এইমাত্র
  • বেনজীরের রিসোর্টের আয় যাবে সরকারি কোষাগারে
  • শিমুল-তানভীর-শিলাস্তির পর দায় স্বীকার বাবুর
  • ঝাল বেশি হওয়ায় কোরিয়ান নুডুলস বিক্রি বন্ধ করলো ডেনমার্ক
  • ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীর নামে বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রতারণার ফাঁদ
  • মাহমুদউল্লাহর অবসর নিয়ে যা বললেন সাকিব
  • তানজিদ তামিমের বুদ্ধির প্রশংসায় আইসিসি
  • যেকোনো সময় সরকারের পতন ঘটতে পারে: দুদু
  • সড়কে যানজটের কথা অস্বীকার করলেন ওবায়দুল কাদের
  • নীরবে চলে গেলেন সোনালি দিনের চিত্রনায়িকা সুনেত্রা
  • বেতন-ভাতার দাবিতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ
  • আজ শনিবার, ১ আষাঢ়, ১৪৩১ | ১৫ জুন, ২০২৪
    দেশজুড়ে

    ক্যান্সার থেকে মুক্তি পেয়েও বাঁচতে পারলেন না জয়নাল!

    জাহিদ হাসান নাইম, কুমিল্লা প্রতিনিধি প্রকাশ: ১১ মে ২০২৪, ০৯:৫৫ পিএম
    জাহিদ হাসান নাইম, কুমিল্লা প্রতিনিধি প্রকাশ: ১১ মে ২০২৪, ০৯:৫৫ পিএম

    ক্যান্সার থেকে মুক্তি পেয়েও বাঁচতে পারলেন না জয়নাল!

    জাহিদ হাসান নাইম, কুমিল্লা প্রতিনিধি প্রকাশ: ১১ মে ২০২৪, ০৯:৫৫ পিএম

    দুরারোগ্য ব্যাধি ক্যান্সার থেকে মুক্তি পেয়ে পুনরায় জীবনের স্বাদ নেয়ার আগেই বেপরোয়া গতির মোটরসাইকেল প্রাণ কেড়ে নিলো কুমিল্লার নাঙ্গলকোটের পেরিয়া ইউনিয়নের কাজী জোড়পুকুরিয়া গ্রামের জয়নাল আবেদীনের (৭৫)।

    শনিবার (১১ মে) সকাল পৌনে ৭টার দিকে কুমিল্লার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

    নিহত জয়নাল আবেদীন ওই গ্রামের মৃত দুলা মিয়ার ছেলে।

    বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নিহত জয়নাল আবেদীনের ছেলে মোশারফ হোসেন। তিনি জানান, আমি ও আমার বাবা এক সাথে বাড়ির পাশে বেগুন ক্ষেতে কাজ করছিলাম। কাজ শেষে বাবা বাড়িতে চলে যাওয়ার সময় রাস্তা পার হয়ে পূর্ব পাশে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় নিয়ন্ত্রণহীন একটি মোটরসাইকেল এসে আমার বাবাকে ধাক্কা দিলে অনেক দূরে গিয়ে পড়ে। এ সময় বাবার দুই পা ও ঘাড়ের হাঁড় ভেঙ্গে যায়, ২২দিন কুমিল্লায় চিকিৎসাধীন থেকে শনিবার সকালে মারা যায়। আমার বাবা দীর্ঘদিন দুরারোগ্য ব্যাধি ক্যান্সারে আক্রান্ত থেকে রাজধানীর ক্যান্সার হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে কিছু দিন পূর্বে সুস্থ হয়ে বাড়িতে আসে।

    প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, গত ২১ এপ্রিল বৃদ্ধ জয়নাল আবেদীন নিজ বাড়ির পাশে কৃষি জমি থেকে কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে নাঙ্গলকোট পৌরসভার হরিপুর পশ্চিম পাড়ার শাহ আলমের ছেলে মোহাম্মদ সুমন দ্রুত গতির মোটর সাইকেল দিয়ে ধাক্কা দিলে তিনি রাস্তা থেকে ছিটকে দূরে গিয়ে পড়ে। এতে বৃদ্ধ জয়নাল আবেদীনের দুই পা ও ঘাড়ের হাঁড় ভেঙ্গে যায়। পরে, স্থানীয়রা মোটরসাইকেল চালক ও তার মোটরসাইকেলটি আটক করে পেরিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এম.এ হামিদের নিকট হস্তান্তর করে। এ সময় বৃদ্ধ জয়নাল আবেদীনকে পরিবারের লোকজন উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। হাসপাতালে ২২দিন চিকিৎসাধীন থেকে শনিবার সকালে তিনি মারা যান।

    অভিযুক্ত মোটরসাইকেল চালক মোহাম্মদ সুমন বলেন, উনি রাস্তার এক পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন আমার সামনে একটি সিএনজি ছিল, পিছনে আমি ছিলাম। সিএনজি পার হওয়ার পর তিনি পিছনে বাইক আছে দেখতে না পেয়ে রাস্তায় চলে আসে। আমার গাড়ির গতি ৪০/৫০ ছিলো সাথে-সাথে ব্রেক করি, এসময় তিনি মোটরসাইকেলের সাথে ধাক্কা খেয়ে পড়ে যায়। আমরা কয়েক বার উনাকে দেখে এসেছি। এছাড়া আমরা চেয়ারম্যানকে বলেছি খরচ যা লাগে দিবো, পরে চেয়ারম্যান মোটরসাইকেল রেখে দিয়ে বলে হাসপাতালের খরচ যা যায় তা দিয়ে মোটরসাইকেল নিয়ে আসতে বলে।

    পেরিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়াম্যান এম এ হামিদ বলেন, ৩ দিন পূর্বে উভয় পক্ষকে নিয়ে বসে সমাধানের চেষ্টা করেছি, সমাধান হয়নি। আজকে জয়নাল আবেদীনের মৃত্যুর পর তাদেরকে খবর দেয়া হয়েছে , তারা আসবে বলেছে। উভয় পক্ষ একত্রিত হলে বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করবো। যদি সমাধান না হয় তাহলে নিহতের পক্ষ থেকে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।

    নাঙ্গলকোট থানা অফিসার ইনচার্জ দেবাশীষ চৌধুরী বলেন, আমি বিষয়টি আপনাদের মাধ্যমে জেনেছি, খবর নিয়ে দেখছি।

    এফএস

    ট্যাগ :

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…