এইমাত্র
  • সাতক্ষীরায় উপজেলা জামায়াতের আমির গ্রেপ্তার
  • অশ্লীল অঙ্গভঙ্গির কারণে নিষিদ্ধ হলেন রোনালদো
  • অবশেষে পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদের অধিবেশন শুরু
  • রমজানে আল-আকসায় নামাজ পড়তে দেওয়ার আহ্বান যুক্তরাষ্ট্রের
  • সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে সিএনজি-মাইক্রোবাসের সংঘর্ষ, নিহত ১
  • আগামী ৩ দিন বৃষ্টির সম্ভাবনা নিয়ে যা বললো আবহাওয়া অফিস
  • ৫০ কোটি টাকা দিয়ে ড. ইউনূসকে আপিল করতে হবে: হাইকোর্ট
  • দিনাজপুরে হত্যা মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন
  • মালয়েশিয়ায় ১৩৪ বাংলাদেশিসহ ২৩২ অবৈধ অভিবাসী গ্রেপ্তার
  • স্বামীকে জিম্মি করে গর্ভবতী স্ত্রীকে ধর্ষণ, মারা গেছে গর্ভের সন্তান
  • আজ বৃহস্পতিবার, ১৬ ফাল্গুন, ১৪৩০ | ২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
    বিনোদন

    হিরো আলমের আয় বেড়েছে ২২ হাজার টাকা

    স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, সময়ের কণ্ঠস্বর প্রকাশ: ১০ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৯:১৪ পিএম
    স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, সময়ের কণ্ঠস্বর প্রকাশ: ১০ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৯:১৪ পিএম

    হিরো আলমের আয় বেড়েছে ২২ হাজার টাকা

    স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, সময়ের কণ্ঠস্বর প্রকাশ: ১০ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৯:১৪ পিএম

    আশরাফুল হোসেন আলম ওরফে হিরো আলমের আয় গত ১১ মাসের ব্যবধানে বেড়েছে মাত্র ২২ হাজার টাকা। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে বগুড়া-৪ আসন থেকে নির্বাচনে অংশ নিতে দাখিল করা হলফনামা থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

    হলফনামার বিষয়ে হিরো আলম বলেন, আমার নির্বাচন করতে টাকা লাগে না মানুষ ভালবেসে আমাকে ভোট দেন। আমার পোস্টার ব্যানারও আমারও ভক্তরা দিয়ে থাকেন। এবারও আমার মনোনয়ন ফি ভক্তরাই দিয়েছেন।

    এবারের হলফনামায় হিরো আলম উল্লেখ করেছেন, তার বছরে আয় ২ লাখ ৮০ হাজার টাকা। এর মধ্যে কৃষিজমি থেকে ৬ হাজার এবং মিডিয়া ব্যবসা থেকে বাকি টাকা আসে। ব্যাংকে জমা আছে ৩০ হাজার টাকা। স্ত্রীর নামে রয়েছে ১০ ভরি স্বর্ণালংকার। আছে ৫৫ লাখ টাকার পারিবারিক সঞ্চয়পত্র। সব মিলিয়ে গত ১১ মাসে মিডিয়া ব্যবসা থেকে তার আয় বেড়েছে ২২ হাজার টাকা।

    এ বছরের ১ ফেব্রুয়ারি বগুড়া-৪ আসনে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এই উপনির্বাচনে গাড়ির কথা উল্লেখ করলেও এবারের হলফনামায় গাড়ির ব্যাপারে কোনো তথ্য নেই। এছাড়া তার কোনো ঋণ নেই এবং একটি মামলা ছিল সেটিও নিষ্পত্তি হয়েছে।

    ২০১৮ সালের জাতীয় নির্বাচনে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন চেয়েছিলেন তিনি। তবে দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে পরাজিত হন হিরো আলম।

    গত বছরের ১০ ডিসেম্বর বিএনপির ৬ জন সংসদ সদস্য পদত্যাগের ঘোষণা দেন। পরে বিএনপির দখলে থাকা বগুড়া-৪ ও বগুড়া-৬ (সদর) আসনের উপনির্বাচনে আবারও অংশ নেন হিরো আলম। এ বছরের ১ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত ওই উপনির্বাচনে একতারা প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে ভোটের রাজনীতিতে ব্যাপক আলোচনায় আসেন এই ইউটিউবার।

    বগুড়া-৬ আসনে জামানত হারালেও বগুড়া-৪ আসনে দেখান অভাবনীয় চমক। মাত্র ৮৩৪ ভোটে মহাজোটের প্রার্থী রেজাউল করিম তানসেনের কাছে পরাজিত হন তিনি।

    এফএস

    ট্যাগ :

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…