দেশের মানুষের চিন্তায় প্রধানমন্ত্রীর ঘুম নেই: ওবায়দুল কাদের


❏ মঙ্গলবার, নভেম্বর ২২, ২০২২ জাতীয়

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি : দেশের মানুষের চিন্তায় প্রধানমন্ত্রীর ঘুম নেই বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আজ মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) দুপুরে জেলা স্টেডিয়াম মাঠে লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘দেশের মানুষের চিন্তায় প্রধানমন্ত্রীর ঘুম নেই। তার কাছেই এ দেশ নিরাপদ, দেশের জনগণ নিরাপদ। তাই শেখ হাসিনা সরকারকে আরেকবার দরকার।’

উদ্বোধনী বক্তব্যে কাদের বলেন, ‘আগামী ডিসেম্বর মাসে খেলা হবে। খেলা হবে বিএনপির সঙ্গে, আন্দোলনে খেলা হবে। ভোট চোর, জালিয়াতি, দুঃশাসন, দুর্নীতিবাজ, জঙ্গিবাদ, হাওয়া ভবন বানিয়ে যারা টাকা লুট করে বিদেশে পাচার করেছেন, তাদের বিরুদ্ধে খেলা হবে। আর তারা (বিএনপি) নাকি আমাদের বিরুদ্ধে খেলতে চায়। লক্ষ্মীপুরবাসী প্রস্তুত থাকুন, ডিসেম্বরকে কেন্দ্র করে অপশক্তি মাঠে নেমেছে। তাদের বিরুদ্ধে সবাই সজাগ থাকুন।’

তত্ত্বাবধায়ক সরকার সম্পর্কে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘তত্ত্বাবধায়ক ইস্যু এখন মৃত। মৃত ইস্যু নিয়ে কোনো লাভ নেই। নির্বাচন হবে সংবিধান অনুযায়ী। সংবিধানের বাইরে কোনো কথা বলে লাভ হবে না।’ বরং এই ইস্যু নিয়ে নৈরাজ্য সৃষ্টি করলে দাঁতভাঙা জবাব দেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

জঙ্গিদের নিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি সরকারের আমলে জঙ্গিবাদের সূত্রপাত। তারাই শায়খ আবদুর রহমান, বাংলাভাইকে সৃষ্টি করেছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। হাওয়া ভবন থেকে জঙ্গিদের ইন্ধন দেওয়া হতো। তারাই জঙ্গিদের সৃষ্টি করেছে। আর আমরা (আওয়ামী লীগ) জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে। আদালতে কারা জঙ্গিদের ছিনিয়ে নিয়েছে, সেটার তদন্ত চলছে। অপেক্ষা করুন তদন্তে বের হয়ে আসবে।’

সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন প্রেসিডিয়াম সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন চৌধুরী মায়া। এ ছাড়া আরও বক্তব্য রাখেন-আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ, লক্ষ্মীপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শাহজাহান কামাল, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাইদ আল মাহমুদ স্বপন, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক হারুনুর রশিদ, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী প্রমুখ।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকুর সভাপতিত্বে সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন। পরে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম সভাপতি গোলাম ফারুক পিংক ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়নকে সাধারণ সম্পাদক করে জেলা আওয়ামী লীগের কমিটি ঘোষণা দেন। গোলাম ফারুক পিংকু ও অ্যাডভোকেট নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন এর আগেও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বে ছিলেন।

এর আগে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ হেলিকপ্টারযোগে পুলিশ লাইনস মাঠে অবতরণ করেন। পরে সম্মেলন শেষে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেন নেতারা। সম্মেলন শুরুর আগে নেতা-কর্মীরা খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে সকাল ৭টা থেকে জেলা স্টেডিয়াম মাঠে আসতে শুরু করেন। কিছুক্ষণের মধ্যে হাজার হাজার নেতা-কর্মীর সমাগমের মধ্যে দিয়ে কানায় কানায় ভরে যায় জেলা স্টেডিয়াম মাঠ।