এইমাত্র
  • ঈদুল আজহাতেই রিজার্ভ বাড়ল ৩১ কোটি ৮৩ লাখ ডলার
  • অস্ট্রেলিয়াকে ১৪১ রানের টার্গেট দিল টাইগাররা
  • হজের প্রথম ফিরতি ফ্লাইটে দেশে ফিরলেন ৪১৭ হাজি
  • টসে হেরে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ
  • দুপুরে ভারত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী
  • ঈদে ৭ খামার থেকে ৭০ লাখ টাকার গরু কেনেন সেই ইফাত
  • এরপর গুলি করলে আমরাও পাল্টা গুলি করব: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
  • সুনামগঞ্জ পুলিশের উদ্যোগে বন্যার্তদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ
  • শ্রমিক-মালিক স্বার্থ রক্ষায় শ্রম আইন হালনাগাদ হচ্ছে: শ্রম প্রতিমন্ত্রী
  • সৌদিতে মৃত হজযাত্রীর সংখ্যা ৯০০ ছাড়িয়েছে, নিখোঁজ অনেকে
  • আজ শুক্রবার, ৭ আষাঢ়, ১৪৩১ | ২১ জুন, ২০২৪
    দেশজুড়ে

    আনন্দ মেলার নামে চলছে লটারি, জুয়া ও নগ্ন নৃত্য!

    জাহিদ হোসাইন, সাতক্ষীরা প্রতিনিধি প্রকাশ: ১৩ মার্চ ২০২৩, ০৫:২৬ পিএম
    জাহিদ হোসাইন, সাতক্ষীরা প্রতিনিধি প্রকাশ: ১৩ মার্চ ২০২৩, ০৫:২৬ পিএম

    আনন্দ মেলার নামে চলছে লটারি, জুয়া ও নগ্ন নৃত্য!

    জাহিদ হোসাইন, সাতক্ষীরা প্রতিনিধি প্রকাশ: ১৩ মার্চ ২০২৩, ০৫:২৬ পিএম

    সাতক্ষীরার তালায় কবি সিকান্দার আবু জাফরের জন্ম জয়ন্তী উপলক্ষ্যে আনন্দ মেলার নামে চলছে উঠাও বাচ্চা লটারি। সেই সাথে পাল্লা দিয়ে চলছে জুয়া ও অশ্লীল নৃত্য।

    স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সাতক্ষীরার তালা উপজেলায় চলছে সিকান্দার মেলা। মাস ব্যাপী এই মেলায় উঠাও বাচ্চা লটারি জমজমাট হয়ে উঠেছে। সাথে নগ্ন নৃত্য আর যাত্রাপালার গোপন কক্ষে অসামাজিক কার্যকলাপ চলছে রমরমা। প্রতিদিন ১৫০/২০০ ইজিবাইক, ভ্যান লটারির কুপন বিক্রি করতে বের হচ্ছে প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে।

    লোভনীয় চটকদার রেকর্ডিং সাউন্ড বাজিয়ে সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত প্রতিটি গাড়ি ৪ থেকে ৫ হাজার টিকিট বিক্রি করছে। প্রতিটি কুপনের মূল্য ২০ টাকা। আর প্রাইজ থাকছে নামীদামী মোটরসাইকেল। এর আগে বিগত সময়ে এ র‌্যাফেল ড্রকে উঠাও বাচ্চা বলে পরিচিতি লাভ করলেও এখন কৌশলী হয়ে আগে থেকে গোপনে নির্দিষ্ট করে রাখা লোক দিয়ে ড্র পরিচালনা করছে। যার ফলে বিক্রিত কুপন আর প্রাইজ নিজেদের পাতানো এক অভিনব প্রতারণায় প্রতারিত হচ্ছেন মানুষ।

    এভাবে প্রতিদিন ৫০ থেকে ৬০ লক্ষ টাকার লটারি কুপন বিক্রি হচ্ছে। যে কুপন বিক্রি বা র‌্যাফেল ড্র নিয়ে ওপেন সিক্রেট তার কোন বৈধতা বা অনুমোদন নেই। অননুমোদিত র‌্যাফেল ড্র-র পুরস্কার দেওয়া হচ্ছে মাত্র ২ থেকে ৩ লক্ষ টাকার। আর মাত্র ২০ টাকার বিনিময়ে মোটরসাইকেল পাওয়ার আসায় ভ্যানচালক, দিনমজুর গরীব অসহায় পরিবারের গৃহকর্তরা সঞ্চিত হাঁস-মুরগীর ডিম, চাউল ইত্যাদি বিক্রি করে প্রতিদিন জনপ্রতি কমপক্ষে ৫টি কুপন ক্রয় করছে।

