এইমাত্র
  • বঙ্গোপসাগরে গভীর নিম্নচাপ, বিকেলের মধ্যে রূপ নিতে পারে ঘূর্ণিঝড়ে
  • ভালুকায় বাসচাপায় স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু
  • ঝিকরগাছায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১
  • টাঙ্গাইলে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২
  • টেকনাফে দোকান কর্মচারীর পরিকল্পনায় দুই ব্যবসায়ী অপহৃত
  • কাশিমপুর কারাগারে পাকিস্তানি নাগরিকের মৃত্যু
  • সিলেটে সাড়ে ৪ মাসে কৈলাসটিলা-৮ কূপে গ্যাসের সন্ধান
  • জাতীয় কবির জন্মদিন আজ
  • কুষ্টিয়ায় পরকীয়ার জেরে যুবক খুন, আটক ৩
  • পবিত্র হজ পালন করতে গিয়ে ৫ বাংলাদেশির মৃত্যু
  • আজ শনিবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ | ২৫ মে, ২০২৪
    দেশজুড়ে

    ভারতে পাচারের শিকার ৪ বাংলাদেশি নারীকে দেড় বছর পর হস্তান্তর

    মো. জামাল হোসেন, বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি প্রকাশ: ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৪৪ পিএম
    মো. জামাল হোসেন, বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি প্রকাশ: ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৪৪ পিএম

    ভারতে পাচারের শিকার ৪ বাংলাদেশি নারীকে দেড় বছর পর হস্তান্তর

    মো. জামাল হোসেন, বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি প্রকাশ: ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৪৪ পিএম

    ভালো কাজের প্রলোভনে ভারতে পাচারের শিকার ৪ বাংলাদেশি নারীকে ভারত সরকারের দেয়া বিশেষ ট্রাভেল পারমিটে বেনাপোলে হস্তান্তর করেছে ভারতীয় পুলিশ।

    রবিবার দুপুরে ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ পাচার হওয়া নারীদের বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন।

    ফেরত আসা নারী হলেন, মুন্সিগঞ্জের মাওয়া এলাকার মিজানুরের মেয়ে মিম আক্তার (২০), পাবনার ফরিদপুর থানার আব্দুল কুদ্দুসের মেয়ে কোহিনুর (২৬), নেত্রকোনার কমলাকান্দা থানার আবু বক্কর সিদ্দিকের মেয়ে নুরনাহার (২২) ও ঢাকা সাভারের আব্দুল মান্নানের মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস ইতি (২১)।

    বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান বিশ্বাস বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ইমিগ্রেশন পুলিশের কার্যক্রম শেষে ফেরত আসা বাংলাদেশি নারীদের জাস্টিস এন্ড কেয়ার নামের একটি এনজিও সংস্থা গ্রহন করেছে পরিবারের কাছে পৌছে দিতে।

    জাস্টিস এন্ড কেয়ারের সিনিয়র প্রোগ্রামার অফিসার এবিএম মুহিত হোসেন জানান, ভালো কাজের প্রলোভনে সীমান্ত পথে চার বছর আগে দালালের মাধ্যমে তারা ভারতে যায়। সেখানে কাজ করার সময় অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে ভারতীয় পুলিশ তাদের আটক করে জেলে পাঠায়। পরে আইনী সহায়তা দিতে আদালত থেকে ছাড়িয়ে ভারতীয় গভার্মেন্ট সেন্টার হোম নামে একটি মানবাধিকার সংস্থা তাদের হেফাজতে নেয় । চার বছর পর দুই দেশের সরকারের সহযোগীতায় বিশেষ ট্রাভেল পারমিটে তারা দেশে ফেরার সুযোগ পায়। ফেরত আসা বাংলাদেশি নারীরা যদি পাচারকারীকে সনাক্ত করে আইনী সহায়তা চায় তাদের দেওয়া হবে বলে জানান নারীদের গ্রহনকারী এনজিও সংস্থা।

    এফএস

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…