এইমাত্র
  • রাঙ্গামাটিতে ইউপিডিএফ সদস্যকে গুলি করে হত্যা
  • গর্ভে থাকা শিশুর লিঙ্গ প্রকাশ করা যাবে না: হাইকোর্ট
  • পিলখানা হত্যাকাণ্ডের চূড়ান্ত বিচার দ্রুত শেষ হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
  • দুপুরের মধ্যে ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি হতে পারে যেসব অঞ্চলে
  • বিপিএলকে সার্কাসের মতো লাগে: হাথুরুসিংহ
  • বিডিআর বিদ্রোহে শহীদ সেনা কর্মকর্তাদের কবরে শ্রদ্ধা
  • ভারতে গঙ্গাস্নানে যাওয়ার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় নারী-শিশুসহ ২২ জন নিহত
  • আজ মুসলমানদের সৌভাগ্যের রজনী, পবিত্র শবে বরাত
  • মির্জাপুর পরিদর্শনে দেশের ফার্স্ট লেডি ড. রেবেকা সুলতানা
  • আওয়ামী লীগ থেকে পদত্যাগ করলেন স্বামী-স্ত্রী
  • আজ রবিবার, ১২ ফাল্গুন, ১৪৩০ | ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
    আন্তর্জাতিক

    ৭০ বছর বয়সে জন্ম দিলেন জমজ সন্তান

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক প্রকাশ: ৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ১২:০৬ এএম
    আন্তর্জাতিক ডেস্ক প্রকাশ: ৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ১২:০৬ এএম

    ৭০ বছর বয়সে জন্ম দিলেন জমজ সন্তান

    আন্তর্জাতিক ডেস্ক প্রকাশ: ৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ১২:০৬ এএম

    উগান্ডায় ৭০ বছর বয়সে যমজ সন্তানের মা হয়েছেন সাফিনা নামুকাওয়া নামের এক নারী। অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে এক মেয়ে ও এক ছেলের মা হয়েছেন তিনি।

    ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, কাম্পালার একটি হাসপাতালে যমজ সন্তানের জন্ম দেন সাফিনা। শিশুদের বর্তমানে ইনকিউবেটরে রাখা হলেও তারা ঝুঁকিমুক্ত বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

    প্রতিবেদনে বলা হয়, এই বয়সে সন্তান গর্ভধারণ ছিল সাফিনার জন্য বড় ঝুঁকির। কিন্তু ‘ইন ভিট্রো ফার্টিলাইজেশন (আইভিএফ)’ চিকিৎসা পদ্ধতিতে ৭০ বছর বয়সে মা হয়েছেন তিনি।

    এ বিষয়ে সাফিনা বলেছেন, ‘তরুণ বয়সে গর্ভধারণ করতে পারিনি। যাদের লালন-পালন করেছি, তারা কেউ আমার নিজের সন্তান না। ওরা বড় হওয়ার পর আমি একা হয়ে যাই। সন্তান জন্মদানের তীব্র আকাঙ্ক্ষা থেকেই বৃদ্ধ বয়সেও আগ্রহী হই। এটা অলৌকিক ঘটনা।’

    নিঃসন্তান হওয়ায় তাকে নিয়ে অনেকে উপহাস করত এবং এই বয়সে সন্তান নেয়া কঠিন ছিল উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ‘গর্ভধারণের পর পুরো সময়টা আমার শরীরে কোনো শক্তি ছিল না। কোনো কাজ করতে পারতাম না। আমাকে সাহায্য করার মতোও কেউ পাশে ছিল না।’

    এ বিষয়ে সাফিনার চিকিৎসক বলেছেন, ‘এই বয়সে কোনো নারীর ডিম্বাশয়ে ডিম্বাণু অবশিষ্ট থাকে না। এক্ষেত্রে আমরা ডোনার খুঁজে বের করি ডিম্বাণুর জন্য। সাফিনার শারীরিক পরিস্থিতি বিবেচনা করেই তাকে পুরো চিকিৎসা প্রক্রিয়ার মধ্যে আনা হয়।’

    এমআর

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…