এই মাত্র
  • উপহারের গাড়ি আনতে হবিগঞ্জে যাচ্ছেন হিরো আলম
  • গভীর রাতে ছাত্রলীগ নেতাকে পিটুনি
  • সেই রনি এখন চা বিক্রেতা!
  • তুরস্ক-সিরিয়া সীমান্তে ভূমিকম্প: নিহতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১৩শ’
  • পদ্মা সেতুর নাট-বল্টু খোলা সেই বায়েজিদের জামিন
  • তুরস্কে ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা ১০ হাজার ছাড়াতে পারে
  • ভয়াবহ ভূমিকম্পে তুরস্ক-সিরিয়ায় ৫ শতাধিক মৃত্যু
  • আমার মন্তব্য ছিল ফখরুলকে নিয়ে, হিরো আলম নয়: ওবায়দুল কাদের
  • তুরস্ক-সিরিয়ায় শক্তিশালী ভূমিকম্প, নিহতের সংখ্যা ছাড়ালো ৩০০
  • তিন দিনের সফরে ঢাকায় বেলজিয়ামের রানি মাথিল্ডে
  • আজ সোমবার, ২৪ মাঘ, ১৪২৯ | ৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
    দেশজুড়ে

    রাবিতে দুই ছিনতাইকারীকে গণধোলাই, মোটরসাইকেলে আগুন

    user skarif
    প্রকাশ: ২৪ জানুয়ারি, ২০২৩ ১৩:২৮ পিএম

    অসীম কুমার সরকার, রাজশাহী জেলা প্রতিনিধি: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) মোবাইল ছিনতাই করে পালানোর সময় দুই ছিনতাইকারীকে আটক করে গণধোলাই দিয়েছেন বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা। এসময় ছিনতাইকারীদের সঙ্গে থাকা মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেয় শিক্ষার্থীরা। 

    রবিবার (২২ জানয়ারি) রাত সাড়ে ৮টায় এ ঘটনা ঘটে।

    বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর এসে ছিনতাইকারীদের অফিসে নিয়ে যায় ও রাত সাড়ে ১০টার দিকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। ছিনতাইকারী হলো-রাজশাহীর তেরোখাদিয়া ডাবতলা এলাকার শাকিল উদ্দিনের ছেলে শাহিন আহমেদ ধ্রুব (২০) এবং কোর্ট স্টেশনের রবিউল ইসলাম কালুর ছেলে মো: ফয়সাল (২০)।

    জানা যায়, জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং ও বায়োটেকনোলোজি বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী মো: রায়হানুল ফিরদাউসের মোবাইল ছিনতাই হয়। তিনি জানান, আমি আমীর আলী হলের প্রভোস্টের বাসভবনে সামনে দিয়ে মোবাইলে কথা বলতে বলতে সোহরাওয়ার্দী হলে ফেরার পথে পেছন দিক থেকে দ্রুতবেগে মোটরসাইকেল দিয়ে যাওয়ার সময় দুইজন ছিনতাইকারী আমার ফোন নিয়ে যায়। আমি পেছন থেকে ধর ধর বললে সামনে যারা ছিলো তারাও ধরার চেষ্টা করে। পরে শহীদ জিয়াউর রহমান হলের সামনে বেঞ্চে বসা থাকা কয়েকজন তাদের মোটরসাইকেলের দিকে বেঞ্চ ছুড়ে মারায় তারা পরে যায়। পরে সবাই উত্তেজিত হয়ে তাদের মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেয় এবং তাদের মারধর করার পরে প্রশাসনের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

    এ নিয়ে প্রক্টর অধ্যাপক আসাবুল হক বলেন, দুইজন মোবাইল ছিনতাইকারীকে জিয়া হলের সামনে আটক করা হয়েছে বলে খবর পাই। পরে সহকারী প্রক্টর ও পুলিশ প্রশাসনকে জানিয়ে ঘটনাস্থলে যাই। খবর পেয়ে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে আমরা তাদের উদ্ধার করতে পারলেও তাদের মোটরসাইকেল শিক্ষার্থীরা জ্বালিয়ে দেন। পরে আটকদের পুলিশে কাছে সোপর্দ করা হয়েছে।

    ক্যম্পাসে নিরাপত্তার বিষয়ে তিনি বলেন, আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ে বহিরাগতদের প্রবেশ বন্ধে কাজ করছি। ইতোমধ্যে ক্যাম্পাসে কয়েকটি প্রবেশপথে পুলিশ পাহারার ব্যবস্থা করেছি। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেকগুলো প্রবেশপথ থাকায় পুরোপুরি বহিরাগতদের প্রবেশ বন্ধ করা যায়নি। 

    রাজশাহী নগরীর মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন দুইজনকে আমাদের কাছে সোপর্দ করেছে। তারা এখন আমাদের হেফাজতে আছেন। তবে এবিষয়ে এখনো কোনো মামলা হয়নি। মামলা হলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
     

    ট্যাগ :

    ছিনতাইকারী

    সম্পর্কিত:

    চলতি সপ্তাহে সর্বাধিক পঠিত

    সর্বশেষ প্রকাশিত