এইমাত্র
  • 'ছাত্রশিবির-ছাত্রদল এবং বহিরাগতরা ঢাবির হলে তাণ্ডব চালিয়েছে'
  • বিএনপির গায়েবানা জানাজা কর্মসূচিতে পুলিশের বাধা
  • শাবিপ্রবিতে আজীবন নিষিদ্ধ জাফর ইকবাল
  • সহিংসতা থামাতে মুশফিক-তামিমদের আকুতি
  • থানা থেকে দুই শিক্ষার্থীকে ছাড়িয়ে আনলেন ঢাবি শিক্ষকরা
  • লালমনিরহাটে কোটা সংস্কার আন্দোলনে সড়ক অবরোধ-বিক্ষোভ
  • ফেনীতে শিক্ষার্থীদের মিছিলে ছাত্রলীগের হামলা, পুলিশসহ আহত ২০
  • ঝিনাইদহে ছাত্রদলের ঝটিকা বিক্ষোভ মিছিল
  • বিকেল সাড়ে ৪টার মধ্যে জবি শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ
  • চির চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন বেরোবি শিক্ষার্থী আবু সাঈদ
  • আজ বুধবার, ২ শ্রাবণ, ১৪৩১ | ১৭ জুলাই, ২০২৪
    খেলা

    সুপার এইটে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ভারতের সহজ জয়

    স্পোর্টস ডেস্ক প্রকাশ: ২১ জুন ২০২৪, ১২:১৫ এএম
    স্পোর্টস ডেস্ক প্রকাশ: ২১ জুন ২০২৪, ১২:১৫ এএম

    সুপার এইটে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ভারতের সহজ জয়

    স্পোর্টস ডেস্ক প্রকাশ: ২১ জুন ২০২৪, ১২:১৫ এএম

    আফগানিস্তানকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে সুপার এইটের মিশন শুরু করেছে ভারত। ব্যাটে-বলে এদিন রোহিত শর্মার দলের কাছে পাত্তাই পায়নি রশিদরা।

    কেনসিংটন ওভালে বৃহস্পতিবার (২০ জুন) গ্রুপ ওয়ানের ম্যাচে আফগানিস্তানকে ৪৭ রানে হারিয়েছে ভারত। ১৮২ রান তাড়া করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে সব কটি উইকেট হারিয়ে ১৩৪ রান তুলতে সক্ষম হয় রশিদরা। ভারতের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩টি করে উইকেট তুলে নেন জাসপ্রিত বুমরাহ ও আর্শদীপ সিং।

    রান তাড়ায় নেমে দ্বিতীয় ওভারেই উইকেট হারায় আফগানিস্তান । ৮ বলে ১১ রান করে বুমরাহর বলে এজ হয়ে রিশাভ পন্তের হাতে ধরা পড়েন রহমানউল্লাহ গুরবাজ। এরপর ক্রিজে স্থায়ী হতে পারেননি টপ অর্ডারের বাকি দুই ব্যাটারও। হযরতউল্লাহ জাজাই ৪ বলে ২ রান করে বুমরাহর আর ইব্রাহিম জাদরান ১১ বলে ৮ রান করে অক্ষর প্যাটেলের শিকার হন।

    মিডল অর্ডারে কিছুটা প্রতিরোধ গড়ে তোলার চেষ্টা হলেও সেটা খুব একটা কাজে আসেনি। গুলাবদিন নাইব ২১ বলে ১৭, আজমতউল্লাহ ওমরজাই ২০ বলে ২৬ ও নাজিবুল্লাহ জাদরান ১৭ বলে ১৯ রান করে আউট হন। দলের সংগ্রহ তখন ১৫.২ ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে ১০২ রান। শেষদিকে মোহাম্মদ নবির ১৪ বলে ১৪ ও নুর আহমেদের ১৮ বলে ১২ রানে কেবল হারের ব্যবধান কমে।

    ভারতের হয়ে দুর্দান্ত বোলিং করেন জাসপ্রিত বুমরাহ। ৪ ওভার বল করে মাত্র ৭ রান খরচায় ১ মেডেনসহ ৩ উইকেট তুলে নেন তিনি। ৩ উইকেট নিলেও ৩৬ রান খরচ দেন আর্শদীপ সিং।

    এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৮১ রান সংগ্রহ করেছিল ভারত। ইনিংসের তৃতীয় ওভারের পঞ্চম বলে ফজলহক ফারুকীকে উইকেট দিয়ে ফেরেন রোহিত শর্মা। ১৩ বলে ভারত অধিনায়ক করেন ৮ রান। ৫ ওভার শেষে টিম ইন্ডিয়ার সংগ্রহ দাঁড়ায় মাত্র ৩৪। ষষ্ঠ ওভারে আফগানিস্তানের মোমেন্টাম ভেঙে দেয়ার চেষ্টা করেন রিশাভ পন্ত। সফলও হন তিনি, তার টানা ৩ চারে ওই ওভারে আসে ১৩ রান।

    অন্যপ্রান্তে কোহলি তখন ‘ধীরে চল’ নীতিতে অটল, ঝড় শুরু করা পন্ত বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। সপ্তম ওভারে রশিদ খানের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি, ১১ বলে করেন ২০ রান। একা ৪ ওভার খেলে কোহলি করেন মাত্র ২৪ রান। আইপিএলে যিনি ছক্কার ফুলঝুরি ছুটিয়েছিলেন, সেই শিভম দুবেও ১০ রান করে কোহলিকে অনুসরণ করেন।

    এরপর সূর্যকুমার যাদব ও হার্দিক পান্ডিয়া ভারতের রানের চাকা ঘুরাতে থাকেন। তাদের মধ্যে হয় ৬০ রানের জুটি। দলীয় ১৫০ রানে বিদায় নেন সূর্যকুমার। ২৮ বলে ৫ চার ও ৩ ছয়ে তিনি করেন ৫৩ রান। কিছুক্ষণ পর রিভিউ নিয়ে বাঁচেন পান্ডিয়া। তবে গুরুত্বপূর্ণ সময়ে তাকে হারায় ভারত। ২৪ বলে ৩২ রান করেন তিনি।

    ব্যর্থতার ধারাবাহিকতা ধরে রাখেন রীবন্দ্র জাদেজা। ৭ রান করেই ফজলহকের বলে আউট হন তিনি। অক্ষর প্যাটেল শেষ বলে রানআউট হন ১২ করে। আফগানিস্তানের হয়ে ৩টি করে উইকেট শিকার করেন ফজলহক ও রশিদ।

    এ জয়ে সুপার এইটের গ্রুপ ওয়ান থেকে সেমিফাইনালের পথে একধাপ এগোল ভারত। তাদের পরবর্তী দুই ম্যাচ অস্ট্রেলিয়া ও বাংলাদেশের বিপক্ষে।

    পিএম

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…