এইমাত্র
  • ইংল্যান্ডকে হারিয়ে সেমিফাইনালে এক পা দক্ষিণ আফ্রিকার
  • মতিউরের স্ত্রী লাকিও বিপুল সম্পদের মালিক
  • কুড়িগ্রামে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি
  • ভারতে পুলিশের ঠিকানা ভুলে ৬ বছরেরও বেশি জেলবন্দি তিন বাংলাদেশি!
  • যে দেশে এখন ২০১৬ সাল চলছে!
  • ভাঙন আতঙ্কে টাঙ্গাইলের সাত গ্রামের মানুষ
  • রাসেলস ভাইপার নিয়ে অতিরঞ্জিত আতঙ্ক ছড়ানো হচ্ছে, কি বলছেন চিকিৎসকরা?
  • ঢাকায় নিচতলায় স্বামী দোতলায় স্ত্রীর রক্তাক্ত লাশ
  • অপরাধের দুর্গ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে চলছে খুনোখুনি, বাড়ছে উদ্বেগ
  • রাসেল ভাইপার কামড়ালে কী করবেন?
  • আজ শনিবার, ৮ আষাঢ়, ১৪৩১ | ২২ জুন, ২০২৪
    রাজনীতি

    প্রতারণা ও ভণ্ডামির রাজনীতি করছে আওয়ামী লীগ: মির্জা ফখরুল

    মো. ফরহাদ হোসাইন, নীলফামারী প্রতিনিধি প্রকাশ: ২০ মার্চ ২০২৩, ০৬:০৭ পিএম
    মো. ফরহাদ হোসাইন, নীলফামারী প্রতিনিধি প্রকাশ: ২০ মার্চ ২০২৩, ০৬:০৭ পিএম

    প্রতারণা ও ভণ্ডামির রাজনীতি করছে আওয়ামী লীগ: মির্জা ফখরুল

    মো. ফরহাদ হোসাইন, নীলফামারী প্রতিনিধি প্রকাশ: ২০ মার্চ ২০২৩, ০৬:০৭ পিএম

    দেশে ভয়াবহ রাজনৈতিক সংকট সৃষ্টি হয়েছে। বর্তমান সরকার আমাদের সব অর্জনকে ধ্বংস করে দিয়েছে। আওয়ামী লীগ সবসময় মিথ্যা কথা বলে। তারা প্রতারণা ও ভণ্ডামির রাজনীতি করে এ দেশের মানুষকে ভুল পথে পরিচালিত করছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

    সোমবার (২০ মার্চ) বেলা ১১টার দিকে নীলফামারীর সৈয়দপুর পৌর কমিউনিটি সেন্টারের হলরুমে সৈয়দপুর রাজনৈতিক জেলা শাখার দ্বিবার্ষিক সম্মেলন উদ্বোধন শেষে প্রধান বক্তার বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

    বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে দুইটি জিনিস সফলভাবে করেছে। তার একটি হলো চুরি। রাষ্ট্রের সব সম্পদ তারা চুরি করে পাচার করে দিচ্ছে। আরেকটি হলো সন্ত্রাস।’

    তিনি বলেন, ‘দেশে একটি ভয়াবহ রাজনীতির সংকট তৈরি হয়েছে। আওয়ামী লীগ সব সময় মিথ্যা কথা বলে প্রতারণা ও ভণ্ডামির রাজনীতি করে দেশের মানুষকে ভুল পথে পরিচালিত করেছে। ২০১৪ সালে কোনো নির্বাচনই হয়নি, ১৫৪ জনকে বিনা প্রতিন্দ্বিতায় নির্বাচিত করা হয়েছে। আর ২০১৮ সালে আগের রাতে ভোট হয়েছে।’

    ফখরুল আরও বলেন, ‘ক্ষমতায় আসার পর রাষ্ট্রের সব প্রতিষ্ঠানকে তারা একে একে ধ্বংস করেছে। তারা জুডিসিয়ারিকে সম্পূর্ণভাবে নিয়ন্ত্রণ করছে। পার্লামেন্টকে তারা ধ্বংস করেছে। পার্লামেন্টে কোনো জবাবদিহিতা নেই। সংসদে কোনো বিতর্ক হয় না। দেশ সম্পর্কে কোনো আলোচনা হয় না। তারা আবার নতুন নির্বাচনের পাঁয়তারা শুরু করেছে। দেশের স্বার্থে এ নির্বাচনকে আমাদের অবশ্যই প্রতিহত করতে হবে। শেখ হাসিনা সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচনে বিএনপি যাবে না।’

    দীর্ঘ সাত বছর পর সৈয়দপুর পৌর কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট ওবায়দুল ইসলামের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি আছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন, রংপুর বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুল হাবিব দুলু, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল খালেক, সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ।

    জেলা বিএনপি সূত্রে জানা যায়, সর্বশেষ সৈয়দপুর সাংগঠনিক জেলা বিএনপির দ্বিবার্ষিক সম্মেলন হয় ২০১৬ সালে। এদিকে এ সম্মেলনেই কাউন্সিলরদের সরাসরি ভোটের মাধ্যমে সভাপতি ও সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচন করার কথা রয়েছে। তবে তার আগেই একজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে সরে দাঁড়ানোয় সাধারণ সম্পাদক পদে সৈয়দপুর উপজেলা বিএনপির সদস্য শাহিন আকতার বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

    সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বর্তমান সৈয়দপুর সাংগঠনিক জেলা কমিটির আহ্বায়ক আবদুল গফুর সরকার ও যুগ্ম আহ্বায়ক শওকত হায়াৎ শাহ। সাংগঠনিক সম্পাদক পদে প্রার্থী হয়েছেন উপজেলা বিএনপির সদস্য এম এ পারভেজ লিটন, আনোয়ার হোসেন প্রামাণিক ও মনোয়ার হোসেন মন্টু।

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…