এইমাত্র
  • বঙ্গবাজার মার্কেটসহ ৪ প্রকল্প উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
  • রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ২৫
  • বঙ্গোপসাগরে গভীর নিম্নচাপ, বিকেলের মধ্যে রূপ নিতে পারে ঘূর্ণিঝড়ে
  • ভালুকায় বাসচাপায় স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু
  • ঝিকরগাছায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১
  • টাঙ্গাইলে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২
  • টেকনাফে দোকান কর্মচারীর পরিকল্পনায় দুই ব্যবসায়ী অপহৃত
  • কাশিমপুর কারাগারে পাকিস্তানি নাগরিকের মৃত্যু
  • সিলেটে সাড়ে ৪ মাসে কৈলাসটিলা-৮ কূপে গ্যাসের সন্ধান
  • জাতীয় কবির জন্মদিন আজ
  • আজ শনিবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ | ২৫ মে, ২০২৪
    রাজনীতি

    দেশে বাকশাল কায়েম করেছে সরকার: মির্জা ফখরুল

    রবিউল এহ্সান রিপন, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি প্রকাশ: ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:১৩ পিএম
    রবিউল এহ্সান রিপন, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি প্রকাশ: ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:১৩ পিএম

    দেশে বাকশাল কায়েম করেছে সরকার: মির্জা ফখরুল

    রবিউল এহ্সান রিপন, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি প্রকাশ: ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:১৩ পিএম

    ৭৫ এ আওয়ামী সরকার বাকশাল কায়েম করেছিল, তার পুনরাবৃত্তি করে আজ আবারো তারা দেশে বাকশাল কায়েম করছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

    রুহিয়া থানা বিএনপির আয়োজনে রোববার বিকেলে রুহিয়ায় জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম তৈমুর রহমানের স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন ।

    মির্জা আলমগীর বলেন, দেশে আজ কোন স্বাধীনতা নেই। দেশের মানুষ আজ দেশের ভেতরেই পরাধীনভাবে জীবন যাপন করছে। বিরোধী দল করলেই বা বিরোধী মতের হলেই আজ দেশের সাধারণ মানুষকেও এ দেউলিয়া সরকার আসামী বানিয়ে দেয়। এ ফ্যাসিষ্ট সরকার সাধারণ মানুষের বেঁচে থাকার সব অধিকার গুলি হরণ করেছে।

    সরকারের দেউলিয়া হওয়া নিয়ে তিনি বলেন, এ সরকার আজ দেউলিয়া হয়ে গিয়েছে যার প্রমান মেলে তাদের রাষ্ট্র পরিচালনা দেখে। তারা রাষ্ট্র যন্ত্র ছাড়া কোন কাজই করতে পারেনা। তারা এমন দেউলিয়া হয়ে গিয়েছে যে আজ পুলিশ দিয়ে দেশ পরিচালনা করতে হচ্ছে তাদের। তাদের দেউলিয়াত্ব এতটাই বেড়েছে যে তা ঢাকতে তারা এমন তামাশার নির্বাচন করেছে। ১৪ সালে সাধারণ মানুষ নির্বাচন থেকে মুখ ফিরিয়ে নিলেও তারা জ¦য়ী হয়, আবার ১৮ এর নির্বাচন তারা আগের রাতেই করে ফেলে , এবার ডামি প্রার্থী দিয়ে ডামি নির্বাচন করেছে। আওয়ামীলীগ আর আওয়ামীলীগ নেই তারা আজ পুরো দেউলিয়া হয়ে গিয়েছে।

    মির্জা ফখরুল আরোও বলেন, আমার নামে ১ শ ১১ টি মামলা রয়েছে আর আমাকে জেলে যেতে হয়েছে প্রায় ১১ বার। এ বৃদ্ধ বয়সেও আমাকে এমন হাস্যকর মামলা গুলো দিয়ে হেনস্থা করছে তারা। মেগা প্রজেক্ট এর নামে মেগা দূর্ণিতী গুলোর বিষয়ে আমরা কথা বলি তাই এমন হাস্যকর মামলা খেতে হচ্ছে আমাদের। দেশের ব্যাংক গুলোকে এ সরকার শেষ করে দিয়েছে। নানা সরকারী বেসরকারী নিয়োগের টাকা খেয়ে আর ব্যাংক এর টাকা চুরি করেই এ সরকার আর সরকারের লোকেরা টিকে থাকছে। আমরা এমন দেশ চাইনি। এমন দেশ গড়ার জন্যও আমরা যুদ্ধ করিনি।

    বেগম জিয়া সম্পর্কে তিনি বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ভিষণ অসুস্থ্য। তার অতিসত্তর লিভার ট্রান্সপ্লান্ট করা খুব জরুরি। নাহলে তাকে আর বাঁচানো যাবেনা। অথচ তার চিকিৎসা নিয়েও সরকার নানা টালবাহানা করছে।

    পরিশেষে ঠাকুরগাঁও জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম তৈমুর রহমানের কথা স্মৃতিচারণ করে তিনি বলেন, আমরা প্রায় ৩২ বছর এক সাথে পথ চলেছি। আমি রাজনীতি করতে গিয়ে দূরে চলে গেলাম আর ঠাকুরগাঁওকে রেখে গেলাম তৈমুর সাহেবের কাছে। তিনি বেঁচে থাকতে বলতেন ,“এমন দেশ আমরা চাইনি আর এমন দেশ গড়ার জন্য আমরা যুদ্ধ করিনি। আমরা তাজা রক্ত দিয়ে যুদ্ধ করেছি দেশ আর দেশের মানুষকে স্বাধীন দেখতে। তা আর দেখতে পারছি না।”

    রুহিয়া থানা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুল জব্বারের সভাপতিত্বে এ সময় আরো বক্তব্য দেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মির্জা ফয়সল আমিন, অ্যাডভোকেট আব্দুল হালিম সহ দলটির অন্যান্য নেতা কর্মীরা।

    এমআর

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…