এইমাত্র
  • ফখরুলের মুখে মানুষের জানমালের নিরাপত্তা ‘ভূতের মুখে রাম নাম’
  • ত্রিশালে স্কুল-মাদ্রাসা কবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত
  • ৪ ঘণ্টা পর ঢাকার সঙ্গে উত্তরাঞ্চলের ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক
  • টাঙ্গাইলে বিকল হওয়া কমিউটার ট্রেন উদ্ধার
  • কালীগঞ্জে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় প্রাণ গেল কলেজছাত্রের
  • অবশেষে বাড়লো বিদ্যুতের দাম
  • ইতিহাসে ৩০ ফেব্রুয়ারি যেভাবে একবারই এসেছিল
  • নামাজে যাওয়ার পথে গাড়ির ধাক্কায় প্রাণ গেল শিক্ষকের
  • জয়পুরহাটে হত্যা মামলায় ৯ জনের যাবজ্জীবন
  • ‘বিদেশিদের কথায় বিএনপির আন্দোলন নির্ভর করে না’
  • আজ বৃহস্পতিবার, ১৬ ফাল্গুন, ১৪৩০ | ২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
    দেশজুড়ে

    জামিন না পেয়ে আদালতেই বিচারককে জুতা নিক্ষেপ আসামির

    সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক প্রকাশ: ২৯ নভেম্বর ২০২৩, ১০:৪৯ এএম
    সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক প্রকাশ: ২৯ নভেম্বর ২০২৩, ১০:৪৯ এএম

    জামিন না পেয়ে আদালতেই বিচারককে জুতা নিক্ষেপ আসামির

    সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক প্রকাশ: ২৯ নভেম্বর ২০২৩, ১০:৪৯ এএম

    নয় মাস কারাগারে থেকেও জামিন না পেয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে স্বয়ং আসামি এজলাসেই বিচারককে জুতা নিক্ষেপ করার অপ্রীতিকর এক ঘটনা ঘটেছে। জামিনের জন্য বিচারকের কাছে আবেদন করেছিলেন আসামি মো. মনির খান। কিন্তু জামিন মঞ্জুর না রাখার ক্ষোভে বিচারকাজ চলাকালীনই এই কাণ্ড ঘটিয়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর এলাকার এই বাসিন্দা।

    মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) নজিরবিহীন এই ঘটনাটি ঘটেছে চট্টগ্রামে বিভাগীয় সাইবার ট্রাইবুন্যাল আদালতে। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেপ্তার হওয়া আসামি মনির খান মাইকেল বিচারক জহিরুল কবিরকে লক্ষ্যে করে জুতা ছুড়ে মারেন।

    এ বিষয়ে চট্টগ্রামে বিভাগীয় সাইবার ট্রাইবুন্যালের পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরীর কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, বিচারক জহিরুল কবির এজলাসে আসন গ্রহণ করার পরপরই আসামি এ অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটান। এ সময় বিচারককে উদ্দেশ্য করে আসামি বলেন, তাকে জামিন দিচ্ছেন না এই বিচারক। এই বলে তিনি বিচারককে লক্ষ্য করে জুতা ছুড়ে মারেন। ঘটনার পরপরই কর্তব্যরত পুলিশ তাকে জাপটে ধরে নিজেদের হেফাজতে নেয়। এরপর বিচারক এজলাস থেকে নেমে আর বিচার কার্যক্রম পরিচালনা করেননি।

    মামলা সূত্রে জানা যায়, মো. মনির খান মাইকেল নামীয় নিজের ফেসবুক আইডি থেকে দুটি লাইভ করেন তিনি। যেখানে তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, সাবেক রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ দেশের শীর্ষ রাজনীতিবিদদের নামে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভিডিওতে আশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করে মানহানিকর এবং মিথ্যা তথ্য প্রচার করেন।

    পরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর থানার উপ–পরিদর্শক (এসআই) তপু সাহা বাদী হয়ে ২০২১ সালে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে এ মামলা দায়ের করেন।

    এদিন আসামির পক্ষে জামিন আবেদন করেছিলেন তার নিয়োজিত আইনজীবী। তবে এ ঘটনার পর ওই আইনজীবী আদালতকে লিখিতভাবে জানান আসামি পক্ষে তিনি আর মামলা পরিচালনা করতে চান না।

    এআই

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…