এইমাত্র
  • কোটা আন্দোলনের কর্মসূচি ঠিক করে দিচ্ছে বিএনপি-জামায়াত: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
  • স্ত্রী-সন্তানের সামনেই লংকান ক্রিকেটারকে গুলি করে হত্যা
  • সন্ধ্যার পর ঢাবি প্রশাসন যে নির্দেশনা দেবে তাই করব: র‍্যাব
  • 'ছাত্রশিবির-ছাত্রদল এবং বহিরাগতরা ঢাবির হলে তাণ্ডব চালিয়েছে'
  • জবিতে হল প্রভোস্টকে অবরুদ্ধ, বঙ্গমাতা হল খোলা রাখার ঘোষণা
  • বিএনপির গায়েবানা জানাজা কর্মসূচিতে পুলিশের বাধা
  • শাবিপ্রবিতে আজীবন নিষিদ্ধ জাফর ইকবাল
  • সহিংসতা থামাতে মুশফিক-তামিমদের আকুতি
  • থানা থেকে দুই শিক্ষার্থীকে ছাড়িয়ে আনলেন ঢাবি শিক্ষকরা
  • লালমনিরহাটে কোটা সংস্কার আন্দোলনে সড়ক অবরোধ-বিক্ষোভ
  • আজ বুধবার, ২ শ্রাবণ, ১৪৩১ | ১৭ জুলাই, ২০২৪
    আন্তর্জাতিক

    প্রেসিডেন্ট হলে বিদেশি গ্র্যাজুয়েটদের গ্রিন কার্ড দেবেন ট্রাম্প!

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক প্রকাশ: ২১ জুন ২০২৪, ০৮:২৫ পিএম
    আন্তর্জাতিক ডেস্ক প্রকাশ: ২১ জুন ২০২৪, ০৮:২৫ পিএম

    প্রেসিডেন্ট হলে বিদেশি গ্র্যাজুয়েটদের গ্রিন কার্ড দেবেন ট্রাম্প!

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক প্রকাশ: ২১ জুন ২০২৪, ০৮:২৫ পিএম

    পুনরায় যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে মার্কিন কলেজের বিদেশি গ্রাজুয়েট বা স্নাতকদের গ্রিন কার্ড দেয়ার কথা জানিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। নির্বাচনের আগে দেশটির সাবেক এই প্রেসিডেন্টের এমন ঘোষণাকে ‘অপ্রত্যাশিত’ হিসেবেও দেখছেন কেউ কেউ। কারণ অভিবাসন বিষয়ে বরাবরই কঠোর অবস্থানের জন্য পরিচিত ট্রাম্প।

    স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (২০ জুন) সিলিকন ভ্যালি টেক ইনভেস্টরদের সঙ্গে এক পডকাস্ট সাক্ষাৎকারে, যুক্তরাষ্ট্রে মেধাবীদের থাকার প্রক্রিয়া সহজ করার প্রতিশ্রুতি দেন ট্রাম্প। বলেন, মার্কিন কোনো কলেজ থেকে স্নাতক সম্পন্নকারীদের অবশ্যই যুক্তরাষ্ট্রে থাকার সুযোগ দেয়া উচিত।

    চামাথ পালিহাপিটিয়া, জেসন ক্যালাকানিস, ডেভিড স্যাক্স এবং ডেভিড ফ্রাইডবার্গের হোস্ট করা অল-ইন ওই পডকাস্টে ট্রাম্প আরও বলেন,

    এটা খুবই দুঃখজনক যে, আমরা হার্ভার্ড, এমআইটির মতো সেরা প্রতিষ্ঠান থেকে স্নাতক করা বিদেশিদের হারিয়ে ফেলি।

    ডিপ্লোমার অংশ হিসেবে স্বয়ংক্রিয়ভাবেই বিদেশি স্নাতকদের গ্রিন কার্ড পাওয়া উচিত বলেও মনে করেন ট্রাম্প। যাতে এসব গ্রাজুয়েট যুক্তরাষ্ট্রে থাকতে পারে।

    একটি গ্রিন কার্ড ব্যক্তিদের মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ীভাবে বসবাস এবং কাজ করার অধিকার দেয়। পাশাপাশি নাগরিকত্ব পাওয়ার পথও খুলে দেয়।

    এদিকে, নতুন এই প্রস্তাবের মাধ্যমে অভিবাসন ইস্যুতে নিজের কঠোর অবস্থান থেকে সরে আসলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এতে নিজ দল রিপাবলিকান পার্টির পাশাপাশি জনগণের কাছেও তার গ্রহণযোগ্যতা বাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে।

    এমএইচ

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…