এইমাত্র
  • ঈদুল আজহাতেই রিজার্ভ বাড়ল ৩১ কোটি ৮৩ লাখ ডলার
  • অস্ট্রেলিয়াকে ১৪১ রানের টার্গেট দিল টাইগাররা
  • হজের প্রথম ফিরতি ফ্লাইটে দেশে ফিরলেন ৪১৭ হাজি
  • টসে হেরে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ
  • দুপুরে ভারত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী
  • ঈদে ৭ খামার থেকে ৭০ লাখ টাকার গরু কেনেন সেই ইফাত
  • এরপর গুলি করলে আমরাও পাল্টা গুলি করব: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
  • সুনামগঞ্জ পুলিশের উদ্যোগে বন্যার্তদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ
  • শ্রমিক-মালিক স্বার্থ রক্ষায় শ্রম আইন হালনাগাদ হচ্ছে: শ্রম প্রতিমন্ত্রী
  • সৌদিতে মৃত হজযাত্রীর সংখ্যা ৯০০ ছাড়িয়েছে, নিখোঁজ অনেকে
  • আজ শুক্রবার, ৭ আষাঢ়, ১৪৩১ | ২১ জুন, ২০২৪
    দেশজুড়ে

    পটুয়াখালীতে জেলা প্রশাসকের সাইনবোর্ড উপড়ে ফেলে সরকারী জমি দখল !

    জাহিদ রিপন, পটুয়াখালী প্রতিনিধি প্রকাশ: ৯ জুন ২০২৩, ০৬:১৩ পিএম
    জাহিদ রিপন, পটুয়াখালী প্রতিনিধি প্রকাশ: ৯ জুন ২০২৩, ০৬:১৩ পিএম

    পটুয়াখালীতে জেলা প্রশাসকের সাইনবোর্ড উপড়ে ফেলে সরকারী জমি দখল !

    জাহিদ রিপন, পটুয়াখালী প্রতিনিধি প্রকাশ: ৯ জুন ২০২৩, ০৬:১৩ পিএম

    পটুয়াখালীর রাংগাবালীর তক্তাবুনিয়া বাজারে সরকারের মুল্যবান খাস খতিয়ানভূক্ত জমি দখল করে তোলা হচ্ছে দোকানঘর। আর এ জমি দখলে উপড়ে ফেলা হয়েছে জেলা প্রশাসকের নিষেধাজ্ঞার সাইনবোর্ড। ইউনিয়ন ভুমি অফিস থেকে মাত্র ১০ গজ দূরে প্রকাশ্যে দিনের বেলায় এসব দোকানঘর তোলা হচ্ছে।

    সরেজমিনে (৯মে শুক্রবার) দেখা যায়, ৫-৭ জন কাঠমিস্ত্রি কাজে লাগিয়ে দ্রুত ঘর তুলছেন বড়বাইশদিয়া ইউনিয়নের তক্তাবুনিয়া বাজারের বাবলু হাওলাদারের ছেলে বিপ্লব হাওলাদার। এরই পাশে ঘর তোলার জন্য কাঠের সীমানা বাঊন্ডারী দিয়েছেন শুক্কুর আলী শিকদার।

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয়রা জানান, ২০মে জেলা প্রশাসকের নিষেধাজ্ঞার সাইনবোর্ড তুলে ঘর তোলা শুরু করে বিপ্লব হাওলাদার। স্থানীয় দুই প্রভাবশালীর সহায়তায় এ ঘর তুলছে বিপ্লব। গণমাধ্যমকর্মীদের বাঁধার মুখে এদিন চালিতাবুনিয়া ইউনিয়ন ভূমি অফিসের তহশিলদার কাজ বন্ধ করে দেন। এবং উত্তোলন করা ঘর ভেংগে ফেলা হবে বলে তাদের আস্বস্তও করেন। কিন্তু অর্ধেক উত্তোলিত সে ঘর অপসারনে কার্যকরী ব্যবস্থা নেয়নি চালিতাবুনিয়া ইউনিয়ন ভূমি অফিস।

    এবিষয়ে জানতে চালিতাবুনিয়া ইউনিয়ন ভূমি অফিসের তহশিলদার তারেককে মুঠোফোনে একাধিকবার কল দিলেও তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। রাংগাবালীর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) সালেক মুহিদ ফোন রিসিভ না করায় তার বক্তব্য জানা যায়নি।

    জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ ওবায়দুর রহমান ঘর উত্তোলনের ছবিসহ বিস্তারিত ডকুমেন্টস তার হোয়াটআপে পাঠাতে বলে বলেন, ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

    পিএম

    ট্যাগ :

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    চলতি সপ্তাহে সর্বাধিক পঠিত

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…