এইমাত্র
  • ফখরুলের মুখে মানুষের জানমালের নিরাপত্তা ‘ভূতের মুখে রাম নাম’
  • ত্রিশালে স্কুল-মাদ্রাসা কবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত
  • ৪ ঘণ্টা পর ঢাকার সঙ্গে উত্তরাঞ্চলের ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক
  • টাঙ্গাইলে বিকল হওয়া কমিউটার ট্রেন উদ্ধার
  • কালীগঞ্জে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় প্রাণ গেল কলেজছাত্রের
  • অবশেষে বাড়লো বিদ্যুতের দাম
  • ইতিহাসে ৩০ ফেব্রুয়ারি যেভাবে একবারই এসেছিল
  • নামাজে যাওয়ার পথে গাড়ির ধাক্কায় প্রাণ গেল শিক্ষকের
  • জয়পুরহাটে হত্যা মামলায় ৯ জনের যাবজ্জীবন
  • ‘বিদেশিদের কথায় বিএনপির আন্দোলন নির্ভর করে না’
  • আজ বৃহস্পতিবার, ১৬ ফাল্গুন, ১৪৩০ | ২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
    রাজনীতি

    প্রধান বিচারপতির কাছে স্মারকলিপি দিলো বিএনপি, কী লেখা সেখানে?

    সময়ের কণ্ঠস্বর রিপোর্ট প্রকাশ: ২৮ নভেম্বর ২০২৩, ০৩:৪৩ পিএম
    সময়ের কণ্ঠস্বর রিপোর্ট প্রকাশ: ২৮ নভেম্বর ২০২৩, ০৩:৪৩ পিএম

    প্রধান বিচারপতির কাছে স্মারকলিপি দিলো বিএনপি, কী লেখা সেখানে?

    সময়ের কণ্ঠস্বর রিপোর্ট প্রকাশ: ২৮ নভেম্বর ২০২৩, ০৩:৪৩ পিএম

    ফরমায়েশি ও গায়েবি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত ও কারাবন্দিদের মুক্তির দাবিতে প্রধান বিচারপতির কাছে স্মারকলিপি দিয়েছে বিএনপি। মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) দুপুরে দলের পক্ষ থেকে কয়েকজন আইনজীবী এই স্মারকলিপি প্রদান করেন।

    বিএনপির মিডিয়া সেলের সদস্য শায়রুল কবির খান এ তথ্য জানিয়েছেন।

    স্মারকলিপিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের সংবিধান অনুযায়ী, দেশের সব নাগরিক সমান। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে বিরোধী রাজনৈতিক নেতাকর্মী, বিশেষ করে বিএনপির নেতাকর্মীদের জন্য এ সংবিধানসিদ্ধ অধিকারটি যেন প্রযোজ্য নয়। যার প্রমাণ আমরা সর্বক্ষেত্রে দৃশ্যমান দেখতে পাচ্ছি। বর্তমান সরকার হয়রানি ও ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা গায়েকি মামলাকে বিরোধী দল দমনের প্রধান অবলম্বনে পরিণত করেছে। এই কাজে তারা রাষ্ট্রের পুলিশ ও বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থাকে দলীয় প্রতিষ্ঠান হিসেবে যথেচ্ছ ব্যবহার করছে। সরকার ও সরকারি দল বিচার বিভাগকে তাদের অপতৎপরতার প্রধান বাহনে পরিণত করেছে।

    মিথ্যা, ভুয়া, গায়েবি মামলায় স্বজনদের দীর্ঘদিন কারারুদ্ধ করে রাখা হয়েছে। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরীসহ সর্বস্তরের হাজার হাজার নেতাকর্মী মিথ্যা মামলায় কারারুদ্ধ। গ্রেফতারের পর তাদের অনেকের ওপর চালানো হয়েছে অমানুষিক নির্যাতন। অনেককে আটকের পর দীর্ঘদিন অজ্ঞাত স্থানে আটকে রাখা হয়েছে। সংবিধান ও ফৌজদারী কার্যবিধি অনুযায়ী গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে নিকটতম ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করার বিধান থাকলেও অধিকাংশ ক্ষেত্রে তা করা হচ্ছে না।

    পুলিশি হেফাজতে চালানো হচ্ছে নির্মম নির্যাতন। আবার অজ্ঞাত স্থান থেকে আদালতে হাজির করার পর পুলিশি রিমান্ডে নেওয়া হচ্ছে এবং রিমান্ডের নামে নির্যাতন করা হচ্ছে। নির্যাতন থেকে বাঁচাতে পরিবারের কাছ থেকে অবৈধ আর্থিক সুবিধা দাবি করা হচ্ছে। গ্রেফতারকৃত অনেককে নির্যাতন করে মিডিয়ার সামনে তথাকথিত স্বীকারোক্তিমূলক বক্তব্য প্রদান করতে বাধ্য করা হচ্ছে। অথচ সংবিধান ও প্রচলিত আইন এটি কোনোভাবেই অনুমোদন করে না।

    এতে আরও বলা হয়, বাংলাদেশের বর্তমান রাজনৈতিক বাস্তবতায় এক অসহনীয় পরিস্থিতিতে কারাবন্দি বিরোধী রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের পরিবারের সদস্যরা আপনার দ্বারস্থ হতে বাধ্য হয়েছি।

    বিএনপির মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাসের নামে ক্ষতিগ্রস্ত বিএনপি পরিবারের সদস্যদের পক্ষ থেকে এই স্মারকলিপি দেওয়া হয়। খালেদা জিয়া, ফখরুলসহ ৮৮ জন কারাবন্দি এবং সাজাপ্রাপ্ত নেতাদের তালিকাও দেওয়া হয় এতে।

    এর আগে দুপুরে রাজধানীর প্রেসক্লাবের সামনে কারাবন্দী বিরোধী দলসমূহের নেতা-কর্মীদের মুক্তির দাবিতে ‘রাজবন্দীদের স্বজন’ ব্যানারে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধন শেষে প্রধান বিচারপতির কাছে স্মারকলিপি দিতে যাত্রা শুরু করেন বিএনপির নেতা-কর্মীদের স্বজনেরা। তবে পুলিশ তাঁদের আটকে দেয়।

    মানববন্ধন ও প্রধান বিচারপতির কাছে স্মারকলিপি পেশের এই কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমান। এ ছাড়া ছিলেন কারাবন্দী বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের স্ত্রী ও মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস, আসিফা আশরাফী পাপিয়াসহ আরও অনেকে। স্মারকলিপি নিয়ে কিছু দূর আগানোর পরেই পুলিশ তাঁদের বাধা দেয়। পরে তাঁরা ফিরে যান।

    এসময় বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমান গণমাধ্যমকে জানান, বাধা দেয়ায় আমাদের ৪ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল স্মারকলিপি নিয়ে যাবে প্রধান বিচারপতির কাছে।

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…