মতো পিটিয়ে ও অপমান করে স্কুল থেকে টিসি দিয়ে বের করে দেন। সেই অপমানে আমার ছেলে আত্মহত্যা করেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষক আজাদের বিচার চেয়ে বিক্ষোভ করেন নিহত হানিফের স্বজনসহ স্থানীয়রা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে, অভিযুক্ত শিক্ষক আবুল কালাম আজাদ তার দোষ অস্বীকার করেন।

রূপগঞ্জ থানার( ওসি) এএফএম সায়েদ জানান, ঘটনাটি শুনে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়েছিল। এখনো কেউ অভিযোগ দায়ের করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।