এইমাত্র
  • আজ দে‌শের স‌র্বোচ্চ তাপমাত্রা চুয়াডাঙ্গায়
  • বাংলাদেশি পর্যটকদের ৩ দিন ভারত ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা
  • চার বিভাগে হিট অ্যালার্ট জারি আবহাওয়া অফিসের
  • খারকিভে চলছে ‘কঠিন লড়াই’: জেলেনস্কি
  • সবুজবাগে নির্মাণাধীন ভবনের মাচা ভেঙে নিহত ৩ শ্রমিক
  • আবারো চুয়াডাঙ্গায় তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি ছুঁই ছুঁই
  • চুয়াডাঙ্গায় সড়ক দুর্ঘটনায় বাইসাইকেল আরোহী নিহত
  • সিরাজগঞ্জে কভার্ডভ্যানে মিলল ২১৬ কেজি গাঁজা, গ্রেপ্তার ২
  • টাঙ্গাইলের ১৬ সরকারি অফিসে ওড়ে না জাতীয় পতাকা
  • ১০ হাজারের বেশি বাংলাদেশিকে ফেরত পাঠাবে যুক্তরাজ্য
  • আজ শনিবার, ৩ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ | ১৮ মে, ২০২৪
    অর্থ-বাণিজ্য

    কাল থেকে পিয়াজ আমদানির অনুমতি: কৃষি মন্ত্রণালয়

    সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক প্রকাশ: ৪ জুন ২০২৩, ১১:৩২ পিএম
    সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক প্রকাশ: ৪ জুন ২০২৩, ১১:৩২ পিএম

    কাল থেকে পিয়াজ আমদানির অনুমতি: কৃষি মন্ত্রণালয়

    সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক প্রকাশ: ৪ জুন ২০২৩, ১১:৩২ পিএম

    অস্বাভাবিকভাবে দাম বেড়ে যাওয়ায় সোমবার (৫ই জুন) থেকে পিয়াজ আমদানির অনুমতি দিয়েছে কৃষি মন্ত্রণালয়। রোববার কৃষি মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

    এতে বলা হয়, আগামীকাল (সোমবার) থেকে পিয়াজ আমদানির অনুমতি দেবে কৃষি মন্ত্রণালয়। পিয়াজের দাম অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে যাওয়ায় সীমিত আয়ের, শ্রমজীবী মানুষের কষ্ট লাঘবসহ সব ভোক্তার স্বার্থ রক্ষায় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে কৃষি মন্ত্রণালয়।

    জানা গেছে, সারা দেশে পিয়াজের দাম নিয়ে চলছে কারসাজি। মাসজুড়ে কেজিতে ৪০ টাকা বাড়িয়ে নিত্যপ্রয়োজনীয় এই পণ্যটি ৮০ থেকে সর্বোচ্চ ১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। অস্বাভাবিক এই মূল্য নিয়ন্ত্রণে আমদানির অনুমতি চেয়ে কৃষি মন্ত্রণালয়ে চিঠি দেয় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

    পরিস্থিতি বিবেচনায় মন্ত্রী আমদানির আশ্বাস দিলেও বাজার পর্যবেক্ষণের নামে সময় নেয় কৃষি মন্ত্রণালয়। এর মধ্যে বেশি দামে পিয়াজ বিক্রি করে অসাধু চক্র। গত এক মাসে ভোক্তার পকেট থেকে প্রায় কয়েক’শ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে তারা। এপ্রিলের শেষ দিকে পিয়াজের কেজি ৪০ টাকা ছিল। হঠাৎ করে মে মাসের শুরুর দিকে এর দাম কেজিতে ৪০ থেকে ৫০ টাকা বাড়িয়ে ৮০ থেকে ১০০ টাকা বিক্রি শুর হয়। ওই সময়ে চক্রটি কারসাজি করে অতিরিক্ত মুনাফা করেছে।

    সরকারি সংস্থা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) মূল্য তালিকা পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, এক মাসের ব্যবধানে প্রতি কেজি পিয়াজ ৪০ টাকা বেড়ে ৮০ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

    সংশ্লিষ্টরা বলেছেন, সুযোগ বুঝে অসাধু চক্র সিন্ডিকেট করে পিয়াজের দাম বাড়িয়েছে।

    তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে কোনো উদ্যোগ নেই। অথচ অসাধুরা যে কোনো অজুহাতে ভোক্তার পকেট কাটে। কিন্তু তাদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক কোনো কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হয় না।

    বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, দেশে বছরে পিয়াজের চাহিদা ২৪ লাখ টন। পিয়াজের সরবরাহ বৃদ্ধি করে বাজার পরিস্থিতি স্থিতিশীল করার উদ্যোগ গ্রহণ করা প্রয়োজন।

    এফএস

    ট্যাগ :

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…