এইমাত্র
  • পণ্য মজুতকারীদের গণধোলাই দেয়া উচিত: প্রধানমন্ত্রী
  • মাদারীপুরে এক্সপ্রেসওয়েতে বাস ও ট্রাকের সংঘর্ষে নিহত ৪
  • চিনির দাম বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত থেকে সরে এলো সরকার
  • বসন্ত বিকেলে স্বস্তির বৃষ্টিতে ভিজল ঢাকা
  • বিদেশি ঋণের চাপ আছে, তবে বেশি না: অর্থমন্ত্রী
  • রিয়া মণিকে নিয়ে প্রশ্ন করায় ক্ষেপলেন হিরো আলম
  • রোজার আগেই চিনির দাম বাড়লো কেজিতে ২০ টাকা
  • ‘বিএনপির আটক কর্মীদের মুক্তির সঙ্গে নির্বাচনের সম্পর্ক নেই’
  • বঙ্গবন্ধুর হাত ধরেই মাতৃভাষা ও স্বাধীনতা পেয়েছি: শেখ হাসিনা
  • সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আলতাফ চৌধুরীর জামিন, মুক্তিতে বাধা নেই
  • আজ শুক্রবার, ১০ ফাল্গুন, ১৪৩০ | ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

    রজব মাসে নবীজি যে দোয়া পড়তেন

    সময়েরকণ্ঠস্বর প্রকাশ: ২৭ জানুয়ারি ২০২৩, ১১:২৪ এএম
    সময়েরকণ্ঠস্বর প্রকাশ: ২৭ জানুয়ারি ২০২৩, ১১:২৪ এএম

    রজব মাসে নবীজি যে দোয়া পড়তেন

    সময়েরকণ্ঠস্বর প্রকাশ: ২৭ জানুয়ারি ২০২৩, ১১:২৪ এএম

    ইসলাম ডেস্ক- আরবি হিজরি বর্ষের সপ্তম মাস রজব। রজব মহিমান্বিত মাস। এর দুই মাস পরই রমজান শুরু হয়। তাই এই মাস থেকেই রমজান মাসের প্রস্তুতি নেওয়া শুরু করা সুন্নত।

    রাসুল (সা.) রজব মাস শুরু হলে রজব ও শাবান মাসের বরকত এবং রমজান মাস পর্যন্ত পৌঁছার জন্য দোয়া করতেন। দোয়াটি হলো : اللَّهُمَّ بَارِكْ لَنَا فِي رَجَبٍ، وَشَعْبَانَ، وَبَلِّغْنَا رَمَضَانَ
    উচ্চারণ: আল্লাহুম্মা বারিক লানা ফি রজাবা ওয়া শাবান, ওয়া বাল্লিগনা রমাদান।

    অর্থ: ?হে আল্লাহ, আমাদের রজব ও শাবান মাসে বরকত দিন এবং রমজানে পৌঁছে দিন।?

    হাদিস: আনাস (রা.) বলেন, রাসুল (সা.) রজব মাস শুরু হলে এই দোয়া পড়তেন। (আল মুজামুল আওসাত, হাদিস : ৩৯৩৯; বাইহাকি, হাদিস : ৩৫৩৪)

    প্রসিদ্ধ মতানুসারে এ মাসেই সংঘঠিত হয় ইসলামের ইতিহাসের অন্যতম তাৎপর্যবহ ঘটনা ?মেরাজ? তথা বিশ্বনবীর ঊর্ধ্বজগৎ পরিভ্রমণ। নবুওয়াত লাভের একাদশ বছর এ মাসের ২৬ তারিখ দিনগত রাতে আল্লাহর বিশেষ মেহমান হিসেবে আরশে আজিমে পরিভ্রমণ করেন তিনি। সেখানে আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের দিদার লাভ করেন এবং পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের হুকুম নিয়ে দুনিয়ায় প্রত্যাবর্তন করেন। সেখানে অবলোকন করেন সৃষ্টিজগতের অপার রহস্যময় অনেক বিষয়। এসব কারণে মুসলিম উম্মাহর কাছে এ মাসের গুরুত্ব আরও অনেক বেশি।

    আরবি যে কয়েকটি মাসের সঙ্গে ইসলামের বিভিন্ন আমলের সম্পৃক্ততা রয়েছে তন্মধ্যে রজব একটি গুরুত্বপূর্ণ মাস। আরবি ১২ মাসের চারটি মাসকে ?আশহুরুল হুরুম? তথা সম্মানিত মাস ঘোষণা করা হয়েছে।

    আল্লাহ তায়ালা বলেছেন, ?নিশ্চয় আকাশমণ্ডলী ও পৃথিবী সৃষ্টির দিন থেকেই আল্লাহর কাছে গণনায় মাস ১২টি, তন্মধ্যে চারটি মাস নিষিদ্ধ, এটাই সুপ্রতিষ্ঠিত বিধান। কাজেই এর মধ্যে তোমরা নিজেদের প্রতি জুলুম করো না এবং তোমরা মুশরিকদের সঙ্গে সর্বাত্মকভাবে যুদ্ধ কর, যেমন তারা তোমাদের বিরুদ্ধে সর্বাত্মকভাবে যুদ্ধ করে থাকে। আর জেনে রাখ, নিশ্চয় আল্লাহ মুত্তাকীদের সঙ্গে আছেন।? (সুরা তাওবা: ৩৬)।

    রাসুলুল্লাহ (সা) ইরশাদ করেছেন, ?১২ মাসে এক বছর। তার মধ্যে চারটি মাস সম্মানিত। তিনটি ধারাবাহিক জিলকদ, জিলহজ, মহররম এবং চতুর্থটি হলো রজব, যা জমাদিউস সানি ও শাবান মাসের মধ্যবর্তী মাস।? (বুখারি : ২/৬৭২)

    ট্যাগ :

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…