    যার ফলে প্রান্তিক পর্যায়ের সহজ সরল মানুষেরা সর্বস্ব দিয়ে টিকিট কিনে প্রতিদিনই প্রতারিত হলেও প্রতারক চক্র রয়েছে বহাল তরিয়তে। সামনে রমজান ও এসএসসি পরীক্ষা, অপরদিকে দ্রব্যমূল্যের এই উর্দ্ধগতিতে আমজনতা লটারির কুপন কিনে সর্বশান্ত হচ্ছেন। আর এই টাকার ভাগ পৌঁছে যাচ্ছে নীতি নির্ধারকদের কাছে। ফলে একদিকে র‌্যাফেল ড্র, অন্যদিকে যাত্রা ও সার্কাসের আড়ালে রমরমা জুয়া ও অসামাজিক কর্মকান্ড চলছে তো চলছেই।

    রাত যত গভীর হয় মেলা প্রাঙ্গণে সমাজ ব্যবস্থা ধ্বংস করতে উঠতি বয়সের যুবকদের উৎফলিত করা হচ্ছে। গ্রামীণ যাত্রাপালা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করার কথা থাকলেও স্থানীয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠ দখল করে প্যান্ডেল করেই সীমাবদ্ধ রয়েছে কার্যক্রম। ক্ষমতাসীন দল ও স্থানীয় ছাত্রলীগের ছত্রছায়ায় প্রতিরাতে জুয়া ও নৃত্য চলায় সচেতন অভিভাবক মহল চরম উদ্বিগ্ন। সাতক্ষীরা শহরের রাজ্জাক পার্ক এলাকায় ভাড়া বাসা নিয়ে সারা দেশ থেকে জুয়াড়িদের একত্রিত করে মানিক সিকদার নামের এক ব্যক্তি সবাইকে উৎকোচ দিয়ে মেলার নামে এই কার্যক্রম পরিচালনা করছেন।

    নাম প্রকাশ না করার শর্তে তালার ছাত্রলীগের এক নেতা বলেন, 'উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মিলন রায় ও জেলা ছাত্রলীগের এক নেতার ছত্রছায়ায় লটারী, জুয়া ও নগ্ন নৃত্য চলছে।'

    মানিক সিকদার মুঠোফোনে বলেন, শতশত আর একটি ছাত্র সংঠনের ৩শ ছাত্র আছে তার সাথে। তবে জুয়া ও নৃত্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। র‌্যাফেল ড্র অনুমোদন আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, 'কোন অনুমোদন নেই, মৌখিক অনুমোদন আছে। আপনারা যা খুশি তাই লেখেন!' দুর্ধষ আন্তঃজেলা জুয়াড়ি চক্রের অন্যতম হোতা এই মানিক সিকদার। বয়স ৮০ ছুই ছুই। সাতক্ষীরা জেলার মাটিতে দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন দেশীয় উৎসবকে পুঁজি করে জুয়া পরিচালনা করলেও তার টিকিট কেউ ছুতে পারে না। গত মাসে সাতক্ষীরার কালিগঞ্জে র‌্যাফেল ড্র পরিচালনা করে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।

    তালা থানার ওসি রেজাউল করিম বলেন, 'মেলা কমিটি অনুমতি নিয়ে মেলা চালাচ্ছে।' লটারি, জুয়া ও অশ্লীল নৃত্য কিভাবে চলছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি ছুটিতে আছি। এসে ব্যবস্থা নেবো। এছাড়া রোজার আগে মেলা বন্ধ হয়ে যাবে।

    তালা উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) রুহুল কুদ্দুস বলেন, 'মেলার অনুমতি থাকলেও লটারী বা নগ্ননৃত্যের অনুমতি নেই। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।'

    এআই

    ট্যাগ :

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    চলতি সপ্তাহে সর্বাধিক পঠিত

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…